Bank Strike: UFBU-র ডাকে একাধিক দাবিতে ২৭ জুন দেশজুড়ে ব্যাঙ্ক ধর্মঘট

পাঁচ দিনের সপ্তাহ, পুরানো পেনশন স্কিম (OPS) পুনরুদ্ধার এবং পেনশনের পরিমাণ আপডেট সহ একাধিক দাবিতে ব্যাঙ্ক কর্মচারী ইউনিয়নগুলির পক্ষ থেকে আগামী ২৭ শে জুন দেশব্যাপী ব্যাঙ্ক ধর্মঘটের ডাক দিলো UFBU।
Bank Strike: UFBU-র ডাকে একাধিক দাবিতে ২৭ জুন দেশজুড়ে ব্যাঙ্ক ধর্মঘট
ছবি প্রতীকী ফাইল ছবি এআইবিইএ ফেসবুক পেজের সৌজন্যে

পাঁচ দিনের সপ্তাহ, পুরানো পেনশন স্কিম (OPS) পুনরুদ্ধার এবং পেনশনের পরিমাণ আপডেট সহ একাধিক দাবিতে ব্যাঙ্ক কর্মচারী ইউনিয়নগুলির পক্ষ থেকে আগামী ২৭ শে জুন দেশব্যাপী ব্যাঙ্ক ধর্মঘটের ডাক দেওয়া হয়েছে। ইউনাইটেড ফোরাম অফ ব্যাঙ্ক ইউনিয়নস (UFBU), ব্যাঙ্ক ইউনিয়নগুলির একটি নয়-সদস্যের সংস্থা, বৃহস্পতিবার সমস্ত ইউনিয়নকে নিয়ে মুম্বাইতে এক বৈঠকের পর এই ধর্মঘটের ডাক দেয়।

ইউনিয়ন নেতারা সংবাদমাধ্যমে জানিয়েছেন, এই ধর্মঘট মূলত ইন্ডিয়ান ব্যাঙ্কস অ্যাসোসিয়েশনের (আইবিএ) বিরুদ্ধে। যারা রাষ্ট্রীয় মালিকানাধীন ব্যাঙ্ক এবং আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলির পরিচালনার একটি প্রতিনিধি সংস্থা। ইতিমধ্যেই জাদের কাছে একাধিক দাবি পেশ করা হলেও এখনও পর্যন্ত কোনো সুরাহা হয়নি। অবিলম্বে এই সমস্ত সমস্যার সুরাহা না হলে ২৭ জুনের ধর্মঘটে প্রায় ১০ লক্ষ কর্মচারী অংশ নেবেন বলে আশা করা হচ্ছে।

গত ৯ জুন প্রকাশিত এক বিবৃতিতে ইউএফবিইউ জানিয়েছে, তাদের মূল দাবির মধ্যে আছে কাজের দিন কমিয়ে পাঁচ দিন করা এবং পেনশন সংক্রান্ত সমস্যা। ওই বিবৃতিতে ইউএফবিইউ আহ্বায়ক সঞ্জীব কে বন্দলিশ জানিয়েছেন, “এই দুই ইস্যু বহু বছর ধরে ব্যাংক ইউনিয়নগুলির উত্থাপন করে আসছে। ন্যাশনাল পেনশন স্কিম (এনপিএস) বাতিলের পাশাপাশি ইউনিয়নগুলোর পক্ষ থেকে সমস্ত শনি ও রবিবার ছুটির দিন হিসেবে ঘোষণার দাবি জানানো হয়েছে। এছাড়াও অন্যান্য অমীমাংসিত বিষয় আছে।”

ব্যাঙ্ক কর্মীদের আন্দোলনের রূপরেখা
ব্যাঙ্ক কর্মীদের আন্দোলনের রূপরেখা ছবি এআইবিইএ ফেসবুক পেজের সৌজন্যে

বন্দলিশের মতে, এই সমস্যাগুলো এর আগেও একাধিকবার ইউনিয়নের সঙ্গে বেতন সংক্রান্ত আলোচনার সময় একাধিকবার উত্থাপিত হয়েছে, কিন্তু কোন লাভ হয়নি। তিনি আরও বলেন, “এর আগেও আইবিএ অনেকবার সমাধানের আশ্বাস দিলেও কোনো কাজ হয়নি।”

বর্তমানে, প্রতি মাসের দ্বিতীয় এবং চতুর্থ শনিবার সমস্ত ব্যাঙ্ক কর্মচারীদের ছুটি থাকে। এর আগে বেতন সংক্রান্ত বিষয়ে দশম দ্বিপক্ষীয় আলোচনার সময় সপ্তাহে পাঁচ দিন কাজের বিষয়ে ইউনিয়নের পক্ষ থেকে দাবি পেশ করা হয়েছিলো। তখন মীমাংসা সূত্র না বেরোনোয় একাদশ দ্বিপক্ষীয় আলোচনার সময় ফের সেই দাবি তোলা হয়। ওই সময় আইবিএ জানায় এই বিষয়ে পরে আলোচনা হবে। যদিও তারপর থেকে এখনও পর্যন্ত এই বিষয়ে কোনো আলোচনা হয়নি। এছাড়াও এপ্রিল ২০১০-এর পরে যে সমস্ত কর্মচারী কাজে যোগ দিয়েছেন তাদের OPS-এর অধীনে সরাসরি সুবিধাগুলি বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে৷ আগামী ধর্মঘটে এই বিষয়েও দাবি জানানো হয়েছে।

ব্যাঙ্কিং শিল্পে বেতন সংক্রান্ত আলোচনা অন্যান্য পাবলিক সেক্টর কোম্পানীর মত হয়না। ব্যাঙ্ক ইউনিয়ন এবং IBA-এর মধ্যে এক চুক্তির ভিত্তিতে তা নির্ধারিত হয় এবং প্রতি পাঁচ বছর পর বেতন কাঠামো সংশোধন করা হয়। সর্বশেষ একাদশ দ্বিপক্ষীয় বেতন চুক্তিটি হয়েছে ২০২০ সালের জুলাই মাসে।

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

Related Stories

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in