৫০০-র বেশি মানুষ নিয়ে গুজরাটে ভেঙে পড়লো সেতু, মৃত ৪০, নিখোঁজ বহু

১৪৩ বছরের এই ব্রিজটি ৫ দিন আগেই সংস্কার করা হয়েছে। পূর্ত দপ্তর ফিট সার্টিফিকেট দেওয়ার পর ব্রিজটি জনগণের জন্য খুলে দেয় প্রশাসন।
ভেঙে পড়লো ক্যাবল ব্রিজ বা ঝুলন্ত সেতু
ভেঙে পড়লো ক্যাবল ব্রিজ বা ঝুলন্ত সেতুছবি সংগৃহীত

গুজরাটে মোরবিতে মাচ্চু নদীর উপর ভেঙে পড়লো একটি ক্যাবল ব্রিজ বা ঝুলন্ত সেতু। এই ঘটনায় প্রায় ৫০০ মানুষ নদীতে পড়ে যান। প্রায় ৪০ জনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে এখনও পর্যন্ত। আহত হয়েছেন বহু মানুষ। এঁদের অনেককেই উদ্ধার করে স্থানীয় হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। এখনও শতাধিক মানুষ জলের মধ্যে রয়েছে বলে জানা গেছে। মৃতের সংখ্যা আরও বাড়বে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে।

পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, ছট পুজোর উৎসব অনুষ্ঠিত হচ্ছিল নদীতে। সেই সময় এই দুর্ঘটনাটি ঘটে। ১৪৩ বছরের এই ব্রিজটি ৫ দিন আগেই সংস্কার করা হয়েছে। পূর্ত দপ্তর ফিট সার্টিফিকেট দেওয়ার পর ব্রিজটি জনগণের জন্য খুলে দেয় প্রশাসন। গুজরাট সরকারের দাবী পুলিশ বারবার বারণ করা স্বত্বেও অনেক বেশী মানুষ ব্রীজে উঠে পড়েছিলেন। ভার রাখতে না পেরে ভেঙে পড়ে ব্রীজ।

প্রথমে স্থানীয় বাসিন্দারা উদ্ধার কার শুরু করলেও, পরে বিপর্যয় মোকাবিলা বাহিনী, পুলিশ এবং সেনা গিয়ে উদ্ধার কাজ শুরু করে। আপৎকালীন তৎপরতায় এখনও উদ্ধার কাজ চলছে। মৃত ও নিখোঁজের সংখ্যা সরকারী ভাবে প্রকাশ না করায় ক্ষোভ গুজরাট সরকারের ওপর প্রকাশ করছেন স্থানীয়রা।

 জলের মধ্যে পড়ে যাওয়ার পর প্রাণ বাঁচাতে শিশু ও নারীদের আর্তনাদের ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হতেই মোরবি জেলার ইন্টারনেট পরিষেবা বন্ধ করে দেয় গুজরাট সরকার। এই ঘটনায় শোক প্রকাশ করেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি, কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ, গুজরাটের মুখ্যমন্ত্রী ভূপেন্দ্র প্যাটেল সহ অন্যান্যরা।

এই ঘটনায় নিহতদের পরিবারকে ২ লক্ষ টাকা এবং আহতদের ৫০,০০০ টাকা করে আর্থিক সাহায্য দেওয়ার ঘোষণা করেছেন প্রধানমন্ত্রী।

ভেঙে পড়লো ক্যাবল ব্রিজ বা ঝুলন্ত সেতু
"কঙ্গনাকে বিজেপিতে স্বাগত কিন্তু..." - কী বললেন জে পি নাড্ডা?

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

Related Stories

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in