‘বড়’ নেতাকে আনার আশ্বাস দিয়ে কাটোয়ায় ৭-৮ লাখ টাকা তোলার অভিযোগ বিজেপির বিরুদ্ধে

শনিবার বিজেপির সভায় সাংসদ অর্জুন সিংয়ের যোগ দেওয়ার কথা ছিল। কিন্তু তিনি আসেননি। তা নিয়ে শুরু হয় গন্ডগোল। কর্মীদের ক্ষোভের মুখে পড়েন জেলা সভাপতি কৃষ্ণ ঘোষ। পরে পুলিশের সাহায্যে ঘটনাস্থল ছাড়তে হয়।
‘বড়’ নেতাকে আনার আশ্বাস দিয়ে কাটোয়ায় ৭-৮ লাখ টাকা তোলার অভিযোগ বিজেপির বিরুদ্ধে
প্রতীকী ছবি

এতদিন ফুটবলের মাঠে টাকা দিয়ে খেলোয়াড় কেনাবেচার গল্প শোনা যেত। অথবা কোন ফাংশন, অনুষ্ঠানে শিল্পীদের পারফরম্যান্সের ভিত্তিতে পারিশ্রমিক দেওয়া হত। একুশের নির্বাচনে রাজনীতিতে অন্য গল্প শোনা গেল। ‘বড়’ কোনও নেতাকে আনা হবে বলে টাকা আত্মসাৎ করার অভিযোগ উঠল বিজেপির বিরুদ্ধে। ঘটনাটি ঘটেছে বর্ধমানের কাটোয়া মঙ্গলকোটের কৈচর হাটতলায়। আর তার জেরে রণক্ষেত্রের চেহারা নিল গোটা এলাকা।

শনিবার বিজেপির সভায় সাংসদ অর্জুন সিংয়ের যোগ দেওয়ার কথা ছিল। কিন্তু তিনি আসেননি। তা নিয়ে শুরু হয় গন্ডগোল। কর্মীদের ক্ষোভের মুখে পড়েন জেলা সভাপতি কৃষ্ণ ঘোষ। পরে পুলিশের সাহায্যে ঘটনাস্থল ছাড়তে হয়।

স্থানীয় সূত্রে খবর, অর্জুন সিং না আসায় বিজেপি কর্মীরা মারমুখী হয়ে ওঠে। বিজেপি সাংগঠনিক সভাপতি সুযোগ বুঝে গাড়িতে উঠে পড়লেও গাড়ি ক্ষোভের মুখে আটকে পড়ে।

বিজেপি কর্মীদের অভিযোগ, ২০১৭ সাল থেকে বেশ কয়েকবার বড় বড় নেতা আসবেন বলে স্থানীয় নেতৃত্ব টাকা তুলেছে। কিন্তু কোনও নেতা আসেননি। প্রায় ৭-৮ লাখ টাকা এভাবে জনগণের কাছ থেকে আত্মসাৎ করেছে বিজেপি নেতৃত্ব, এমনটাই অভিযোগ সাধারণ মানুষের। শনিবার এই টাকা ফেরতের দাবিতে দলের শীর্ষ নেতাদেরই কাঠগড়ায় তোলেন তাঁরা। আর তাতে বেশ অস্বস্তিতে পড়েছে দল। ভোটের আগে এই ধরনের ঘটনা ভোটবাক্সে প্রভাব ফেলতে পারে বলে আশঙ্কা করছেন বিজেপি নেতৃত্ব। সভায় উপস্থিত তৃণমূল কংগ্রেস ছেড়ে বিজেপিতে আসা সাংসদ সুনীল মণ্ডল কর্মীদের ক্ষোভ যথার্থ বলে মেনে নেন।

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in