Kerala: কৃষকদের আয় দ্বিগুণ করতে নয়া উদ্যোগ - 'VAAM' প্রকল্প আনতে চলেছে বাম সরকার

এই মিশনের মাধ্যেমে ন্যায্য মূল্যে কৃষি পণ্য সংগ্রহ করবে সরকার। শুধু তাই নয়, পণ্যের মান নিয়ন্ত্রণ, ব্র্যান্ডিং (Branding) এবং লেবেলিংয়ের (Lebeling) উপর বিশেষ গুরুত্ব দেবে সরকার।
পিনারাই বিজয়ন
পিনারাই বিজয়নগ্রাফিক্স - সুমিত্রা নন্দন

কৃষকদের আয় দ্বিগুণ করার লক্ষ্যে নয়া পদক্ষেপ নিচ্ছে বাম শাসিত রাজ্য কেরালা। কৃষি পণ্যের উৎপাদন বাড়ানোর পাশাপাশি কৃষকরা যাতে পণ্যের ন্যায্যমূল্য পান, সে জন্য নতুন ‘ভ্যালু অ্যাডেড এগ্রিকালচার মিশন (VAAM)’ চালু করতে চলেছে পিনারাই বিজায়ন সরকার। গত বুধবার, মন্ত্রিসভার বৈঠকে বিষয়টি অনুমোদন পেয়েছে।

কৃষকদের পাশে দাঁড়াতে বরাবরই এগিয়ে এসেছে কেরালার বাম গণতান্ত্রিক ফ্রন্ট (LDF)। ২০২২-২৩ বাজেটেও কৃষকদের সহায়ক মূল্য ও আয় বৃদ্ধির কথা জানিয়েছিল কেরালা সরকার। প্রতিশ্রুতি মতো সেই পদক্ষেপ নিতে চলেছে পিনারাই বিজয়ন সরকার। ভ্যালু অ্যাডেড এগ্রিকালচার মিশনের অধীনে একাধিক কর্মসূচী রেখেছে কেরালা সরকার।

প্রথমত, কৃষিপণ্যকে আন্তর্জাতিক বাজারে নিয়ে যাওয়ার জন্য বিপণন চেইন তৈরি করা।

দ্বিতীয়ত, কৃষিক্ষেত্রে যে প্রযুক্তির ব্যবহার করা হয়, তার আরও মানোন্নয়ন ঘটানো।

তৃতীয়ত, কৃষি জগতের মধ্যে কোথায় বিশেষ নজর দেওয়া প্রয়োজন, তা চিহ্নিত করা হবে এবং গুরুত্বপূর্ণ সমস্যাগুলি সমাধানের জন্য বিশেষ ওয়ার্কিং গ্রুপ গঠন করা হবে।

চতুর্থত, এই মিশনের মাধ্যমে ন্যায্য মূল্যে কৃষি পণ্য সংগ্রহ করবে সরকার। শুধু তাই নয়, পণ্যের মান নিয়ন্ত্রণ, ব্র্যান্ডিং (Branding) এবং লেবেলিংয়ের (Lebeling) উপর বিশেষ গুরুত্ব দেবে সরকার।

এছাড়া, কৃষকদের সাধারণ প্রশিক্ষণ এবং কোনও উদ্ভূত সমস্যা সমাধানের জন্য উদ্ভাবনী গবেষণার জন্য একটি প্ল্যাটফর্ম তৈরির সিদ্ধান্ত নিয়েছে কেরালার মন্ত্রিসভা।

কৃষির উপর প্রথম থেকেই বিশেষ জোর দিয়ে বিভিন্ন খাতে মনোনিবেশ করেছে বিজয়ন সরকার। যার ফলও মিলেছে হাতেনাতে। জানা যাচ্ছে, ২০২০-২১ সালে কৃষি ক্ষেত্রে ব্যাপক উন্নতি হয়েছে।

২০২১ সালের এক অর্থনৈতিক সমীক্ষা অনুসারে, রাজ্যের মোট GSVA– র মধ্যে কৃষি সহ সংশ্লিষ্ট ক্ষেত্রে অংশীদারিত্বের পরিমাণ বেড়েছে। ২০১৯-২০ সালে কৃষিক্ষেত্রে অংশীদারিত্বের পরিমাণ ছিল ৮.৩৮ শতাংশ। আর, ২০২০-২১ সালে তা বেড়ে হয়েছে ৯.৪৪ শতাংশ। এছাড়া, এই সময়ের মধ্যে শস্য খাতের অবদানও ৪.৩২ শতাংশ থেকে বেড়ে হয়েছে ৪.৯৬ শতাংশ।

তবে, কৃষিক্ষেত্রে আরও উন্নতি চায় কেরালা সরকার। সে জন্য বাজেটে VAAM ঘোষণা করেছিল কেরালা সরকার। এছাড়া, কোচিন ইন্টারন্যাশনাল এয়ারপোর্ট লিমিটেডের মতো একটি বিপণন সংস্থা গঠনের জন্য বাজেটে ১০০ কোটি টাকা বরাদ্দ করেছে বিজয়ন সরকার।

পিনারাই বিজয়ন
Kerala: খুচরো পণ্যে GST চাপাতে নারাজ কেরালার বাম সরকার, সিদ্ধান্ত বদলাতে মোদীকে চিঠি বিজয়নের

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

Related Stories

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in