Shiv Sena: "বিদ্রোহী বিধায়কদের গোষ্ঠীতে যোগদানের প্রস্তাব এসেছিল, আমি যাইনি" - সঞ্জয় রাউত

শিবসেনাকে দুর্বল করার জন্য এটাই বিজেপির কৌশল, কারণ তাঁরা মুম্বাইয়ে শিবসেনার ক্ষমতাকে হ্রাস করতে চায়। আর সেই কারণেই শিন্ধেকে মুখ্যমন্ত্রী করা হয়েছে। - সঞ্জয় রাউত
সঞ্জয় রাউত
সঞ্জয় রাউতগ্রাফিক্স - সুমিত্রা নন্দন

মহারাষ্ট্রের রাজনৈতিক পালাবদলের মধ্যেই এবার বিষ্ফোরক মন্তব্য করলেন শিবসেনা সাংসদ সঞ্জয় রাউত। শনিবার, সঞ্জয় রাউত জানান যে তাঁকেও গুয়াহাটিতে বিদ্রোহী শিবসেনা বিধায়কদের গোষ্ঠীতে যোগদানের প্রস্তাব দেওয়া হয়েছিল। কিন্তু তিনি সেই প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করেছেন। কারণ, তিনি বালাসাহেব ঠাকরের অনুসরণকারী।

ঠিক কী বলেছেন সঞ্জয় রাউত? সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে শিবসেনা সাংসদ বলেন, "যখন সত্য আপনার পক্ষে, তখন ভয় কীসের? আমি আত্মবিশ্বাসের সাথে এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেটের কাছে গিয়েছিলাম। কারণ, আমি জানি যে আমি ভুল করিনি। আমাকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য টানা ১০ ঘণ্টা ভিতরে থাকতে হলেও, তারপর আমি ফিরে এসেছি। আমি চাইলে গুয়াহাটিতেও যেতে পারতাম কিন্তু আমি বালাসাহেবের একজন সৈনিক।"

তিনি আরও বলেন, একনাথ শিন্ধে শিবসেনার মুখ্যমন্ত্রী নন। উদ্ধব ঠাকরে সেটা স্পষ্ট করে দিয়েছেন। শিবসেনাকে দুর্বল করার জন্য এটাই বিজেপির কৌশল, কারণ তাঁরা মুম্বাইয়ে শিবসেনার ক্ষমতাকে হ্রাস করতে চায়। আর সেই কারণেই শিন্ধেকে মুখ্যমন্ত্রী করা হয়েছে।

আর্থিক তছরূপের অভিযোগে শুক্রবার ইডি দপ্তরে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তলব করা হয়েছিল সঞ্জয় রাউতকে। সেখানে তিনি বয়ান দিতে হাজির হয়েছিলেন। প্রায় ১০ ঘণ্টা ধরে জিজ্ঞাসাবাদ করার পর তাঁকে ছেড়ে দেন ইডি আধিকারিকরা। সাংবাদিকদের রাউত জানিয়েছেন যে, ইডি আধিকারিকদের তিনি সব প্রশ্নের উত্তর দিয়েছেন। ফের যদি তাঁকে তলব করা হয় সেক্ষেত্রে আবার তিনি কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থার দপ্তরে হাজিরা দেবেন।

উল্লেখ্য, মহারাষ্ট্রে এক সপ্তাহব্যাপী রাজনৈতিক অস্থিরতার অবসান ঘটিয়ে, অবশেষে বৃহস্পতিবার, একনাথ শিন্ধে মহারাষ্ট্রের ২০ তম মুখ্যমন্ত্রী হিসাবে শপথ নিলেন। বিজেপির নেতা দেবেন্দ্র ফড়নবিশ উপ-মুখ্যমন্ত্রী হিসাবে শপথ নিয়েছেন।

সঞ্জয় রাউত
Maha Crisis: মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রী হচ্ছেন একনাথ শিন্ধে, আজই শপথ, ঘোষণা ফড়নবিশের

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

Related Stories

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in