মহারাষ্ট্রের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী ও শিবসেনা (ইউবিটি) প্রধান উদ্ধব ঠাকরে
মহারাষ্ট্রের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী ও শিবসেনা (ইউবিটি) প্রধান উদ্ধব ঠাকরেফাইল ছবি, সংগৃহীত

Maharashtra: আলোচনা শুরুর আগেই ২৩ আসন দাবি উদ্ধব ঠাকরের - ইন্ডিয়া মঞ্চে জট

People's Reporter: শিবসেনা উদ্ধব গোষ্ঠীর এই দাবি অবশ্য উড়িয়ে দিয়েছে মহারাষ্ট্র কংগ্রেস। রাজ্য কংগ্রেসের এক নেতা জানিয়েছেন, শিবসেনা (ইউবিটি)-র এই দাবির কোনও ভিত্তি নেই। কারণ দল এখন দু’ভাগে বিভক্ত।

আসন্ন লোকসভা নির্বাচনে মহারাষ্ট্রে আসন বন্টন নিয়ে কোনও আলোচনা শুরু হবার আগেই মহাবিকাশ আঘাদি জোটে শুরু হল মতান্তর। রাজ্যের ৪৮ লোকসভা কেন্দ্রে কোন রাজনৈতিক দল কতগুলি আসনে লড়াই করবে সেই বিষয়ে ইন্ডিয়া মঞ্চে এখনও পর্যন্ত কোনও আলোচনা হয়নি। অন্যদিকে এদিনই নাগপুরে ‘তৈয়ার হ্যায় হম’ জনসভা দিয়ে আগামী লোকসভা নির্বাচনের প্রচার শুরু করেছে কংগ্রেস।

ঘটনার সূত্রপাত শিবসেনা (ইউবিটি)-র আসন সংক্রান্ত দাবি ঘিরে। দলের প্রধান উদ্ধব ঠাকরে দাবি করেছেন রাজ্যে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করার জন্য ২৩ আসন ছাড়তে হবে শিবসেনা (ইউবিটি)কে। যদিও উদ্ধবের এই দাবি কোনোভাবেই মানা সম্ভব নয় বলে মনে করছে রাজনৈতিক মহল। কংগ্রেসের ওপর আগেভাগেই চাপ সৃষ্টি করতে শিবসেনা উদ্ধব গোষ্ঠীর এই কৌশল বলেও মনে করছে রাজনৈতিক মহলের একাংশ।

শিবসেনা উদ্ধব গোষ্ঠীর সাংসদ এবং দলীয় মুখপাত্র সঞ্জয় রাউথ জানিয়েছেন, দল চায় ২৩ আসনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে। এরপরেও আরও ২৫ আসন বাকি থাকবে। যেসব আসনে কংগ্রেস ও এনসিপি (এসপি) প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে পারে। এছাড়াও ইন্ডিয়া মঞ্চের শরিক অন্য কোনও রাজনৈতিক দলকে আসন ছাড়তে হতে পারে।

শিবসেনা উদ্ধব গোষ্ঠীর এই দাবি অবশ্য উড়িয়ে দিয়েছে মহারাষ্ট্র কংগ্রেস। রাজ্য কংগ্রেসের এক নেতা জানিয়েছেন, শিবসেনা (ইউবিটি)-র এই দাবির কোনও ভিত্তি নেই। কারণ দল এখন দু’ভাগে বিভক্ত। দলের অনেক সাংসদই একনাথ সিন্ধে গোষ্ঠীতে আছেন। ফলে শিবসেনা (ইউবিটি)-কে কোনোমতেই এত আসন ছাড়া যাবেনা।

যদিও কংগ্রেস নেতার মন্তব্যের কড়া উত্তর দিয়েছেন সঞ্জয় রাউথ। তিনি জানান, শিবসেনা ভেঙেছে কিনা, বা বিধায়ক সাংসদরা দল ছেড়েছে কিনা তা কংগ্রেসের দেখার দরকার নেই। রাজ্যের মানুষ এখনও শিবসেনা উদ্ধব গোষ্ঠীর সঙ্গেই আছে। তাছাড়াও কংগ্রেসের সমস্ত সিদ্ধান্ত দিল্লি থেকে নেওয়া হয়। আমরা আসনের বিষয়ে সরাসরি কংগ্রেস সভাপতি মল্লিকার্জুন খাড়গে, সোনিয়া গান্ধী ও রাহুল গান্ধীর সঙ্গে আলোচনা করব। সেখানেই আমরা আমাদের মতামত জানাবো।

সঞ্জয় রাউথ আরও বলেন, ২০১৯ লোকসভা নির্বাচনে শিবসেনা ২৩ আসনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করে ১৮ আসনে জয়লাভ করেছিল। কংগ্রেস সেবার মাত্র ১ আসনে জয়লাভ করে। আসন বন্টনের সময় সেটাও মনে রাখতে হবে।

কংগ্রেস নেতা সঞ্জয় নিরুপম এই প্রসঙ্গে বলেন, শিবসেনা (ইউবিটি) যদি ২৩ আসন নিয়ে নেয় তাহলে কংগ্রেসের জন্য কী পড়ে থাকবে?

যদিও মন্তব্য পাল্টা মন্তব্যের বিতর্ক থেকে দূরে থেকে কংগ্রেস নেতা পৃথ্বীরাজ চবন জানিয়েছেন, আগামী ২৯ তারিখ দিল্লিতে মহারাষ্ট্রের আসন বন্টনের বিষয়ে এক বৈঠক ডাকা হয়েছে। সেখানেই মহারাষ্ট্রের নেতৃত্বের সঙ্গে আলোচনা করে পরবর্তী পদক্ষেপ গ্রহণ করা হবে। তিনি আরও বলেন, বিজেপিকে হারানোর বিষয়টিই প্রধান হলে সমস্ত রাজনৈতিক দলকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে লড়াই করতে হবে।

মহারাষ্ট্রের আসন বিতর্কে নতুন মাত্রা যোগ করেছে প্রকাশ আম্বেদকরের বঞ্চিত বহুজন আঘাদি (ভিবিএ) দল। ইন্ডিয়া মঞ্চে যোগ দিতে চেয়ে প্রকাশ আম্বেদকরের দাবি রাজ্যের ৪৮টি লোকসভা আসনে কংগ্রেস, এনসিপি (এসপি), শিবসেনা (ইউবিটি) এবং ভিবিএ ১২ টি করে আসনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবে। একমাত্র তাহলেই বিজেপিকে সব আসনে হারানো সম্ভব হবে বলে অভিমত প্রকাশের।

- with Agency Inputs

মহারাষ্ট্রের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী ও শিবসেনা (ইউবিটি) প্রধান উদ্ধব ঠাকরে
I-N-D-I-A: মায়াবতীকে প্রধানমন্ত্রী পদপ্রার্থী ঘোষণা করলে ইন্ডিয়া মঞ্চে যোগ দেবে BSP - দাবি সাংসদের
মহারাষ্ট্রের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী ও শিবসেনা (ইউবিটি) প্রধান উদ্ধব ঠাকরে
Bharat Nyay Yatra: লোকসভা ভোটের আগে 'ন্যায় যাত্রা' রাহুলের, ৬২০০ কিমির পথে এবার বাংলাও

GOOGLE NEWS-এ Telegram-এ আমাদের ফলো করুন। YouTube -এ আমাদের চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন।

Related Stories

No stories found.
logo
People's Reporter
www.peoplesreporter.in