রাহুল গান্ধীর জুতোর ফিতে বাঁধছেন প্রাক্তন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী? ভিডিও ঘিরে তরজায় কংগ্রেস-বিজেপি

ফেক পোষ্ট করার দায়ে অমিত মালব্যকে ক্ষমা চাওয়ার দাবি তুলেছেন প্রাক্তন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী জিতেন্দ্র সিং। পোষ্ট ডিলিট করে ক্ষমা না চাইলে, মালব্যের বিরুদ্ধে আইনি পদক্ষেপ নেওয়ার হুঁশিয়ারি দিয়েছেন তিনি।
বিতর্কিত সেই সেই জুতো (মাঝে)
বিতর্কিত সেই সেই জুতো (মাঝে)গ্রাফিক্স - নিজস্ব

ভারত জোড়ো যাত্রায় রাহুল গান্ধীর জুতোর ফিতে বেঁধে দিয়েছেন প্রাক্তন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী ভানওয়ার জিতেন্দ্র সিং। এই দাবি করে টুইটারে একটি ভিডিও পোষ্ট করেছেন বিজেপির আইটি সেলের প্রধান অমিত মালব্য।

তবে, এই পোষ্ট ঘিরে বিজেপি ও কংগ্রেসের মধ্যে শুরু হয়েছে জোর তরজা। টুইটারে ফেক পোষ্ট করার দায়ে অমিত মালব্যকে ক্ষমা চাওয়ার দাবি তুলেছেন প্রাক্তন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী জিতেন্দ্র সিং। শুধু তাই নয়, পোষ্ট ডিলিট করে ক্ষমা না চাইলে, মালব্যের বিরুদ্ধে আইনি পদক্ষেপ নেওয়ার হুঁশিয়ারি দিয়েছেন তিনি।

টুইটারে অমিত মালব্যের পোস্ট করা ভিডিওতে, রাস্তায় হাঁটার সময় রাহুল গান্ধীর সামনে মাথা নত করতে দেখা যায় ভানওয়ার জিতেন্দ্র সিংকে। এসময় রাহুল গান্ধী থামেন, তারপর ভানওয়ারকে জিতেন্দ্র সিংকে পিঠে চাপড়ে দিতে দেখা যায়।

আর, তা নিয়ে মালব্য টুইটারে লেখেন, 'প্রাক্তন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী ভানওয়ার জিতেন্দ্র সিং হাঁটু গেড়ে রাহুল গান্ধীর জুতার ফিতা বাঁধতে যান। নিজেকে সাহায্য করার পরিবর্তে অহংকারী ব্র্যাটকে তার পিঠে চাপ দিতে দেখা যায়...'

এরপরে, কটাক্ষ করে হিন্দিতে তিনি লেখেন, 'খাড়গে জি (কংগ্রেসের সভাপতি) কি এই অভ্যাসের কথা বলছিলেন? কংগ্রেসে প্রজন্মের অভাব নেই।'

মালব্যের এই টুইটের পরই ক্ষোভ উগরে দেন ভানওয়ার জিতেন্দ্র সিং। একহাত নেন বিজেপির আইটি সেলের প্রধানকে।

প্রতিক্রিয়ায় টুইটারে তিনি জানান, 'ক্ষমতাসীন বিজেপির জাতীয় তথ্য প্রযুক্তি বিভাগের প্রধান হিসাবে আপনার টুইটটি সম্পূর্ণ মিথ্যা এবং মানহানিকর। আসল সত্য হল যে আমার অনুরোধে, রাহুল জি থামার ইঙ্গিত করেন যাতে আমি নিজেই আমার জুতার ফিতা বাঁধতে পারি।' এরপরে, অমিত মালব্যকে তিনি দাবি করেন- 'টুইটটি ডিলিট করুন এবং রাহুল গান্ধীর কাছে ক্ষমা চান।' তা না হলে, আইনি পদক্ষেপ নেওয়ারও হুঁশিয়ারি দিয়েছেন প্রাক্তন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী জিতেন্দ্র।

এই একই ইস্যুতে বিজেপিকে আক্রমণ করেছেন কংগ্রেস নেত্রী সুপ্রিয়া শ্রীনাতেও। টুইটারে তিনি লেখেন- 'আরে ভুয়া খবর ব্যবসায়ী অমিত মালব্য, এখানে রাহুল গান্ধী জির জুতার একটি ছবি, যা ফিতাবিহীন!! আপনি আবারও মিথ্যা বলে ধরা পড়েছেন। কিন্তু, প্রতিদিন মিথ্যা বলার জন্য আপনি যেহেতু বিজেপি সভাপতি জেপি নাড্ডা ও প্রধানমন্ত্রী মোদীর অনুমোদিত ব্যক্তি - তাই আপনাদের তিনজনকেই রাহুল গান্ধী-র কাছে ক্ষমা চাওয়া উচিত।'

একইসঙ্গে, মালব্যকে 'মিথ্যা প্রচার বন্ধের' আর্জি জানান তিনি।

বিতর্কিত সেই সেই জুতো (মাঝে)
'ভারত জোড় যাত্রা'য় কোভিড বিধি! জনস্বাস্থ্য নিয়ে রাজনীতি করছে কেন্দ্র - দাবি কংগ্রেসের

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

Related Stories

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in