কর্ণাটকে ক্ষমতায় ফিরেই ৪% ডিএ বাড়াল কংগ্রেস, কার্যকর ২০২৩ সালের ১ জানুয়ারি থেকে

মঙ্গলবার, পরিবহনমন্ত্রী ঘোষণা করেছেন, ‘এবার থেকে কর্ণাটকের সমস্ত সরকারি বাসে বিনামূল্যে যাতায়াত করতে পারবেন মহিলারা। এই ক্ষেত্রে কোনও শর্তাবলি নেই। মহিলারা রাজ্যব্যাপী বিনামূল্যে ভ্রমণ করতে পারবেন।’
কর্ণাটকে ক্ষমতায় ফিরেই ৪% ডিএ বাড়াল কংগ্রেস
কর্ণাটকে ক্ষমতায় ফিরেই ৪% ডিএ বাড়াল কংগ্রেসফাইল ছবি

কর্ণাটকের ক্ষমতায় ফেরার দুই সপ্তাহের মধ্যে ৪% মহার্ঘ ভাতা (DA) বৃদ্ধি করে সরকারি কর্মচারীদের জন্য খুশির খবর দিয়েছে নতুন কংগ্রেস সরকার।

মঙ্গলবার, মুখ্যমন্ত্রী সিদ্দারামাইয়া (Siddaramaiah) ঘোষণা করেন, সরকারী কর্মচারীদের মহার্ঘ ভাতা ৩১ শতাংশ থেকে বাড়িয়ে ৩৫ শতাংশ করা হয়েছে। এটি কার্যকর হবে ২০২৩ সালের ১ জানুয়ারি থেকে।

অর্থাৎ, মে মাসে ক্ষমতায় ফিরলেও, সরকারী কর্মীদের বিগত পাঁচ মাসের বর্ধিত মাইনে দেওয়ার কথা জানিয়েছে কংগ্রেস সরকার।

সরকারি অর্ডারে বলা হয়েছে, ‘২০১৮ সালের সংশোধিত বেতন স্কেল অনুযায়ী রাজ্য সরকারী কর্মচারীরা ৩১ শতাংশ মহার্ঘ ভাতা পেয়ে থাকেন। তবে, ২০২৩ সালের ১ জানুয়ারী থেকে কার্যকারী বেতন স্কেলে মহার্ঘ ভাতা ৩১ শতাংশ থেকে ৩৫ শতাংশে বৃদ্ধি করতে পেরে খুশি সরকার।’

তবে শুধু সরকারী কর্মচারীরা নন, বর্ধিত মহার্ঘ ভাতা পাবেন সরকারী সাহায্যপ্রাপ্ত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষক, শিক্ষাকর্মী বা পেনশনভোগীরা। সেই কথা বলা হয়েছে সরকারি অর্ডারে।

প্রসঙ্গত, নির্বাচনী প্রচারে একাধিক প্রতিশ্রুতি দিলেও সেই তালিকায় ডিএ বাড়ানোর বিষয়টি ছিল না। কিন্তু বিপুল ভোটে জয়ের পর সরকারি কর্মীদের জন্য সুখবর দিল কংগ্রেস সরকার।

শুধু তাই নয়, একই দিনে নির্বাচনী প্রতিশ্রুতি কার্যকরের পদক্ষেপ নিয়েছে কর্ণাটক সরকার। মঙ্গলবার, পরিবহনমন্ত্রী রামলিঙ্গ রেড্ডি (Ramalinga Reddy) ঘোষণা করেছেন, ‘এবার থেকে কর্ণাটকের সমস্ত সরকারি বাসে বিনামূল্যে যাতায়াত করতে পারবেন মহিলারা। এই ক্ষেত্রে কোনও শর্তাবলি নেই। আমরা আমাদের ইস্তেহারে একথা বলিনি যে, এই প্রকল্পের সুবিধা পাবেন এপিএল বা বিপিএল কার্ডধারীরা। মহিলারা রাজ্যব্যাপী বিনামূল্যে ভ্রমণ করতে পারবেন।’ প্রসঙ্গত, নির্বাচনী প্রচারেই ‘শক্তি’ নামে এই নতুন কর্মসূচির কথা ঘোষণা করেছিল কংগ্রেস।

এদিন পরিবহনমন্ত্রী বলেন, 'কর্ণাটক রোড ট্রান্সপোর্ট কর্পোরেশনের (KSRTC) চারটি বিভাগের ম্যানেজিং ডিরেক্টরদের সঙ্গে আমি কথা বলেছি। স্কিমের ভালো-মন্দ নিয়ে আলোচনা করেছি। আমি এই বিষয়ে মুখ্যমন্ত্রী সিদ্দারামাইয়াকে খরচ এবং অন্যান্য বিবরণ সহ সভার রিপোর্ট জমা দেব। ইতিমধ্যেই, মুখ্যমন্ত্রী সিদ্দারামাইয়া এনিয়ে পরিবহণের বিভাগের ম্যানেজিং ডিরেক্টরদের সঙ্গে আলোচনা করেছেন।’

এদিন রাজ্য পরিবহন কর্পোরেশনের একটি চিত্র তুলে ধরেন মন্ত্রী রামলিঙ্গ রেড্ডি। তিনি জানান, ‘KSRTC হল দেশের একটি স্বনামধন্য পরিবহন কর্পোরেশন। পরিবহণ মন্ত্রকের অধীনে চারটি পরিবহন কর্পোরেশনের মোট ২৪০ টি ইউনিট কাজ করছে। এই চারটি বিভাগ ৩৫০ টিরও বেশি পুরস্কার পেয়েছে। মন্ত্রকের অধীন মোট ২৩ হাজার ৯৭৮ টি সরকারী বাস রয়েছে। কর্মরত রয়েছেন ১ লক্ষ ৪ হাজারের অধিক কর্মী। প্রতিদিন রাষ্ট্রীয় মালিকানাধীন বাসে যাতায়াত করেন ৮২ লক্ষ ৫১ হাজার মানুষ। প্রতিদিন আয় হয় ২ লক্ষ ৩১ হাজার ৩৩২ টাকা।’

কর্ণাটকে ক্ষমতায় ফিরেই ৪% ডিএ বাড়াল কংগ্রেস
কেন্দ্রের অর্ডিন্যান্স বিতর্কে কেজরিওয়ালকে সমর্থন ইয়েচুরির, BJP বিরোধী ঐক্যে 'নয়া বার্তা'

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

Related Stories

No stories found.
logo
People's Reporter
www.peoplesreporter.in