Bihar: অমিত শাহের দুই জনসভার পালটা সীমাঞ্চলে জেডিইউ আরজেডি-র চার জনসমাবেশ

জেডি(ইউ)-এর জাতীয় সভাপতি লালন সিং দাবি করেছেন মহাজোটবন্ধনের পক্ষ থেকে এই অঞ্চলের সম্প্রদায়ের মধ্যে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি এবং ভ্রাতৃত্ব বজায় রাখার লক্ষ্যে চারটি জেলায় চারটি জনসভা অনুষ্ঠিত হবে।
নীতিশ কুমার, তেজস্বী যাদব এবং অমিত শাহ
নীতিশ কুমার, তেজস্বী যাদব এবং অমিত শাহফাইল ছবি, গ্রাফিক্স - সুমিত্রা নন্দন

কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের সমাবেশকে মোকাবিলা করতে, মহাজোটবন্ধন নেতৃত্ব বিহারের সীমাঞ্চল অঞ্চলে চারটি সমাবেশের আয়োজন করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

আগামী ২৩ সেপ্টেম্বর অমিত শাহর বিহারে পৌঁছানোর কথা রয়েছে এবং মুসলিম অধ্যুষিত পূর্ণিয়া এবং কিষাণগঞ্জ জেলায় তিনি দুটি সমাবেশ রয়েছে।

অমিত শাহর এই সমাবেশের পালটা হিসেবে, জেডি(ইউ) এবং আরজেডি থিঙ্ক ট্যাঙ্ক ২০১৫ সালের বিধানসভা নির্বাচনের মতো গেরুয়া শিবিরের প্রতিটি পদক্ষেপকে প্রতিহত করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

জেডি(ইউ)-এর জাতীয় সভাপতি লালন সিং দাবি করেছেন মহাজোটবন্ধনের পক্ষ থেকে এই অঞ্চলের সম্প্রদায়ের মধ্যে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি এবং ভ্রাতৃত্ব বজায় রাখার লক্ষ্যে চারটি জেলায় চারটি জনসভা অনুষ্ঠিত হবে।

যদিও লালন সিং এখনও পর্যন্ত সমাবেশের স্থান ঘোষণা করেননি। তবে অনুমান করা হচ্ছে অমিত শাহ এবং বিজেপিকে কড়া জবাব দিতে কিষাণগঞ্জ, পূর্ণিয়া, আরারিয়া এবং কাটিহার জেলায় এই চারটি সমাবেশ অনুষ্ঠিত হবে।

লালন সিং জানিয়েছেন, RJD-এর শীর্ষ নেতৃত্বও এই সমাবেশে সম্মত হয়েছেন। সমাবেশের প্রকৃত তারিখ ও স্থান এখনো ঠিক হয়নি।

সীমাঞ্চল ছাড়াও, জেডি(ইউ) প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে চ্যালেঞ্জ জানাতে এই বছরের নভেম্বর বা ডিসেম্বরে বারাণসীতে একটি বিশাল সমাবেশের আয়োজন করতে পারে। নীতীশ কুমার ২০২৪ সালের লোকসভা নির্বাচনে ফুলপুর, আম্বেদকর নগর বা জৌনপুর থেকে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে পারেন বলেও রাজনৈতিক মহলে গুঞ্জন শুরু হয়েছে। এই লোকসভা কেন্দ্রগুলিতে কুর্মি এবং মুসলিম ভোটারদের একটি ভাল সংখ্যা রয়েছে। জেডি(ইউ) উত্তরপ্রদেশে সমাজবাদী পার্টির সঙ্গেও জোট করার বিষয়ে কথাবার্তা চালাচ্ছে।

নীতিশ কুমার, তেজস্বী যাদব এবং অমিত শাহ
Bihar: বিহারে জোট ভাঙার পর বিজেপির যাত্রাপথ আরও কঠিন হবে - মত রাজনৈতিক মহলের

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

Related Stories

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in