Maharastra: রাজভবনের জাদুঘরে স্থান পেলেন সাভারকর - 'প্রকৃত স্বাধীনতা সংগ্রামী'দের উপেক্ষার অভিযোগ

শিবসেনার কিশোর তিওয়ারি বলেন, 'সকলেই জানে, ভারতীয় স্বাধীনতা আন্দোলনে আরএসএস-এর কোনও ভূমিকা ছিল না। কিন্তু এটা দুঃখজনক যে, রাজভবনের অগাস্ট কার্যালয়টি নিজেদের এজেন্ডা বাস্তবায়নে কাজে লাগানো হচ্ছে।
Maharastra: রাজভবনের জাদুঘরে স্থান পেলেন সাভারকর - 'প্রকৃত স্বাধীনতা সংগ্রামী'দের উপেক্ষার অভিযোগ
গ্রাফিক্স - সুমিত্রা নন্দন

'ভারতের ইতিহাস বদালানোর' ডাক দিয়েছিলেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। গত শনিবার দিল্লিতে তিনি বলেছিলেন, ‘দেশের ইতিহাস বদল করতে গেলে আমাদের কে রুখবে?' এই ঘোষণার তিনদিন না পেরোতেই নতুন করে বিতর্ক দেখা দিয়েছে মহারাষ্ট্রে।

মঙ্গলবার, মহারাষ্ট্রের রাজভবনে দেশের প্রথম ভূগর্ভস্থ ‘গ্যালারি অফ রেভলিউশনারি’ উদ্বোধন করেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। আর তাতে বাদ পড়েছে ভারতের 'প্রকৃত স্বাধীনতা সংগ্রামীদের' নাম। যা নিয়ে বিজেপি শাসিত কেন্দ্রীয় সরকারের পদক্ষেপ নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছে মহারাষ্ট্রের মহাজোট বা Maha Vikas Aghadi (MVA)।

বর্তমানে MVA-তে রয়েছে শিবসেনা (Shiv Sena), জাতীয়তাবাদী কংগ্রেস পার্টি (NCP), এবং কংগ্রেস (Congress)। 'বিজেপি এবং রাষ্ট্রীয় স্বয়ংসেবক সংঘ বা RSS-এর এজেন্ডা হল- ভারতীয় ইতিহাসের পুনর্লিখন। সেই লক্ষেই মহারাষ্ট্রের রাজভবনের এই পদক্ষেপ' কিনা, তা নিয়ে আশঙ্কা করেছে সকলে।

এনিয়ে কংগ্রেসের সাধারণ সম্পাদক শচীন সাওয়ান্ত (Sachin Sawant) অভিযোগ করেন, মূলধারার অহিংস স্বাধীনতা সংগ্রামকে হেও করা এবং স্বাধীনতা আন্দোলনের ইতিহাসকে 'ডানপন্থী প্রিজমের' মাধ্যমে দেখানোর জন্য ইতিহাস বদলানোর চেষ্টা চালাচ্ছে আরএসএস। যারা এই স্বাধীনতা আন্দোলনের অংশই ছিল না।

এদিন কংগ্রেস নেতা সাওয়ান্ত দাবী করেন, 'এই জাদুঘরের গ্যালারিতে মূলধারার স্বাধীনতা সংগ্রামের ইতিহাস জায়গা পেয়েছে বলে মনে হয় না। কেননা, ১৮৮৫ সালের ডিসেম্বর, মুম্বাইয়ে ভারতীয় জাতীয় কংগ্রেস (INC)- প্রতিষ্ঠা লাভ করেছিল। ১৯৪২ সালে মুম্বাই থেকেই ভারত ছাড়ো আন্দোলন শুরু করেছিলেন মহাত্মা গান্ধী। এই আন্দোলনের সময় অনেকেই নিজেদের জীবন উৎসর্গ করেছেন, শহীদ হয়েছেন। '

একইসঙ্গে তিনি প্রশ্ন তুলেছেন, স্বাধীনতা সংগ্রামী কমিউনিস্ট নেতা এস.এ. ডাঙ্গে (S.A. Dange), বাবু গেনু সাইদ (Babu Genu Said), বা আজিমুল্লাহ খান (Azimullah Khan)-সহ অন্যান্য বিশিষ্ট ব্যক্তিত্বদের নাম, তাঁদের অবদান কেন নেই রাজভবনের প্রাথমিক বিবৃতিতে?

বর্তমানে কারা আছেন মহারাষ্ট্রের রাজভবনের তালিকায়?

