Afghanistan: ২৯ আগস্টের ড্রোন হামলা অনিচ্ছাকৃত ভুল - স্বীকারোক্তি পেন্টাগনের

আমেরিকান এয়ার ফোর্স-এর ইন্সপেক্টর লেফট্যানেন্ট জেনারেল সামি সাংবাদিকদের জানিয়েছেন, এটা ভুল ছিলো। ওইদিনের ড্রোন হামলায় আমেরিকান সহায়তা দলের ১ সদস্য সহ তিন ব্যক্তি এবং ৭ শিশুর মৃত্যু হয়।
Afghanistan: ২৯ আগস্টের ড্রোন হামলা অনিচ্ছাকৃত ভুল - স্বীকারোক্তি পেন্টাগনের
২৯ আগস্টের ড্রোন হামলা ফাইল ছবি, ঘটনার ট্যুইটার ভিডিও থেকে স্ক্রীনশট

আফগানিস্তানে গত ২৯ আগস্ট ড্রোন হামলা ভুলবশত করা হয়েছিলো। একথা জানিয়েছে পেন্টাগন। বিবিসি-র রিপোর্ট অনুসারে পেন্টাগনের এক ইন্সপেক্টর ঘটনার তদন্তের পর একথা জানিয়েছেন। ওইদিনের ড্রোন হামলায় ৭ শিশু সহ ১০জন নিহত হয়েছিলেন।

আমেরিকান এয়ার ফোর্স-এর ইন্সপেক্টর লেফট্যানেন্ট জেনারেল সামি সাংবাদিকদের জানিয়েছেন, এটা ভুল ছিলো। ওইদিনের ড্রোন হামলায় আমেরিকান সহায়তা দলের ১ সদস্য সহ তিন ব্যক্তি এবং ৭ শিশুর মৃত্যু হয়।

আফগানিস্তানে তালিবানি দখলদারির পর নিজেদের অধিবাসীদের দ্রুত ওই দেশ থেকে বের করে আনার জন্য ওই ড্রোন হামলা হয়েছিলো বলে প্রাথমিকভাবে জানা গেছিলো।

লেফট্যানেন্ট জেনারেল জানিয়েছেন, যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে যাবার কারণে ভুলবশত ওই ঘটনা ঘটে যায়। যদিও এই ঘটনায় কোনো আইন ভঙ্গ করা হয়নি। যুদ্ধের আইন মেনেই ওই আক্রমণ হয়েছিলো। এই ভুল অনিচ্ছাকৃত।

তিনি আরও বলেন, যেসব আমেরিকান আধিকারিক ওই ড্রোন হামলা চালিয়েছিলেন তাঁরা নিশ্চিত ছিলেন যে তাঁরা কোনো স্থির লক্ষ্যবস্তুতেই হামলা চালাচ্ছেন। ইসলামিক স্টেট (আই এস) সন্ত্রাসবাদী গোষ্ঠীর বিরুদ্ধে হামলা চালাচ্ছেন ভেবেই এই ঘটনা ঘটে। মূল লক্ষ্য ছিলো কাবুল বিমানবন্দরে আটকে পরা আমেরিকান নাগরিকদের দ্রুত দেশ থেকে বের করে আনা।

এই ড্রোন হামলার আগের দিনেই আইএস-কে-র পক্ষ থেকে বোমা হামলা চালানো হয়। আইএস-কে-র পক্ষ থেকে জানানো হয় বহু মানুষ দেশ ছেড়ে পালানোর জন্য বিমানবন্দরের বাইরে ভিড় করেছেন। তাঁদের আটকাতেই এই হামলা। ওইদিনের বোমা হামলাতে ১৩ আমেরিকান সৈন্য সহ ১৭০ জনের মৃত্যু হয়েছিলো।

২৯ আগস্টের ড্রোন হামলা
Afghanistan: দীর্ঘ দু'দশকের যুদ্ধ শেষ, আফগানিস্তানে পরাজয় বরণ করে ঘরে ফিরলো আমেরিকা

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

Related Stories

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in