Elgar Parishad Case: আনন্দ তেলতুম্বদের জামিনের বিরোধিতায় NIA-র আবেদন শুনতে রাজি সুপ্রিম কোর্ট

সলিসিটর জেনারেল তুষার মেহতা ভারতের প্রধান বিচারপতি (সিজেআই) ডিওয়াই চন্দ্রচূড়ের নেতৃত্বাধীন বেঞ্চের সামনে বিষয়টি উল্লেখ করেছেন। শীর্ষ আদালত শুক্রবার এনআইএ-এর আবেদন শুনতে রাজি হয়েছে।
আনন্দ তেলতুম্বদে
আনন্দ তেলতুম্বদেফাইল ছবি, কৈরালী নিউজের সৌজন্যে

সমাজকর্মী আনন্দ তেলতুম্বদেকে দেওয়া জামিনের বিরোধিতা করে শীর্ষ আদালতের দ্বারস্থ হল জাতীয় তদন্ত সংস্থা (NIA)। বোম্বে হাইকোর্ট সম্প্রতি এক রায়ে ভীমা কোরেগাঁও মামলার অভিযুক্ত সমাজকর্মী আনন্দ তেলতুম্বদের জামিন মঞ্জুর করে।

সলিসিটর জেনারেল তুষার মেহতা ভারতের প্রধান বিচারপতি (সিজেআই) ডিওয়াই চন্দ্রচূড়ের নেতৃত্বাধীন বেঞ্চের সামনে বিষয়টি উল্লেখ করেছেন। শীর্ষ আদালত শুক্রবার এনআইএ-এর আবেদন শুনতে রাজি হয়েছে এবং মেহতাকে একটি কপি উকিল অপর্ণা ভাটের কাছে দিতে বলেছেন। যিনি তেলতুম্বডের পক্ষে আদালতে উপস্থিত ছিলেন।

গত সপ্তাহে, হাইকোর্ট দলিত পণ্ডিত এবং প্রাক্তন আইআইটি অধ্যাপক তেলতুম্বডেকে শর্তসাপেক্ষে জামিন মঞ্জুর করে।

বিচারপতি এ এস গড়করি এবং বিচারপতি মিলিন্দ যাদবের একটি ডিভিশন বেঞ্চ ২০২১ সালে দায়ের করা তেলতুম্বডের জামিনের আবেদন মঞ্জুর করে। গত বছরের জুলাইয়ে তাঁর জামিনের আবেদন খারিজ করে দেওয়া বিশেষ এনআইএ আদালতের আদেশকে চ্যালেঞ্জ করে যে আবেদন করা হয়।

হাইকোর্ট এক সপ্তাহের জন্য জামিনের আদেশ স্থগিত করে সুপ্রিম কোর্টে এনআইএ আপিলের অনুমতি দেয়।

তেলতুম্বদে (২৭), বঞ্চিত বহুজন আঘাদির সভাপতি প্রকাশ আম্বেদকরের শ্যালক। যিনি সুপ্রিম কোর্টের আদেশের পরে ২০২০ সালের এপ্রিলে NIA-এর কাছে আত্মসমর্পণ করেছিলেন।

১ লক্ষ টাকার বন্ড এবং দুই জামিনদারে শর্তে তাঁর জামিন মঞ্জুর করে ডিভিশন বেঞ্চ। উল্লেখ করা হয় যে প্রাথমিকভাবে বেআইনি কার্যকলাপের অপরাধের জন্য UAPA ধারাগুলি, সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড এবং ষড়যন্ত্র তৈরি করা হয়নি, যদিও একটি সন্ত্রাসী গোষ্ঠীর সদস্যপদ এবং সমর্থন করা হয়েছিল।

এনআইএ ৩১ ডিসেম্বর, ২০১৭-এর এলগার পরিষদের আহ্বায়ক হিসাবে তেলতুম্বদেকে অভিযুক্ত করেছিল। অভিযোগ, সেখানে প্ররোচণামূলক বক্তৃতা দেওয়া হয়েছিল এবং যার ফলে ১ জানুয়ারী, ২০১৮-তে পুনের ভীমা-কোরেগাঁও-তে জাতিগত হিংসার ঘটনা ঘটে এবং একজনের মৃত্যু হয়।

এই দুই ঘটনা দেশব্যাপী আলোড়ন সৃষ্টি করে এবং পরে পুনে পুলিশের তদন্ত অনুসরণ করে এনআইএ। এরপর তদন্তের পরিধি প্রসারিত করে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে হত্যা এবং কেন্দ্রীয় সরকারকে উৎখাত করার একটি কথিত ষড়যন্ত্রের অভিযোগ আনা হয়।

এনআইএ তেলতুম্বডেকে নিষিদ্ধ সিপিআই (মাওবাদী) এর সক্রিয় সদস্য এবং "এর এজেন্ডাকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার" সাথে গভীরভাবে জড়িত থাকার জন্য অভিযুক্ত করেছিল।

জামিনের আবেদনের দৃঢ় বিরোধিতা করে, এনআইএ-র বিশেষ পাবলিক প্রসিকিউটর সন্দেশ পাটিল তেলতুম্বদেকে তার ভাই, প্রয়াত মিলিন্দ তেলতুম্বদেকে আন্দোলনে অংশ নিতে অনুপ্রাণিত করার জন্য অভিযুক্ত করেছিলেন এবং অভিযোগ ছিল তিনি তাঁর সাথে আন্তর্জাতিক সম্মেলন থেকে নিষিদ্ধ সাহিত্য শেয়ার করেছিলেন।

জানা গেছে, মিলিন্দ তেলতুম্বদে মহারাষ্ট্র-মধ্যপ্রদেশ-ছত্তিশগড় অঞ্চলের সিপিআই (মাওবাদী) এর একজন সেক্রেটারি। তাঁর বিরুদ্ধে ৫০ লক্ষ টাকা পুরস্কার ঘোষণা করা হয়েছিল। তিনি মহারাষ্ট্রের গড়চিরোলিতে নিরাপত্তা বাহিনীর সাথে সংঘর্ষে আরও ২৫ জন মাওবাদীর সঙ্গে গুলিবিদ্ধ হয়ে মারা যান।

নিজের আইনজীবী মিহির দেশাই এবং দেবযানী কুলকার্নির মাধ্যমে, আনন্দ তেলতুম্বডে আদালতে জানিয়েছিলেন যে তিনি মাওবাদী মতাদর্শের একজন কট্টর সমালোচক ছিলেন এবং প্রায় ২৫ বছর ধরে তাঁর (মৃত) ভাই মিলিন্দের সাথে সমস্ত যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন করেছিলেন।

আনন্দ তেলতুম্বদে
Elgar Parishad Case: বোম্বে হাইকোর্টে 'জামিন' পেলেন সমাজকর্মী আনন্দ তেলতুম্বে!

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

Related Stories

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in