Lakhimpur Kheri: উত্তরপ্রদেশ সরকারের ভূমিকায় অসন্তোষ প্রকাশ শীর্ষ আদালতের

বেঞ্চ বিশিষ্ট আইনজীবী হরিশ সালভেকে জানায়, "যখন খুন এবং বন্দুকের গুলির আঘাতের গুরুতর অভিযোগ থাকে, তখন দেশের অন্যান্য অঞ্চলে অভিযুক্তদের সঙ্গে কেমন আচরণ করা হয়। দয়া করে আমাদের বলুন।"
Lakhimpur Kheri: উত্তরপ্রদেশ সরকারের ভূমিকায় অসন্তোষ প্রকাশ শীর্ষ আদালতের
সুপ্রিম কোর্টফাইল ছবি সংগৃহীত

লখিমপুর খেরি কান্ডে শুক্রবার সুপ্রিম কোর্ট জানিয়েছে যে রাজ্য কর্তৃক গৃহীত পদক্ষেপে তারা সন্তুষ্ট নয় এবং একটি দায়িত্বশীল সরকার, প্রশাসন এবং পুলিশি ব্যবস্থা প্রত্যাশা করে। শীর্ষ আদালত আরও বলেছে যে মামলাটি সিবিআইয়ের কাছে হস্তান্তর করা কোনো সমাধান নয়।

প্রধান বিচারপতি এনভি রমনার নেতৃত্বে এবং বিচারপতি সূর্যকান্ত এবং হিমা কোহলির সমন্বয়ে গঠিত একটি বেঞ্চ জানায়: "আমরা রাজ্যের পদক্ষেপ নিয়ে সন্তুষ্ট নই"।

কেন্দ্রীয় মন্ত্রী অজয় ​​মিশ্রের ছেলে আশীষ মিশ্রকে গ্রেপ্তার না করার বিষয়ে বেঞ্চ সালভকে জিজ্ঞাসা করে, "আপনারা কি অন্যান্য মামলায়ও অভিযুক্তদের সাথে এভাবেই আচরণ করেন? ... নোটিশ পাঠান।"

বেঞ্চ বিশিষ্ট আইনজীবী হরিশ সালভেকে জানায়, "যখন খুন এবং বন্দুকের গুলির আঘাতের গুরুতর অভিযোগ থাকে, তখন দেশের অন্যান্য অঞ্চলে অভিযুক্তদের সঙ্গে কেমন আচরণ করা হয়। দয়া করে আমাদের বলুন।"

উত্তরপ্রদেশ সরকারের প্রতিনিধিত্বকারী সিনিয়র অ্যাডভোকেট হরিশ সালভের কাছে বেঞ্চ আরও জানতে চায়, রাজ্য সরকার কি মামলাটি সিবিআইকে দেওয়ার অনুরোধ করেছে?

সালভে এর উত্তরে জানান যে, এটা সম্পূর্ণ তাদের হাতে। সালভের উত্তরে বেঞ্চ জানায়: "সিবিআইও সমাধান নয় এবং এর কারণ আপনি জানেন ... আপনি আরও ভাল উপায় খুঁজে বের করেন"।

সালভে বলেন, মামলাটি অত্যন্ত গুরুতর। বেঞ্চ জবাব দেয়: "যদি এটি একটি অত্যন্ত গুরুতর মামলা হয় তবে কীভাবে এমন ঘটনা ঘটছে। এগুলো শুধুই কথায় আছে এবং কাজে নয়"।

হরিশ সালভে এদিন সুপ্রিম কোর্টের সামনে স্বীকার করেছেন যে, উত্তরপ্রদেশ সরকার যা করেছে তা সন্তোষজনক নয় এবং শীঘ্রই প্রতিকারমূলক ব্যবস্থা নেওয়া হবে। তিনি দশেরার ছুটির পরে পরবর্তী শুনানির দিন রাখার জন্য বেঞ্চের প্রতি আবেদন জানান।

শীর্ষ আদালত এই বিষয়ে স্থানীয় কর্মকর্তাদের নিয়ে গঠিত এসআইটি-তেও তীব্র আপত্তি জানিয়েছে।

বেঞ্চ বলেছে যে এসআইটির আর প্রয়োজন নেই এবং বলে যে তাদের প্রমাণ নষ্ট করা বা নেতিবাচক কিছু করা উচিত নয়।

শীর্ষ আদালত সালভেকে জানায় যে, দশেরার ছুটির পরে বিষয়টি নিয়ে যাবেন, কিন্তু এর অর্থ এই নয় যে রাজ্য এইসময় চুপ করে থাকবে এবং রাজ্যকে অবিলম্বে পদক্ষেপ গ্রহণ করতে হবে।

বিচারপতি কান্ত বলেন: "আপনাকে আত্মবিশ্বাস জোগাতে হবে"। সালভে বলেন, "তারা যা করেছে তা সন্তোষজনক নয়"।

বেঞ্চ বলেছিল: "ইস্যুটির সংবেদনশীলতার কারণে, রাজ্যের বিষয়টি বোঝা উচিত। আমরা আর কিছু বলছি না"।

শীর্ষ আদালত আগামী ২০ অক্টোবর পরবর্তী শুনানির জন্য বিষয়টি তালিকাভুক্ত করেছে।

৩ অক্টোবর লখিমপুর খেরিতে কৃষকদের বিক্ষোভের সময় যে হিংসার কারণে চার কৃষকসহ নয়জন নিহত হয়েছিল।

- with Agency input

সুপ্রিম কোর্ট
Lakhimpur Kheri: FIR-এ কাদের নাম? ক'জন গ্রেপ্তার হয়েছে? UP সরকারকে শুক্রবার জানাতে হবে শীর্ষ আদালতে

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

Related Stories

No stories found.