Madhya Pradesh: মধ্যপ্রদেশে বিজেপি দুর্গে ধস - গোয়ালিয়র, মোরেনা সহ ৭ মেয়র পদে পরাজয়

৫৭ বছর পর গোয়ালিয়রের মেয়র পদে জয়ী হয়েছে কংগ্রেস। জবলপুর, ছিন্দওয়াড়া, রেওয়া এবং মোরেনা জিতেছে প্রায় দুই দশক পর। কংগ্রেসের কথায় ১৯৯৯ সালের পর থেকে এটা সেরা জয়।
মধ্যপ্রদেশে বিজেপি দুর্গে ধস
মধ্যপ্রদেশে বিজেপি দুর্গে ধসগ্রাফিক্স - নিজস্ব

মধ্যপ্রদেশে পুর ভোটে ব্যাপক ধাক্কা খেল বিজেপি। গোয়ালিয়র এবং মোরেনা সহ ৭টি মেয়র পদে রেকর্ড ভোটে হেরেছে রাজ্যে ক্ষমতাসীন দলটি। রাজ্যে বিধানসভা নির্বাচনের মাত্র দেড় বছর আগে হওয়া পুর ভোটের এই ফলাফল গেরুয়া শিবিরের কপালে চিন্তার ভাঁজ ফেলেছে।

১৭ এবং ২০ জুলাই - দু দফায় মোট ১৬ টি মেয়র পদের নির্বাচনের ফলাফল ঘোষণা করেছে রাজ্য নির্বাচন কমিশন। ২০১৪ সালে এই ১৬টি পুরাসভাতেই বিজেপি জিতেছিল। কিন্তু এবার বিজেপির থেকে ৫টি আসন ছিনিয়ে নিয়েছে কংগ্রেস। একটি আসনে জিতে মধ্যপ্রদেশে খাতা খুলেছে আম আদমি পার্টি। এবং অপর একটি আসনে জয়ী হয়েছেন এক বিদ্রোহী বিজেপি সদস্য।

২০২০ সালে 'অপারেশন লোটাস'-এর মাধ্যমে মধ্যপ্রদেশে কংগ্রেসের নির্বাচিত সরকার ফেলে দিয়ে মসনদে বসেছিল বিজেপি। এরপর রাজ্যে যতগুলি উপনির্বাচন হয়েছে সবকটিতে লাগাতার হেরেছে কংগ্রেস। সেই জায়গায় দাঁড়িয়ে ৫টি মেয়র পদে জয়লাভ নতুন করে অক্সিজেন জোগালো কংগ্রেসকে।

৫৭ বছর পর গোয়ালিয়রের মেয়র পদে জয়ী হয়েছে কংগ্রেস। জবলপুর, ছিন্দওয়াড়া, রেওয়া এবং মোরেনা জিতেছে প্রায় দুই দশক পর। ১৯৯৯ এবং ২০০৪ সালে পুরভোটে দুটি এবং ২০০৯ সালে মেয়র পদে জয়ী হয়েছিল দলটি। কংগ্রেসের কথায় ১৯৯৯ সালের পর থেকে এটা সেরা জয়।

বিজেপি যে মেয়র পদগুলি দখলে রাখতে পেরেছে সেগুলি হলো - দেওয়াস, রতলাম, ইন্দোর, উজ্জয়িনী, খান্ডওয়া এবং বুরহানপুর। উজ্জয়িনী এবং বোরহানপুরে খুব সামান্য ব্যবধানে জয়ী হয়েছে বিজেপি, যথাক্রমে ৫৪২ এবং ৭৩৬। উজ্জয়িনীতে বিজেপি প্রার্থীর ভোটের ব্যবধান বেড়েছে পুনঃগণনার পরে।

তবে ওয়ার্ডভিত্তিক জয়ের হিসেবে কংগ্রেসের থেকে অনেক এগিয়ে বিজেপি, প্রায় ৫১ শতাংশ ওয়ার্ডে জিতেছে তারা। ১৬টি কর্পোরেশনের মোট ৮৮৪টি ওয়ার্ডের মধ্যে ৪৯১ টি ওয়ার্ডে জয়ী হয়েছে বিজেপি। কংগ্রেস জিতেছে ২৭৪টি ওয়ার্ডে। অন্যান্য দল জিতেছে ১০৯টি ওয়ার্ডে।

মধ্যপ্রদেশে বিজেপি দুর্গে ধস
MP: মুখ্যমন্ত্রী শিবরাজ সিং চৌহানকে ঠাণ্ডা চা দেওয়ায় সরকারি আধিকারিককে শোকজ, কটাক্ষ কংগ্রেসের

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

Related Stories

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in