South Korea: সরু গলিতে লক্ষাধিক লোক! Halloween উৎসবে পদপিষ্ট হয়ে মৃত ১৫০, আহত বহু

স্থানীয় সংবাদমাধ্যম সূত্রের খবর, হ্যালোউইন উপলক্ষ্যে সোল-র আইটেওন জেলার একটি বাজারে কেনাকাটা করছিলেন বহু মানুষ। সেখানে প্রায় ১ লক্ষ লোকের ভীড় হয়েছিল।
হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে আহতদের
হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে আহতদেরছবি সংগৃহীত

হ্যালোউইন (Halloween)-র আনন্দের মাঝেই শোকের ছায়া নেমে এল দক্ষিণ কোরিয়ার রাজধানী সোল (Soule)-এ। উৎসবের ভীড়ে পদপিষ্ট হয়ে মৃত্যুর কোলে ঢোলে পড়ল প্রায় শতাধিক মানুষ। গতকাল (শনিবার) 'ভূতের উৎসবে' সামিল হতে গিয়ে ভয়াবহ দুর্ঘটনার সাক্ষী থাকল সারা শহর।

আগামী ৩১ অক্টোবর সোমবার হ্যালোউইন উৎসব। কোভিড অতিমারীর রেশ অনেকটাই কেটে যাওয়ায় চলতি বছর বেশ বড় করেই হ্যালোউইন উৎসবের আয়োজন করা হয়েছিল সোল-এ। তবে ঠিক কী থেকে এই ভয়াবহ ঘটনা ঘটল, সেটা এখনও ষ্পষ্ট নয়।

স্থানীয় সংবাদমাধ্যম সূত্রের খবর, হ্যালোউইন উপলক্ষ্যে সোল-র আইটেওন জেলার একটি বাজারে কেনাকাটা করছিলেন বহু মানুষ। সেখানে প্রায় ১ লক্ষ লোকের ভীড় হয়েছিল। সেখানকার একটি সংকীর্ণ গলির ভিতর ছিল প্রায় কয়েকশো দোকান। কেনাকাটা করছিলেন বহু মানুষ। এমনকি, রাস্তাতেও নেমেছিল মানুষের ঢল। খুব স্বাভাবিকভাবেই ভীড়ের চাপে অস্বস্তিকর পরিবেশের সৃষ্টি হয়। যার ফলে পদপিষ্ট হওয়ার আতঙ্কে এবং পর্যাপ্ত অক্সিজেনের অভাবে হৃদরোগে আক্রান্ত হন বহু মানুষ।

শেষ পাওয়া খবর অনুযায়ী, গতকালের এই মর্মান্তিক ঘটনায় মৃত্যু হয়েছে ১৫১ জনের, আহত হয়েছেন বহু। স্থানীয় বাসিন্দাদের মতে, ভীড় সহ্য করতে না পেরে আতঙ্কের বশে দিকবিদিক জ্ঞানশূন্য হয়ে ছোটাছুটি করছিল মানুষ। রাস্তার ধারেই কেউ আহত ব্যক্তির চিকিৎসা করছেন, আবার কোথাও রাস্তার মাঝেই স্তূপাকৃত হয়ে রয়েছে মৃতদেহ। বরাবরই এই জায়গায় ভীড় থাকে, কিন্তু শনিবারের মত এই ভয়াবহ ঘটনা আগে কখনও হয়নি।

এক প্রত্যক্ষদর্শীর কথায়, "আমি একটি বারে বসেছিলাম। সেই সময় এক বন্ধু আমাকে ফোন করে বলে বাইরে সাংঘাতিক কিছু ঘটছে। তৎক্ষণাৎ আমি বেরিয়ে এসে দেখি লোকজন রাস্তার মাঝে অজ্ঞান হয়ে পড়ে আছে। কৃত্রিম উপায়ে তাঁদের শ্বাস চলাচল স্বাভাবিক রাখার চেষ্টা করা হচ্ছে।"

প্রশাসনিক সূত্রের খবর, দুর্ঘটনার খবর পাওয়া মাত্রই ঘটনাস্থলে পৌঁছায় প্রশাসন। স্থানীয় মানুষদের সহায়তায় প্রাথমিক চিকিৎসা দ্বারা অনেকেরই প্রাণ বাঁচানো সম্ভব হয়েছে। তবে, মৃতদেহগুলিকে সাদা চাদরে ঢেকে রাস্তাতেই রেখে দেওয়া হয়েছে।

হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে আহতদের
Lay Off: টুইটার অধিগ্রহণের পরেই কর্মী ছাঁটাই এলন মাস্কের, বাদ পড়লেন CEO পরাগ আগারওয়াল!

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

Related Stories

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in