Congress and PK: কংগ্রেসে পিকে-র অন্তর্ভুক্তি - আজই দলীয় নেতৃত্বের সঙ্গে বৈঠকে বসতে পারেন সোনিয়া

কংগ্রেসের অন্তর্বর্তী প্রধান সোনিয়া গান্ধী সোমবার দলে রাজনৈতিক কৌশলবিদ প্রশান্ত কিশোরের অন্তর্ভুক্তির বিষয়ে আলোচনার জন্য সিনিয়র নেতাদের সাথে পরামর্শ করতে পারেন৷
Congress and PK: কংগ্রেসে পিকে-র অন্তর্ভুক্তি - আজই দলীয় নেতৃত্বের সঙ্গে বৈঠকে বসতে পারেন সোনিয়া
প্রশান্ত কিশোর ও সোনিয়া গান্ধীফাইল ছবি

কংগ্রেসের অন্তর্বর্তী প্রধান সোনিয়া গান্ধী সোমবার দলে রাজনৈতিক কৌশলবিদ প্রশান্ত কিশোরের অন্তর্ভুক্তির বিষয়ে আলোচনার জন্য সিনিয়র নেতাদের সাথে পরামর্শ করতে পারেন৷ গত সপ্তাহেই বিষয়টি নিয়ে আলোচনার জন্য গঠিত কমিটি তাদের প্রতিবেদন জমা দিয়েছে।

কংগ্রেস চায় প্রশান্ত কিশোর অন্য দলগুলোর সাথে করা তার পূর্বের প্রতিশ্রুতিগুলো শেষ করুক এবং শুধুমাত্র একজন কংগ্রেসকর্মী হিসেবে কাজ করুক, পরামর্শদাতা হিসেবে নয়। এই বিষয়ে রাহুল গান্ধীর সঙ্গে আলোচনার পর চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেওয়া হতে পারে।

যদিও প্রশান্ত কিশোরের দলে অন্তর্ভুক্তির প্রশ্নে পশ্চিমবঙ্গ, তেলেঙ্গানা এবং অন্ধ্র প্রদেশের সংগঠন হাইকম্যান্ডের বিরুদ্ধে মত পোষণ করেছে। এইসব প্রদেশের কংগ্রেস নেতৃত্ব প্রশান্ত কিশোরের সঙ্গে অন্য কোনও আঞ্চলিক দলের সম্পর্ক চায়না।

কংগ্রেসের যে সমস্ত নেতৃত্ব এই বিষয়ে তাঁদের প্রতিবেদন জমা দিয়েছেন, তারা স্বীকার করেছেন যে রাজনৈতিক কৌশলবিদের দলে যোগদানে কোনও ক্ষতি নেই। তবে আঞ্চলিক শক্তির বিরুদ্ধে দল যেখানে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবে সেখানে কোনও সংঘাত হওয়া উচিত নয়।

উল্লেখ্য, রবিবারই তেলেঙ্গানা রাষ্ট্র সমিতি (টিআরএস) নির্বাচনী কৌশলবিদ কিশোর দ্বারা প্রতিষ্ঠিত ইন্ডিয়ান পলিটিক্যাল অ্যাকশন কমিটির (আইপিএসি) সাথে একটি চুক্তি স্বাক্ষর করেছে।

সাংবাদিকদের একটি নির্বাচিত দলের সাথে একটি আলাপচারিতার সময়, টিআরএসের কার্যকরী সভাপতি কে টি রামা রাও নিশ্চিত করেছেন যে, তাদের দল আই-প্যাকের সাথে কাজ করছে। যদিও তাঁর দাবি, প্রশান্ত কিশোরের সাথে এর কোনও সম্পর্ক নেই। "পিকে আইপ্যাকের প্রতিষ্ঠাতা, কিন্তু আমি জানি না বর্তমানে কে এটি চালাচ্ছে। পিকে আমাদের আই-প্যাকের সাথে পরিচয় করিয়ে দিয়েছে এবং এই সংস্থা আমাদের সাথে কাজ করছে।"

তিনি বলেন, পিকে নিজেকে I-PAC থেকে বিচ্ছিন্ন করেছেন, যদিও এই সংস্থা সারা দেশে একাধিক দলের সাথে কাজ করছে। "আমাদের সাথে শুধু পিকে-র আলাপ-আলোচনা হয়েছিল এমনটা নয়। আমরা আরও অনেকের সাথে একাধিক বার আলোচনা করেছি। আমরা সুনীল এবং অন্যদের সাথেও কথা বলেছি।"

টিআরএস নেতা অবশ্য জানিয়েছেন, এই চুক্তি শুধুমাত্র ২০২৩ বিধানসভা নির্বাচন বা ২০২৪ লোকসভা নির্বাচনের জন্য এবং সেইসাথে তাঁরা পিকে-র সাথে আলোচনার ধরণ সম্পর্কে এড়িয়ে গেছেন।

- with Agency Inputs

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

Related Stories

No stories found.