ভারতের নতুন তথ্যপ্রযুক্তি আইন আন্তর্জাতিক রীতিনীতির সঙ্গে সামঞ্জস্যপূর্ণ নয়: রাষ্ট্রসংঘ

রাষ্ট্রসংঘ-এর মানবাধিকার কমিশনার অফিসের তরফে প্রকাশিত রিপোর্টে এমনটাই উল্লেখ করা হয়েছে।
ভারতের নতুন তথ্যপ্রযুক্তি আইন আন্তর্জাতিক রীতিনীতির সঙ্গে সামঞ্জস্যপূর্ণ নয়: রাষ্ট্রসংঘ
ফাইল চিত্র

ভারতের নতুন তথ্যপ্রযুক্তি আইন আন্তর্জাতিক রীতিনীতির সঙ্গে অসামঞ্জস্যপূর্ণ এবং এই নতুন তথ্যপ্রযুক্তি আইন রাষ্ট্রসংঘ-এর মানবাধিকারের নিয়ম মেনে তৈরি হয়নি। রাষ্ট্রসংঘ -এর মানবাধিকার কমিশনার অফিসের তরফে প্রকাশিত রিপোর্টে এমনটাই উল্লেখ করা হয়েছে। বিশেষ এই রিপোর্টটিতে মতামত ও বাক স্বাধীনতার সুরক্ষার কথা উল্লেখ করা হয়েছে।

এই বিশেষ রিপোর্টটিতে, শান্তিপূর্ণ ও স্বাধীন মত ব্যক্ত করার পাশাপাশি গোপনীয়তা রক্ষার অধিকারের কথাও বলা হয়েছে। মত প্রকাশের স্বাধীনতা নিয়ে বিশেষ রিপোর্টটি তৈরি করেছেন আইরেন খান, শান্তিপূর্ণভাবে জমায়েত করার অধিকার নিয়ে রিপোর্ট তৈরি করেছেন ন্যায়ালেটসোসি ভোলে এবং গোপনীয়তার অধিকার নিয়ে বিশেষ রিপোর্টটি তৈরি করেছেন জোসেফ ক্যানাটেকি।

রিপোর্টটিতে উল্লেখ করা হয়েছে, বিশ্বজুড়ে মহামারি ও কৃষক আন্দোলনের সময়ে এই নতুন নিয়মগুলো প্রণয়ন করা হয়েছে সমস্ত সরকারের নিজের উদ্দেশ্যে। মত প্রকাশের স্বাধীনতার পাশাপাশি তথ্য আদানপ্রদান ও গোপনীয়তা রক্ষার স্বাধীনতাও সমানভাবে গুরুত্বপূর্ণ। সামাজিক, সংস্কৃতিক, অর্থনৈতিক, রাজনৈতিক অধিকার সকলের সমাভাবে রয়েছে। মত প্রকাশের স্বাধীনতার সীমাবদ্ধতাকে কখনই বহুত্ববাদী গণতন্ত্র, গণতান্ত্রিক নীতি ও মানবাধিকারকে বিভ্রান্ত করার ন্যায্যতা হিসেবে গ্রহণ করা উচিত নয়।

ভারতের নতুন তথ্যপ্রযুক্তি আইন আন্তর্জাতিক রীতিনীতির সঙ্গে সামঞ্জস্যপূর্ণ নয়: রাষ্ট্রসংঘ
G7 বৈঠকে প্রধানমন্ত্রী যে বাকস্বাধীনতার বাণী দিয়েছেন, তা সরকারি নীতিতে দেখা যায় না: এডিটর্স গিল্ড

রিপোর্টে আরও উল্লেখ করা হয়েছে, প্রযুক্তি উদ্ভাবনী বিশ্ব নেতৃত্ব হিসেবে ডিজিটাল অধিকার রক্ষা করার আইন প্রণয়নের ক্ষমতা রয়েছে। তবে সংশ্লিষ্ট বিধির ক্ষেত্রগুলো বাক স্বাধীনতা রক্ষার ঠিক উল্টো কাজ করছে। তথ্যপ্রযুক্তি আইন ২০০০ অনুসারে সংসদীয় পর্যালোচনা সাপেক্ষে আলোচনা করা উচিত ছিল। যা ভারতের আন্তর্জাতিক আইনী বাধ্যবাধকতা আইসিসিপিআরের ১৭ ও ১৯ নং ধারায় উল্লেখ রয়েছে।

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in