দেউলিয়া হতে পারে Twitter! নয়া আশঙ্কার মাঝে 'সপ্তাহে ৮০ ঘণ্টা' কাজের নিদান মাস্কের

দু'সপ্তাহ আগে (২৮ অক্টোবর) ৪৪ বিলিয়ন মার্কিন ডলারের বিনিময়ে টুইটার অধিগ্রহণ করেন মার্কিন ধনকুবের এলন মাস্ক। তারপরেই বিতর্কে জড়ান তিনি।
এলন মাস্ক
এলন মাস্কফাইল চিত্র

নয়া সংকটে মাইক্রোব্লগিং সাইট টুইটার (Twitter)। গত দু'সপ্তাহে প্রতিদিন গড়ে ৪০ লক্ষ মার্কিন ডলার হারিয়েছে টুইটার। একইসঙ্গে, বেশকিছু উচ্চপদস্থ প্রবীণ কর্মী টুইটার ছেড়েছেন। এই পরিস্থিতিতে টুইটার দেউলিয়া হয়ে যেতে পারে, বৃহস্পতিবার (১১ নভেম্বর) এমনই আশঙ্কা প্রকাশ করেছেন টুইটারের নতুন মালিক এলন মাস্ক (Elon Musk)।

দু'সপ্তাহ আগে (২৮ অক্টোবর) ৪৪ বিলিয়ন মার্কিন ডলারের বিনিময়ে টুইটার অধিগ্রহণ করেন মার্কিন ধনকুবের এলন মাস্ক। তারপরেই বিতর্কে জড়ান তিনি। টুইটারের সিইও পরাগ আগরওয়াল (CEO Parag Agrawal) ও সংস্থার চিফ ফিনান্সিয়াল অফিসার নেড সেগালকে (CFO Ned Segal) ছাঁটাই করেন তিনি। তারপরে (৫ নভেম্বর), সংস্থার ৫০ শতাংশ কর্মী ছাঁটাইয়ের নির্দেশ দেন মাস্ক।

আর, এলন মাস্কের এই মতিগতি দেখে স্বেচ্ছায় পদত্যাগের হিড়িক পরে গেছে টুইটারে। বুধবারই, পদত্যাগ করেছেন টুইটারের দুই উচ্চপদস্থ কর্তা- ইয়োয়েল রথ (Yoel Roth) এবং রবিন হুইলার (Robin Wheeler)। এরপর, বৃহস্পতিবার পদত্যাগ করেন- টুইটারের চিফ সিকিউরিটি অফিসার লিয়া কিসনার (Lea Kissner)।

পদত্যাগের আগে তিনি বলেন, 'আমি টুইটার ছেড়ে দেওয়ার কঠিন সিদ্ধান্ত নিয়েছি। আমি আশ্চর্যজনক লোকেদের সঙ্গে কাজ করার সুযোগ পেয়েছি। আমরা যে কাজ করেছি তার জন্য আমি গর্বিত।'

সেই রেশ না কাটতেই- পদত্যাগ করেছেন টুইটারের প্রধান গোপনীয়তা কর্মকর্তা ড্যামিয়েন কিয়েরান (Damien Kieran) এবং চিফ কমপ্লায়েন্স অফিসার মারিয়ান ফোগার্টি (Marianne Fogarty)-ও।

আর, একে একে দীর্ঘদিনের অভিজ্ঞ কর্মীরা টুইটার ছেড়ে যাওয়ার ফলে বিপাকে পড়েছেন এলন মাস্ক। তিনি মনে করছেন, এর ফলে টুইটার দেউলিয়াও (Bankrupt ) হয়ে যেতে পারে।

তবে, তারপরেও সংস্থার কর্মচারীদের উপর চাপ বজায় রেখেছেন এলন মাস্ক। বৃহস্পতিবার, কর্মীচারীদের উদ্দেশ্যে একাধিক সতর্কতা জারি করেছেন তিনি।

এদিন মাস্ক বলেন, কর্মচারীদের সপ্তাহে কমপক্ষে ৮০ ঘন্টা কাজ করতে হবে। অফিসে বিনামূল্যে যে খাবার পাওয়া যেত, সেই সুবিধাও কম থাকবে। এছাড়া, যেসকল কর্মচারী বাড়ি থেকে কাজ (work from home) করার সুযোগ পেতেন, তাঁদেরকেও অফিসে আসতে হবে।

আর যারা এই নির্দেশ মানবে না, তাঁদের জন্য 'খোলা রাস্তার' কথা শুনিয়েছেন নয়া টুইটার কর্তা। এদিন মাস্ক বলেন, 'আপনি যদি আসতে না চান, তাহলে আপনার পদত্যাগ গৃহীত হবে।'

এরপর, টুইটারের ক্ষয়ক্ষতির সম্ভাবনা নিয়ে জিজ্ঞাসা করলে, মাস্ক বলেন, 'আমাদের সবাইকে আরও কঠোর হতে হবে।'

এলন মাস্ক
Twitter: ভেরিফায়েড ট্যুইটার অ্যাকাউন্টে টাকা নেওয়াই উচিত, মাস্কের সিদ্ধান্তে সমর্থন কঙ্গনার

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

Related Stories

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in