Arundhati Roy: ২০১০ সালে দেওয়া বক্তৃতার জের! সমাজকর্মী অরুন্ধতী রায়ের বিরুদ্ধে UAPA মামলার অনুমতি

People's Reporter: গত বছর অক্টোবর মাসে ভারতীয় দণ্ডবিধির ধারাগুলিতে মামলার অনুমতি দিলেও ইউএপিএ মামলার অনুমতি দেননি লেফটেন্যান্ট গভর্নর।
অরুন্ধতী রায়
অরুন্ধতী রায়ফাইল চিত্র - সংগৃহীত

সমাজকর্মী অরুন্ধতী রায় এবং কাশ্মীর কেন্দ্রীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাক্তন অধ্যাপক শেখ শওকত হোসেনের বিরুদ্ধে ইউএপিএ আইনে মামলা দায়েরের অনুমতি দিলেন দিল্লির লেফটেন্যান্ট গভর্নর ভি কে সাক্সেনা। তাঁদের দু'জনের বিরুদ্ধে কাশ্মীর নিয়ে প্ররোচনামূলক বক্তব্য প্রদানের অভিযোগ রয়েছে। ২০১০ সালে এই বক্তৃতা দিয়েছিলেন তাঁরা।

হিন্দুস্থান টাইমসের একটি প্রতিবেদন অনুযায়ী দিল্লি রাজ ভবনের তরফ থেকে বিষয়টি জানানো হয়েছে। বিবৃতিতে বলা হয়েছে, দিল্লির লেফটেন্যান্ট গভর্নর ভি কে সাক্সেনা বিশিষ্ট লেখক ও সমাজকর্মী অরুন্ধতী এবং আন্তর্জাতিক আইনের প্রাক্তন অধ্যাপক শেখ শওকত হোসেনের বিরুদ্ধে ইউএপিএ আইনের ৪৫ (১) ধারায় মামলা দায়েরের অনুমতি দিয়েছেন।

এই মামলায় দিল্লি পুলিশ আগেই দুই অভিযুক্তের বিরুদ্ধে ভারতীয় দণ্ডবিধির ১৫৩(এ), ১৫৩(বি), ৫০৪, ৫০৫ এবং ইউএপিএ আইনের ১৩ নম্বর ধারায় মামলা দায়েরের অনুমতি চেয়েছিল। গত বছর অক্টোবর মাসে ভারতীয় দণ্ডবিধির ধারাগুলিতে মামলার অনুমতি দিলেও ইউএপিএ মামলার অনুমতি দেননি লেফটেন্যান্ট গভর্নর। কিন্তু এবার তিনি অনুমতি দিলেন।

প্রসঙ্গত, ২০১০ সালে দিল্লিতে একটি 'আজাদি - দ্য অনলি ওয়ে' শীর্ষক আলোচনা সভায় বক্তব্য রেখেছিলেন সমাজকর্মী অরুন্ধতী রায় এবং কাশ্মীর কেন্দ্রীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাক্তন অধ্যাপক শেখ শওকত হোসেন। তাঁদের বিরুদ্ধে অভিযোগ ওঠে, কাশ্মীর নিয়ে উস্কানিমূলক মন্তব্য করেছিলেন তাঁরা। দু'জনের বিরুদ্ধে অভিযোগ করেন সুহেল পণ্ডিত বলে কাশ্মীরের এক সমাজকর্মী। তাঁর অভিযোগ, অরুন্ধতী দাবি করেন কাশ্মীর কোনোদিনই ভারতের অংশ ছিল না। বলপূর্বক ভারতের সেনাবাহিনী ওই অঞ্চল দখল করে রেখেছে।

অভিযোগকারী এই অনুষ্ঠানে তাঁদের বক্তৃতার রেকর্ডিং জমা দিয়েছেন বলে জানা গেছে। অনুষ্ঠানে প্রয়াত হুররিয়াত নেতা সৈয়দ আলী শাহ গিলানি এবং কবি ভারাভারা রাও উপস্থিত ছিলেন। এসএআর গিলানিও উপস্থিত ছিলেন, যিনি সংসদ হামলা মামলার প্রধান অভিযুক্ত ছিলেন।

অরুন্ধতী রায়
সংবাদমাধ্যমের স্বাধীনতা খর্ব করা আইন বাতিল করার দাবিতে নয়া সরকারের উপর চাপ বাড়াচ্ছে ১৪টি সংগঠন
অরুন্ধতী রায়
Prashant Kishor: ‘ক্ষমতা টেকাতে মোদির পা ছুঁয়ে বিহারকে লজ্জিত করেছেন’ – নীতিশকে খোঁচা পিকের

GOOGLE NEWS-এ Telegram-এ আমাদের ফলো করুন। YouTube -এ আমাদের চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন।

Related Stories

No stories found.
logo
People's Reporter
www.peoplesreporter.in