Kerala Poll 21: মতামত না নিয়েই বিজেপির প্রার্থী তালিকায় নাম, ক্ষুব্ধ আদিবাসী নেতা

পানীয়া আদিবাসী সম্প্রদায়ের (Paniya Tribal Community) সদস্য মনিকান্দন সি জানিয়েছেন, বিজেপি তাঁকে প্রার্থী ঘোষণা করেছিল। কিন্তু তিনি বিজেপিকে জানিয়েছেন তিনি নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন না।
Kerala Poll 21: মতামত না নিয়েই বিজেপির প্রার্থী তালিকায় নাম, ক্ষুব্ধ আদিবাসী নেতা
সি মনিকান্দনফাইল ছবি - সংগৃহীত

১৬ মার্চ, তিরুবন্তপুরম- বিজেপির নীতির বিরুদ্ধে তিনি। তাই কোনোভাবেই বিজেপির হয়ে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন না। তাই কেরলে আসন্ন বিধানসভা নির্বাচনে বিজেপির প্রার্থী হিসেবে তাঁর নাম ঘোষণা হওয়ার পরই তা প্রত‍্যাখানের দাবি তুলেছেন মনিকান্দন সি। নিজের সোশ্যাল মিডিয়ায় আম্বেদকরের একটি উক্তি পোস্ট করে বিজেপিকে তাৎপর্যপূর্ণ বার্তাও দিয়েছেন তিনি। ওয়াইনাড জেলায় তফশিল উপজাতিদের জন্য সংরক্ষিত আসন মানান্থাবেদী থেকে লড়াই করার জন্য মনিকান্দন সি-র নাম ঘোষণা করেছিল বিজেপি। একথা জানতে পেরেই প্রার্থী তালিকা থেকে নিজের নাম বাতিলের দাবি তুলেছেন তিনি।

সংবাদমাধ্যমের সামনে পানীয়া আদিবাসী সম্প্রদায়ের (Paniya Tribal Community) সদস্য মনিকান্দন সি জানিয়েছেন, বিজেপি তাঁকে প্রার্থী ঘোষণা করেছিল। কিন্তু তিনি বিজেপিকে জানিয়েছেন তিনি নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন না। বিজেপির প্রার্থী হিসেবে প্রতিদ্বন্দ্বিতা না করার কথা ঘোষণার পরই নিজের ফেসবুকে ডঃ বি আর আম্বেদকরের একটি ছবি দিয়ে তাঁর একটি উক্তি তুলে ধরেছেন মনিকান্দন। যেখানে তিনি লিখেছেন, "এমনকি আমাকে যদি রাস্তার ওপর উল্টো করে ঝুলিয়েও দেওয়া হয়, তাহলেও আমি আমার নিজের লোকেদের সাথে বিশ্বাসঘাতকতা করবো না।" মুহূর্তের মধ্যে সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়ে যায় এই পোস্টটি।

সি মনিকান্দন
কেরালা বিধানসভা নির্বাচনে অ্যাডভানটেজ এলডিএফ

সংবাদমাধ্যমে এই বিষয়ে মনিকান্দন জানিয়েছেন, "বিজেপির বেশ কয়েকজন শীর্ষ নেতৃত্ব ফোন করে আমাকে জিজ্ঞাসা করেছিলেন আমি নির্বাচনে অংশ নিতে আগ্রহী কিনা। আমি পরিষ্কারভাবে আমার অবস্থান জানিয়েছিলাম যে আমি নির্বাচনে লড়ব না। কিন্তু তা সত্ত্বেও প্রার্থী হিসেবে আমার নাম ঘোষণা করায় আমি অবাক হয়ে গিয়েছিলাম। যাইহোক আমি জানিয়েছি আমি নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করব না। বিজেপির একাধিক নীতি আছে যেগুলো আদিবাসী সম্প্রদায়ের বিরুদ্ধে, সেগুলোর বিরুদ্ধে আমি।"

বিজনেস অ্যাডমিনিস্ট্রেশনে স্নাতক মনিকান্দন বর্তমানে কেরালার ভেটেরিনারি অ্যান্ড অ্যানিম্যাল সায়েন্সেস বিশ্ববিদ্যালয়ে সহকারী প্রফেসর হিসাবে কাজ করছেন। জেলার আদিবাসী সম্প্রদায়ের বিষয়গুলিতে সক্রিয়ভাবে জড়িত তিনি।

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in