ডঃ শিবমূর্তি মুরুগা শরণারু
ডঃ শিবমূর্তি মুরুগা শরণারুফাইল ছবি, দ্য স্ক্রল-এর সৌজন্যে

Karnataka: ফের গ্রেপ্তারির আশঙ্কা নাবালিকা ধর্ষণে অভিযুক্ত সদ্য জামিনপ্রাপ্ত সন্ন্যাসী শিবমূর্তির

People's Reporter: ধর্ষণের মামলায় অভিযুক্ত শিবমূর্তিকে প্রথম পকসো মামলায় শর্তসাপেক্ষ জামিন মঞ্জুর করার পর তিনি মুক্তি পান। তাঁর বিরুদ্ধে দ্বিতীয় POCSO মামলায় গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারির দাবি করা হয়।

আবারও গ্রেপ্তার হতে পারেন চিত্রদুর্গার ঐতিহাসিক মুরুঘা মঠের ধর্ষণের অভিযুক্ত শিবমূর্তি মুরুগা শরনারু। তাঁর বিরুদ্ধে দ্বিতীয় পকসো মামলায় ফের গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি হতে পারে। অতি সম্প্রতি ১৪ মাস কারাগারে থাকার পর তিনি শর্তাধীন জামিনে মুক্তি পেয়েছিলেন।

পাবলিক প্রসিকিউটর জগদীশের দাখিল করা আবেদনের ভিত্তিতে চিত্রদুর্গা দ্বিতীয় অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা আদালত এই আদেশ জারি করেছে।

ধর্ষণের মামলায় অভিযুক্ত শিবমূর্তিকে প্রথম পকসো মামলায় শর্তসাপেক্ষ জামিন মঞ্জুর করার পরে ১৬ নভেম্বর তিনি মুক্তি পান। যদিও তাঁর মুক্তিতে আপত্তি জানিয়ে তাঁর বিরুদ্ধে দ্বিতীয় POCSO মামলায় গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারির দাবি করা হয়।

অভিযুক্ত শিবমূর্তি মুরুগার আইনজীবী জানিয়েছেন, ফের গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি হাইকোর্টের জামিন আদেশের পরিপন্থী।

ওদানদী এনজিওর প্রতিষ্ঠাতা এম এল পরশুরাম, যিনি এই সন্ন্যাসীর বিরুদ্ধে মামলা করেন, তিনি জানান যে, তদন্তকারী অফিসারদের ভুলের কারণে ধর্ষণে অভিযুক্ত শিবমূর্তি জামিন পেয়েছেন।

তিনি বলেন, "যদি একটি উচ্চ-স্তরের তদন্তকারী সংস্থার দ্বারা মামলার তদন্ত করা হতো, তাহলে তিনি এত তাড়াতাড়ি জামিন পেতেন না। অভিযুক্ত সন্ন্যাসীর পক্ষে স্লোগান ওঠায় ওই ঘটনায় আক্রান্তদের মনে ভয় তৈরি হয়েছে, যারা শিশু।

ওদানাদি এনজিও-এর সহ-প্রতিষ্ঠাতা কে ভি স্ট্যানলি বলেন, জামিন বাতিল করার জন্য তারা আইনি বিকল্পের খোঁজ করছেন।

তিনি আরও বলেন, "অভিযুক্ত সন্ন্যাসীর মুক্তির পর আক্রান্ত নাবালকরা ভয়ের মধ্যে দিন কাটাচ্ছে। আমরা তাদের মধ্যে শক্তি ও সাহস জাগানোর চেষ্টা করছি।"

মুরুগা মঠের হোস্টেলে থাকা নাবালিকা মেয়েদের ধর্ষণের অভিযোগে গত বছর মঠের প্রধান শিবমূর্তিকে গ্রেপ্তার করা হয়েছিল। প্রভাবশালী এই লিঙ্গায়ত সন্ন্যাসী এরপর গত ১৪ মাস চিত্রদুর্গা জেলা কারাগারে কাটান।

৮ নভেম্বর কর্ণাটক হাইকোর্ট তাঁকে শর্তসাপেক্ষে জামিন দেয়। সন্ন্যাসীর বিরুদ্ধে পকসো আইন, আইপিসি ধারা, জুভেনাইল জাস্টিস অ্যাক্ট, ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান (অপব্যবহার প্রতিরোধ) আইন ইত্যাদির অধীনে অভিযোগ রয়েছে।

তিনি ১ সেপ্টেম্বর, ২০২২-এ গ্রেপ্তার হন এবং তারপর থেকে তিনি কারাগারে ছিলেন।

হাইকোর্ট বেঞ্চ অভিযুক্ত সন্ন্যাসীকে মঠ প্রাঙ্গণে প্রবেশ করতে নিষেধাজ্ঞা জারি করে এবং তাঁর পাসপোর্ট আদালতে জমা দেওয়ার নির্দেশও দেয়। এছাড়াও তাঁকে দুটি জামিনদার দিতেও বলা হয়েছে।

ডঃ শিবমূর্তি মুরুগা শরণারু
Karnataka: নাবালিকাদের মাদক খাইয়ে 'অপকর্ম' করতেন লিঙ্গায়েত ধর্মগুরু মুরুগা, দাবি পুলিশের
ডঃ শিবমূর্তি মুরুগা শরণারু
Karnataka: দু'দশক ধরে নাবালিকাদের যৌন শোষণ করতেন সন্ন্যাসী, মুরুগা মঠ প্রধানের বিরুদ্ধে আরও অভিযোগ

GOOGLE NEWS-এ Telegram-এ আমাদের ফলো করুন। YouTube -এ আমাদের চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন।

logo
People's Reporter
www.peoplesreporter.in