Lakhimpur Kheri: কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর বাসভবনে মীমাংসা আলোচনার প্রস্তাব - প্রত্যাখ্যান করলেন কৃষকরা

মঙ্গলবার কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র দপ্তরের রাষ্ট্রমন্ত্রী অজয় মিশ্র টেনি তাঁর বাসভবনে কৃষকদের ধান সংগ্রহ সংক্রান্ত সমস্যা সমাধানের জন্য এবং গত ৩ অক্টোবরের হিংসার ঘটনার মীমাংসা করতে ডেকে পাঠিয়েছিলেন।
Lakhimpur Kheri: কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর বাসভবনে মীমাংসা আলোচনার প্রস্তাব - প্রত্যাখ্যান করলেন কৃষকরা
লখিমপুর খেরির ঘটনাভাইরাল হওয়া ভিডিও থেকে স্ক্রিনশট

লখিমপুর খেরির আন্দোলনরত কৃষকরা কেন্দ্রীয় মন্ত্রী অজয় ​​মিশ্র টেনির দেওয়া প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করলেন। গত ৩ অক্টোবর লখিমপুর খেরিতে আন্দোলনরত কৃষকদের ওপর দিয়ে গাড়ি চালিয়ে দেবার ঘটনায় ৪ কৃষকের মৃত্যু হয়েছিলো। সেই ঘটনায় অভিযুক্ত কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর ছেলে আশিস মিশ্র।

মঙ্গলবার কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র দপ্তরের রাষ্ট্রমন্ত্রী অজয় মিশ্র টেনি তাঁর বাসভবনে কৃষকদের ধান সংগ্রহ সংক্রান্ত সমস্যা সমাধানের জন্য এবং গত ৩ অক্টোবরের হিংসার ঘটনার মীমাংসা করতে ডেকে পাঠিয়েছিলেন। মন্ত্রীর ছেলে আশীষ ওই ঘটনায় কারাগারে আছেন এবং এক বিশেষ তদন্ত দল (SIT) এই ঘটনার তদন্ত করছে। মন্ত্রীর আহ্বানের পরেই শিখ সম্প্রদায়ের নেতারা গুরুদ্বারে একটি জরুরি সভা করেন এবং এলাকার কৃষকদের সভা এড়িয়ে যেতে বলেন।

ভারতীয় শিখ সংগঠনের সভাপতি যশবীর সিং বির্ক জানান, "আমরা সর্বসম্মতভাবে সিদ্ধান্ত নিয়েছি মন্ত্রীর বাড়িতে বৈঠকে না যাব। তাঁর সাথে আমাদের কোনো আলোচনা করার নেই। তিনি আমাদের কৃষকদের ধানের বেশি দাম দেবার প্রস্তাব দিয়ে প্রলুব্ধ করার চেষ্টা করতে পারেন। কিন্তু তাঁর মনে রাখা উচিত যে ৩ অক্টোবরের ঘটনায় যাঁদের মৃত্যু হয়েছে তিনি তার ক্ষতিপূরণ দিতে পারবেন না। শিখ সম্প্রদায়ের কোনো সদস্য মিশ্র বা তার পরিবারের সঙ্গে কোনো সম্পর্ক রাখলে সমগ্র শিখ সমাজ সেই ব্যক্তিকে বয়কট করবে।"

ঘটনার দিন গাড়ি চাপায় মৃত্যু হওয়া লভপ্রীতের পরিবার জানিয়েছে, "মন্ত্রী তার ঘনিষ্ঠদের মাধ্যমে মামলার নিষ্পত্তি করতে এবং সমঝোতায় আসার জন্য আলোচনায় বসার আমন্ত্রণ জানিয়েছিলেন। ফসল সংগ্রহে সহায়তার প্রস্তাবও দেওয়া হয়েছিলো। কিন্তু আমরা সেই প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করেছি।"

কৃষকরা বলেন, "এখনও মন্ত্রীর বিরুদ্ধে কোনো ব্যবস্থা নেওয়া হয়নি। তাঁর ও তাঁর সহযোগীদের সঙ্গে আমাদের কোনো সম্পর্ক নেই।"

ঘটনার তদন্তকারী এসআইটি-র এক সদস্য জানিয়েছেন, "আমরা মামলাটির তদন্ত করছি। আমরা সমস্ত সাক্ষীদের নিরাপত্তা দিয়েছি। যদি কেউ কোনও হুমকির সম্মুখীন হয় বা তার উপর কোনও চাপ দেওয়া হয়, তবে তিনি লিখিতভাবে আমাদের কাছে বা স্থানীয় পুলিশের কাছে অভিযোগ জানাতে পারেন। সেক্ষেত্রে যথাযথ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।"

with IANS inputs

লখিমপুর খেরির ঘটনা
Lakhimpur Kheri: জিজ্ঞাসাবাদের সময় গুরুত্বপূর্ণ প্রশ্ন এড়িয়েছেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর ছেলে আশিস মিশ্র

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

Related Stories

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in