Covid-19 প্রসঙ্গে কঙ্গনা রানাওয়াতের বিতর্কিত পোষ্ট ডিলিট করলো ইন্সটাগ্রাম
কঙ্গনা রানাওয়াতফাইল ছবি সংগৃহীত

Covid-19 প্রসঙ্গে কঙ্গনা রানাওয়াতের বিতর্কিত পোষ্ট ডিলিট করলো ইন্সটাগ্রাম

এবার বলিউড অভিনেত্রী কঙ্গনা রানাওয়াতের পোষ্ট ডিলিট করলো ইন্সটাগ্রাম। ট্যুইটার থেকে বিতাড়িত হবার পর দিনকয়েক আগেই এক ইন্সটাগ্রাম পোষ্টে তিনি দাবি করেছিলেন – কোভিড-১৯ সাধারণ ফ্লু ছাড়া কিছু নয়।

এবার বলিউড অভিনেত্রী কঙ্গনা রানাওয়াতের পোষ্ট ডিলিট করলো ইন্সটাগ্রাম। ট্যুইটার থেকে বিতাড়িত হবার পর দিনকয়েক আগেই এক ইন্সটাগ্রাম পোষ্টে তিনি দাবি করেছিলেন – কোভিড-১৯ সাধারণ ফ্লু ছাড়া কিছু নয়। যাকে সংবাদমাধ্যম বড়ো করে দেখাচ্ছে। ওই পোষ্টেই তিনি নিজের কোভিড সংক্রমিত হবার কথাও জানিয়েছিলেন।

বিভিন্ন পোষ্টের দৌলতে বিতর্কের শিরোনামে থাকা কঙ্গনা রানাওয়াতের এই পোষ্ট নিয়েও যথেষ্ট বিতর্ক হয়। যে সময় ভারতে প্রতিদিন প্রায় ৪ লক্ষ মানুষ করোনা সংক্রমিত হচ্ছেন এবং প্রায় ৪ হাজার মানুষ মারা যাচ্ছেন সেই সময় এই ধরণের পোষ্টকে দায়িত্বজ্ঞানহীন পোষ্ট বলেই অভিমত জানিয়েছিলো নেটিজেনরা।

কঙ্গনা রানাওয়াতের পোষ্টের স্ক্রীনশট
কঙ্গনা রানাওয়াতের পোষ্টের স্ক্রীনশট কঙ্গনা রানাওয়াতের ইন্সটাগ্রাম থেকে সংগৃহীত

তাঁর পোষ্ট ডিলিট করে দেবার পর কঙ্গনা জানিয়েছেন, তিনি কোভিড ধ্বংস করবেন বলেছিলেন বলেই তাঁর পোষ্ট ডিলিট করেছে ইন্সটাগ্রাম। তিনি আরও লিখেছেন – তাঁর পোষ্টে মতলব টেররিস্ট এবং কমিউনিস্টরা দুঃখ পেয়েছে কারণ তারা কোভিড ফ্যান ক্লাবের সদস্য। আমি মাত্র দুদিন হল ইন্সটাগ্রামে এসেছি। কিন্তু মনে হচ্ছেনা এখানে এক সপ্তাহের বেশি থাকতে পারবো।

কঙ্গনা রানাওয়াত
ভারতে আর Oxygen-এর দরকার নেই, Covid-19 সামান্য Flu - করোনা আক্রান্ত কঙ্গনার মন্তব্যে ফের বিতর্ক

সম্প্রতি দিল্লিতে অক্সিজেনের ঘাটতি নিয়ে করা একটি নিউজ রিপোর্টের উত্তরে তিনি লিখেছিলেন, "ভারতে আর অক্সিজেনের দরকার নেই। ঈশ্বরকে ভয় পাওয়ার ধর্ম দরকার। এইসব শকুনের জন্য একরাশ লজ্জা!" অন‍্য একটি পোস্টে তিনি লেখেন, "এই দেশে এত চোর। অক্সিজেনের নয়, একটু মানবিকতার দরকার এই দেশের।"

লাগাতার বিতর্কিত মন্তব্য করার জেরে গত সপ্তাহের শুরুতেই স্থায়ী ভাবে কঙ্গনা রানাওয়াতের অ‍্যাকাউন্ট নিষিদ্ধ ঘোষণা করে ট‍্যুইটার কর্তৃপক্ষ। এরপর থেকে ইন্সটাগ্রামে সক্রিয় অভিনেত্রী।

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in