Bihar: দ্বন্দ্ব ক্রমশ প্রকট, সম্পত্তির হিসাব চেয়ে আর সি পি সিং-কে চিঠি JDU-র

একদা নীতিশ কুমারের আস্থাভাজন ছিলেন আর সি পি সিং। কিন্তু, ২০১৯-এ বিজেপির জোট সরকার ক্ষমতায় আসার পরেই বিবাদ শুরু হয়। নীতিশ কুমার এবং দলীয় নির্দেশ অমান্য করে মোদীর মন্ত্রীসভার সদস্য হন তিনি।
নীতিশ কুমার ও আর সি পি সিং
নীতিশ কুমার ও আর সি পি সিংগ্রাফিক্স - সুমিত্রা নন্দন

দলের অন্দরে দ্বন্দ্বের জেরে আগেই পদ খুইয়েছেন জনতা দল ইউনাইটেড (JDU)-এর প্রাক্তন জাতীয় সভাপতি আর সি পি সিং (R C P Shing)। তৃতীয়বার রাজ্যসভার টিকিট না পেয়ে কেন্দ্রীয় মন্ত্রীত্ব হারিয়েছেন তিনি। এবার তাঁর বিরুদ্ধেই মাঠে নেমেছে দলের শীর্ষ নেতৃত্ব।

গত ৯ বছরে দলের প্রাক্তন জাতীয় সভাপতির সম্পত্তির পরিমাণ কত দাঁড়িয়েছে, তা জানানোর নির্দেশ দেওয়া হয়েছে দলের তরফে। সম্প্রতি, নিজেকে রাজ্যের ভবিষ্যৎ মুখ্যমন্ত্রী হিসাবে দাবি করার পর, এই পদক্ষেপ নিয়েছে জনতা দল ইউনাইটেড।

আর সি পি সিং-কে লেখা চিঠিতে দল দাবি করেছে, তিনি যে সম্পত্তি অধিগ্রহণ করেছেন, তাতে বেশ কিছু অনিয়ম লক্ষ্য করা গেছে। তবে, চিঠির বিষয়ে সংবাদ মাধ্যমে আর সি পি সিং বলেন, ‘এই সম্পত্তিগুলি আমার স্ত্রী ও কন্যারা কিনেছে। ২০১০ সাল থেকে তাঁরা আয়করও দিয়ে আসছে।’

একদা নীতিশ কুমারের আস্থাভাজন ছিলেন আর সি পি সিং। কিন্তু, ২০১৯-এ বিজেপির জোট সরকার ক্ষমতায় আসার পরেই বিবাদ শুরু হয়। নীতিশ কুমার এবং দলীয় নির্দেশ অমান্য করে মোদীর মন্ত্রীসভার সদস্য হন তিনি। তারপর থেকেই নীতিশ কুমারের সঙ্গে তাঁর দূরত্ব বাড়তে শুরু করেছে।

দলে কোণঠাসা হয়ে এবার JD(U)-ছেড়ে BJP-তে যোগ দিতে পারেন বলে মনে করছেন রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা। সম্পতি, বিজেপির মুখপাত্র সন্তোষ পাঠক জানান, JD(U)-তে আর সি পি সিংয়ের পরিস্থিতি সঙ্কটজনক। তবে এখন যদি তিনি বিজেপিতে যোগ দেন, তাহলে দুই দলের মধ্যে ফাটল আরও বাড়বে। তবে, আগামী তিন বা চারমাসে তিনি যোগ দিতে পারেন।‘

নীতিশ কুমার ও আর সি পি সিং
Sitaram Yechury: ভোটার আধার লিঙ্ক - লঙ্ঘিত হতে পারে সাধারণের গোপনীয়তা রক্ষার মৌলিক অধিকার - ইয়েচুরি

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

Related Stories

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in