WB Election 21: যেকোনো বিধানসভা কেন্দ্র থেকেই পোলিং এজেন্ট হওয়া যাবে- নয়া নির্দেশিকা কমিশনের

আগে কোনও বুথে পোলিং এজেন্ট হতে গেলে সেই বুথের অথবা পার্শ্ববর্তী বুথের ভোটদাতা হতে হবে। এখন থেকে আর সেই নিয়ম রইল না।
WB Election 21: যেকোনো বিধানসভা কেন্দ্র থেকেই পোলিং এজেন্ট হওয়া যাবে- নয়া নির্দেশিকা কমিশনের
ফাইল চিত্র

২৪ মার্চ, কলকাতা- পোলিং এজেন্ট হওয়ার নিয়ম বদল করল নির্বাচন কমিশন। তার জেরে স্বস্তি মিলল বিরোধী শিবিরে। কি বদল ঘটল? বদল হয়েছে পোলিং এজেন্ট নিয়োগের নিয়ম। আগে কোনও বুথে পোলিং এজেন্ট হতে গেলে সেই বুথের অথবা পার্শ্ববর্তী বুথের ভোটদাতা হতে হবে। এখন থেকে আর সেই নিয়ম রইল না। যে কোনও বিধানসভা কেন্দ্রের যে কোনও ভোটদাতা শর্তসাপেক্ষে সংশ্লিষ্ট কেন্দ্রের প্রার্থীর পোলিং এজেন্ট হতে পারবেন। এর ফলে কোথাও সাংগঠনিক দুর্বলতা থাকলেও সব বুথে এজেন্ট দিতে কোনও সমস্যা হবে না বলে দাবি বিরোধী দলগুলির।

এতদিন পর্যন্ত নির্বাচনে প্রতি বুথে সব রাজনৈতিক দলের প্রতিনিধি হিসাবে একজন পোলিং এজেন্ট এবং তাঁর রিলিভার হিসাবে আরও দু’জনকে নিয়োগ করা যেত। কিন্তু এবার কোভিড বিধি মানার জন্য বুথ সংখ্যা অনেকটাই বেড়েছে। তাই নিয়ম শিথিল করেছে কমিশন। এক নির্দেশিকায় কমিশন জানিয়েছে, সংশ্লিষ্ট ভোটগ্রহণ কেন্দ্রে উপযুক্ত পোলিং এজেন্ট না পেলে ওই বিধানসভা কেন্দ্রের যে কোনও ভোটদাতাকে প্রার্থীর পোলিং এজেন্ট হিসাবে নিয়োগ করা যাবে।

বিরোধীরা নিশ্চিন্ত হচ্ছে কেন? রাজ্যের গত নির্বাচনগুলিতে রাজনৈতিক সন্ত্রাসের ঘটনা সামনে এসেছে। সেই সন্ত্রাসের ভয়ে বা সাংগঠনিক দুর্বলতার জন্য রাজ্যের বহু বুথে এজেন্ট বসাতে পারেনি বিরোধী শিবির। উনিশের লোকসভা নির্বাচনে রাজ্যে বিজেপি ১৮টি আসন পেলেও রাজ্যের বহু বুথে এজেন্ট বসাতে পারেনি। রাজনৈতিক মহল মনে করে, ভোটকেন্দ্রে এজেন্ট থাকলে দলের ভোটারদের আত্মবিশ্বাস বজায় থাকে। কিন্তু প্রার্থী পোলিং এজেন্ট দিতেই না পারেন, সে ক্ষেত্রে সুবিধা পায় বিরোধীরা। তাই নির্বাচন কমিশনের এই নিয়মকে স্বাগত জানাচ্ছে বিরোধীরা।

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in