Wimbledon: দুই ম্যাচে গড়াপেটার অভিযোগ - চলছে তদন্ত

এক জার্মান সংবাদপত্র জানিয়েছে এবারের উইম্বলডনের দুটি ম্যাচে গড়াপেটা হয়েছে বলে মনে করা হচ্ছে। আপাতত তদন্ত চলছে। ওই রিপোর্ট অনুসারে, ঘটনা পরম্পরায় সন্দেহ দেখা দেবার পর এই তদন্তের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।
Wimbledon: দুই ম্যাচে গড়াপেটার অভিযোগ - চলছে তদন্ত
গ্রাস কোর্টছবি প্রতীকী সংগৃহীত

এবার উইম্বলডনেও ম্যাচ ফিক্সিং-এর ছায়া। এক জার্মান সংবাদপত্র জানিয়েছে এবারের উইম্বলডনের দুটি ম্যাচে গড়াপেটা হয়েছে বলে মনে করা হচ্ছে। আপাতত এই বিষয়ে তদন্ত চলছে। ওই সংবাদমাধ্যম আরও জানিয়েছে, বেশ কিছু ঘটনা পরম্পরায় সন্দেহ দেখা দেবার পর এই তদন্তের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

ডাই উইট-এ প্রকাশিত এক রিপোর্ট অনুসারে, পুরুষদের ডাবলস বিভাগে প্রথম রাউন্ডে এক ম্যাচ ঘিরে প্রথম সন্দেহ দেখা দেয়। এই ম্যাচে ফেভারিটদের বিপক্ষে প্রচুর পরিমাণে লাইভ বেটিং হয়েছিলো। এই ম্যাচে ফেভারিটরা প্রথম সেট জিতলেও পরের তিনটি সেটেই হেরে যায়।

অন্য একটি ম্যাচেও প্রচুর পরিমাণে বেটিং হয়েছিলো বলে জানা গেছে। ওই খেলার দ্বিতীয় সেটের শেষ থেকে বেটিং বাড়তে শুরু করে। এছাড়াও ওই ম্যাচের বিভিন্ন বিষয় ঘিরে একাধিক স্পেশাল বেটিং হয় এবং বেটিং-এ যা যা সম্ভাবনার অনুমান করা হয়েছিলো তার সবই সত্যি হয়।

দ্য ইন্টারন্যাশনাল টেনিস ইন্টিগ্রিটি এজেন্সি (আইটিআইএ) টেনিসে ম্যাচ ফিক্সিং-এর বিরুদ্ধে লড়াই করে থাকে। যদিও এবারের উইম্বলডনের এই দুই ম্যাচ নিয়ে এই সংস্থা এখনও পর্যন্ত কিছু জানায়নি। উল্লেখ্য গত জানুয়ারি থেকে এই সংস্থার কাছে টেনিসে ম্যাচ বেটিং সংক্রান্ত ৩৪টি সতর্কবার্তা পৌঁছেছে।

সম্প্রতি প্রকাশিত আইটিআইএ-র দ্বিতীয় ত্রৈমাসিকের রিপোর্টে জানানো হয়েছে এপ্রিল থেকে জুন মাসের মধ্যে তারা ম্যাচ ফিক্সিং-এর বিষয়ে ১১টি সতর্কবার্তা পেয়েছেন। এর মধ্যে ৯টি ম্যাচ হয়েছে আইটিএফ পুরুষ ও মহিলা বিভাগে এবং ২টি ম্যাচ অনুষ্ঠিত হয়েছে এটিপি ২৫০ ইভেন্টে।

- with inputs from IANS

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

Related Stories

No stories found.