আজ লখনউতে কৃষকদের 'মহাপঞ্চায়েত' - দাবি না মানা পর্যন্ত বহাল থাকবে সমস্ত কর্মসূচি

ফসলের ন্যূনতম সহায়ক মূল্য, বিদ্যুৎ সংশোধনী বিল প্রত্যাহার করার পাশাপাশি কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী অজয় মিশ্রকে বরখাস্তের দাবিতেও সরব কৃষকরা।
আজ লখনউতে কৃষকদের 'মহাপঞ্চায়েত' - দাবি না মানা পর্যন্ত বহাল থাকবে সমস্ত কর্মসূচি
কৃষক মহাপঞ্চায়েতফাইল ছবি - গোবিন্দ সিং চাহালের ট্যুইটার হ্যান্ডেলের সৌজন্যে

গত শুক্রবার প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী ৩ কৃষি আইন প্রত্যহার করার ঘোষণা করেছেন। কৃষকদের ফিরে যেতে অনুরোধ করেছিলেন তিনি। তাতে অবশ্য চিড়ে ভেজেনি। কৃষকরা জানিয়ে দিয়েছেন সংসদে আনুষ্ঠানিকভাবে ৩ কৃষি আইন বাতিল না হওয়া পর্যন্ত তাঁরা আন্দোলনস্থল ছাড়বেন না। শুধু তাই নয়, ফসলের ন্যূনতম সহায়ক মূল্যের (MSP) নতুন আইন চাই। গত এক বছর ধরে কৃষকদের বিরুদ্ধে দায়ের হওয়া মামলা প্রত্যাহার করতে হবে।

রবিবার , সংযুক্ত কিষান মোর্চার নেতৃত্ব ৬ দফার দাবি জানিয়ে প্রধানমন্ত্রীকে চিঠি দেন। দাবি না মানা পর্যন্ত বহাল থাকবে সমস্ত কর্মসূচি, এমনটাই জানিয়েছেন তাঁরা। সেই কর্মসূচি অনুযায়ী আজ লখনউতে হবে কৃষকদের ‘মহাপঞ্চায়েত’। লখনউ –এর কাঁসিরাম পার্কের পাশে ইকো গার্ডেনে হবে এই সমাবেশ।

ফসলের ন্যূনতম সহায়ক মূল্য, বিদ্যুৎ সংশোধনী বিল প্রত্যাহার, ফসলের খড় পোড়ানো রোখার আইন থেকে কৃষকদের জরিমানা-শাস্তির ব্যবস্থা প্রত্যাহার করার পাশাপাশি কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী অজয় মিশ্রকে বরখাস্তের দাবিতেও সরব কৃষকরা। প্রসঙ্গত, লখিমপুর খেরির ঘটনায় অভিযুক্ত অজয় মিশ্রের ছেলে আশিস মিশ্র গ্রেফতার হয়েছেন। তবে কৃষকদের দাবি অজয় মিশ্রকে বরখাস্ত করতে হবে।

লখনউ মহাপঞ্চায়েতে বক্তব্য রাখবেন রাকেশ টিকায়েত, হান্নান মোল্লা, অশোক ধাওলে, দর্শন পাল সহ অন্যান্য সংযুক্ত কিষাণ মোর্চার নেতৃবৃন্দ। শুধুমাত্র লখিমপুর খেরি থেকেই ১০-১৫ হাজার কৃষক এই সভায় আসবেন বলে অনুমান করছেন কৃষক নেতারা। বারানসি, আজমগড়, বালিয়া, গোরক্ষপুর ও আশাপাশের অঞ্চল থেকে ইতিমধ্যেই দলে দলে কৃষকরা আসতে শুরু করেছেন।

উত্তরপ্রদেশে সারা ভারত কৃষক সভার রাজ্যা সম্পাদক মুকুট সিং বলেন – “ বিগত ২-৩ ধরে প্রধানমন্ত্রী লখনউতে আছেন। অথচ লখিমপুর খেরির ঘটনা নিয়ে একতা শব্দ ব্যয় করেননি। অভিযুক্ত অজয় মিশ্র বুক ফুলিয়ে প্রধানমন্ত্রী আশেপাশে ঘুরে বেড়াচ্ছে।” তিনি বলেন – “ এখনও কাগজে কলমে সমাবেশের অনুমতি দেয়নি পুলিশ। অন্যদিকে বেশ কয়েকটি জেলায় কৃষক সভার নেতাদের গৃহবন্দি করেছে পুলিশ। তাঁরা যাতে সমাবেশে না আসতে পারেন সেইজন্যই এসব করছে পুলিশ।”

কৃষক মহাপঞ্চায়েত
Farm Laws Repealed: তিন কৃষি আইন বাতিলের দাবীতে ঐতিহাসিক কৃষক আন্দোলন - এক নজরে

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

Related Stories

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in