প্রেস রিলিজে প্রাথমিক ভাবে যাদের নাম প্রকাশ করেছে রাজভবন, তাতে জায়গা পেয়েছে- বলওয়ান্ত ফাড়কে (Vasudev Balwant Phadke), দামোদর হরি চাপেকর (Damodar Hari Chapekar), বিষ্ণু হরি চাপেকর (Vishnu Hari Chapekar), বাল গঙ্গাধর তিলক (Bal Gangadhar Tilak), বিনায়ক দামোদর সাভারকর (Vinayak Damodar Savarkar), গণেশ দামোদর সাভারকর (Ganesh Damodar Savarkar), অনন্ত লক্ষ্মণ কানহেরে (Anant Laxman Kanhere), বিষ্ণু গণেশ পিঙ্গলে (Vishnu Ganesh Pingale), বাসুদেব বলবন্ত গোগাতে (Vasudev Balwant Gogate), লাহুজি রাঘোজি সালভে (Vasudev Balwant Gogate), ভিকাইজি রুস্তম কামা (Bhikaiji Rustom Cama), শিবরান এইচ রাজগুরু (Shivran H. Rajguru)-র নাম।

এ প্রসঙ্গে কি জানান শচীন সাওয়ান্ত ?

কংগ্রেস নেতা সাওয়ান্ত বলেন, 'যেহেতু (ইতিহাসবিদ) ডক্টর বিক্রম সম্পাথের (Dr Vikram Sampath) তত্বাবধানে জাদুঘরটি তৈরি করা হয়েছিল, তাই এক্ষেত্রে আরএসএস-এর ভাবনা কার্যকর হওয়ার একটি বড় সম্ভাবনা রয়েছে।'

তবে তিনি জানিয়েছেন, 'আমি আশা করছি, ভারতের স্বাধীনতার ৭৫ তম বার্ষিকীতে আমি আশা করছি, ঘোষিত নামগুলির সঙ্গে অন্যান্য বিপ্লবীদের আত্মত্যাগের যথাযথ স্বীকৃতি পাবে।'

শুধু কি কংগ্রেস প্রতিক্রিয়া জানিয়েছে?

না, এই ইস্যুতে মুখ খুলেছেন শিবসেনার প্রথম সারির নেতা কিশোর তিওয়ারি (Kishore Tiwari)। তিনি জানান, 'নতুন যাদুঘর সম্পর্কে এখন পর্যন্ত যা জানা গেছে, তা থেকে পরিস্কার এটি আরএসএস-এর এজেন্ডাকে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছে। নতুন করে ইতিহাস রচনা করার প্রয়াস চলছে।'

অভিযোগের সুরে তিওয়ারি জানান, 'সকলেই জানে, ভারতীয় স্বাধীনতা আন্দোলনে আরএসএস-এর কোনও ভূমিকা ছিল না। কিন্তু এটা দুঃখজনক যে, রাজভবনের অগাস্ট কার্যালয়টি (august office of Raj Bhavan) নিজেদের এজেন্ডা বাস্তবায়নে কাজে লাগানো হচ্ছে। ভারতীয় স্বাধীনতা সংগ্রামে জাতীয় কংগ্রেসের গান্ধীজি, পন্ডিত জওহরলাল নেহরু, সর্দার বল্লভভাই প্যাটেল, মৌলানা আবুল কালাম আজাদ এবং মহারাষ্ট্রের বিভিন্ন দলের অনেক কিংবদন্তী নেতাদের অবদান মুছে ফেলার চেষ্টা করা হচ্ছে।'

এনসিপি (NCP)-র প্রধান মুখপাত্র মহেশ তাপসে (Mahesh Tapase) বলেন, 'এটি প্রত্যাশিত যে প্রধানমন্ত্রী নরন্দ্র মোদী (PM Narendra Modi) যখন মর্যাদাপূর্ণ গ্যালারি উদ্বোধন করবেন, তখন সমস্ত 'প্রকৃত' মুক্তি যোদ্ধাদের নাম এবং অবদান' তুলে ধরবে, যারা ভারতকে স্বাধীন করার উদ্দেশ্যে তাদের জীবন উৎসর্গ করেছিলেন। কিন্তু, তা হয়নি।'

একইসঙ্গে তিনি দাবি করে বলেন, ' আমরা আশা করি, ব্রিট্রিশ সরকারের কাছে মুচলেকা দেয়নি এমন সকল স্বাধীনতা আন্দোলনে সাজাপ্রাপ্ত বিপ্লবীদের নাম যাদুঘরে দেখতে পাবো। শুধু তাই নয়, আন্দামান ও নিকোবর দ্বীপপুঞ্জের সেলুলার জেলে পাঠানো মহারাষ্ট্রের কৃষক, শ্রমিক, আদিবাসী, মহিলা এবং যুবকদের নামও থাকতে হবে জাদুঘরে।'

Maharastra: রাজভবনের জাদুঘরে স্থান পেলেন সাভারকর - 'প্রকৃত স্বাধীনতা সংগ্রামী'দের উপেক্ষার অভিযোগ
Kerala: RSS যোগের কথা স্বীকার করলেন HRDS সম্পাদক, সোনা পাচার কান্ডে অভিযুক্ত স্বপ্নার পাশেই সংস্থা

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

Related Stories

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in