Panjshir: তালিবানের কাছে আত্মসমর্পণ করবেন মাসুদ!

স্থানীয় সংবাদমাধ্যমের খবর অনুযায়ী, আন্তর্জাতিক সাহায্য এবং রসদ মিলছে না পর্যাপ্ত। তাই আন্তসমর্পণ করতে পারেন নর্দার্ন অ্যালায়েন্সের নেতা আহমেদ মাসুদ।
Panjshir: তালিবানের কাছে আত্মসমর্পণ করবেন মাসুদ!
আহমেদ মাসুদফাইল চিত্র

আফগানিস্তানের ছোট্ট প্রদেশ পঞ্জশির তালিবানের দখলদারি ঠেকিয়ে রেখেছিল এতদিন। কিন্তু শেষরক্ষা হবে! পঞ্জশির দখল করতে চলেছে তালিবান। আন্তর্জাতিক সাহায্য এবং রসদ মিলছে না পর্যাপ্ত। তাই আন্তসমর্পণ করতে পারেন নর্দার্ন অ্যালায়েন্সের নেতা আহমেদ মাসুদ। পঞ্জশির উপত্যকায় এখনও মাসুদ অনুগামী প্রায় ৬,০০০ তাজিক যোদ্ধা রয়েছেন বলে স্থানীয় সংবাদমাধ্যমের খবর।

পাশাপাশি কয়েক হাজার আফগান সেনা এবং উজবেক ‘যুদ্ধপতি’ (ওয়ার লর্ড) রশিদ দোস্তমের অনুগত মিলিশিয়া যোদ্ধারাও রয়েছেন তালিবান বিরোধী হিসাবে। কিন্তু মাসুদ অস্ত্র সমর্পণ করলে গোটা আফগানিস্তাই তালিবানের কবলে চলে যাবে। ব্রিটেনের একটি সংবাদপত্র মাধ্যমে এমনটাই জানা গিয়েছে।

আহমেদ মাসুদ
শিশু ও নারীদের অপহরণ করে ঢাল হিসেবে ব্যবহার করছে তালিবানরা, টুইট আমরুল্লাহ সালেহ-র

যদিও তাঁর শিবিরের পক্ষ থেকে এখনও এই দাবি স্বীকার করা হয়নি। মাসুদের পাশাপাশি পঞ্জশির এবং আশপাশের অঞ্চলগুলিতে তালিবান বিরোধী প্রতিরোধের নেতৃত্বে রয়েছেন আফগানিস্তানের প্রাক্তন প্রেসিডেন্ট আশরফ গনির সরকারের ভাইস প্রেসিডেন্ট আমরুল্লা সালেহ্‌। তিনি নিজেকে সেদেশের সাংবিধানিক নীতি বলে আফগানিস্তানের ‘ভারপ্রাপ্ত প্রেসিডেন্ট’ হিসেবে দাবি করেছেন। যদিও তাঁর ‘গতিবিধি’ জানা যায়নি।

সংবাদে পঞ্জশিরের তাজিক নেতার ঘনিষ্ঠ সূত্র উদ্ধৃত করে দাবি করা হয়েছে যে, শান্তি প্রতিষ্ঠার জন্য তালিবানের সঙ্গে মাসুদ আলোচনা শুরু করেছেন। সোমবার তালিবান মুখপাত্র জবিউল্লা মুজাহিদ দাবি করেছিলেন, তালিব যোদ্ধারা পঞ্জশির ঘিরে ফেলেছে। শীঘ্রই ওই এলাকা তাঁদের হাতে আসবে।

আহমেদ মাসুদ
CIA প্রধানের সঙ্গে তালিবান শীর্ষ নেতার গোপন বৈঠক!

কাবুলের সুরক্ষার দায়িত্বপ্রাপ্ত তালিবান নেতা তথা হক্কানি নেটওয়ার্কের নেতা খলিল হক্কানি বলেন, ‘আহমেদ মাসুদের সঙ্গে আমার কথা হয়েছে। তিনি আফগানিস্তানের শান্তি প্রতিষ্ঠার জন্য অস্ত্র সংবরণে সায় দিয়েছেন।’ ৩২ বছরের মাসুদও কয়েকটি সংবাদমাধ্যমকে জানিয়েছিলে, রক্তপাত এড়াতে তালিবানের সঙ্গে তিনি আলোচনায় রাজি। তা সত্ত্বেও পঞ্জশির, বাঘলান, পারওয়ান-সহ কয়েকটি প্রদেশে তালিবান এবং নর্দার্ন অ্যালায়েন্সের লড়াইয়ের খবর জানা গিয়েছে।

প্রসঙ্গত, মাসুদের বাবা আহমেদ শাহ মাসুদ প্রায় আড়াই দশক আগে তালিবান বিরোধী নর্দার্ন অ্যালায়্যান্স গড়ে তোলেন। ২০০১-এ টুইন টাওয়ার হামলার দু’দিন আগে তিনি নিহত হন। সাংবাদিকের ছদ্মবেশে আল কায়দার মানববোমা হামলা চালায় তাঁর ওপর। তার জেরে মৃত্যু হয় সিনিয়র মাসুদের।

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

Related Stories

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in