রোনাল্ডোর বিরুদ্ধে ধর্ষণের মামলা খারিজের সুপারিশ মার্কিন বিচারপতির

২০০৯ সালে লাস ভেগাসে এক ধর্ষণের মামলায় জড়িয়ে পড়েন পর্তুগীজ সেনসেশন। তাঁর বিরুদ্ধে যৌন হেনস্থা ও চুক্তিভঙ্গ করার মামলা দায়ের করেছিলেন যুক্তরাষ্ট্রের এক মহিলা।
রোনাল্ডোর বিরুদ্ধে ধর্ষণের মামলা খারিজের সুপারিশ মার্কিন বিচারপতির
ফাইল ছবি সংগৃহীত

অবশেষে দীর্ঘদিনের অপবাদ থেকে মুক্তি পেতে চলেছেন ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডো। ২০০৯ সালে লাস ভেগাসে এক ধর্ষণের মামলায় জড়িয়ে পড়েন পর্তুগীজ সেনসেশন। তাঁর বিরুদ্ধে যৌন হেনস্থা ও চুক্তিভঙ্গ করার মামলা দায়ের করেছিলেন যুক্তরাষ্ট্রের এক মহিলা। এবার সেই মামলা থেকে রোনাল্ডোকে মুক্তি দেওয়ার সুপারিশ করলেন আমেরিকার বিচারক ড্যানিয়েল অ্যালব্রেগাস।

২০০৯ সালে লাস ভেগাসে ক্যাথরিন মায়োরগার নামক এক মডেলের সঙ্গে যৌন সম্পর্কে লিপ্ত হয়েছিলেন পাঁচ বারের ব্যালন ডি’অর জয়ী। রোনাল্ডো সে কথা স্বীকারও করেছিলেন। তবে তিনি জানিয়েছিলেন, তাঁদের দুজনের সম্মতিতেই হয়েছিলো সেই যৌন সম্পর্ক। কিন্তু ক্যাথরিন রোনাল্ডোর বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ আনেন। এরপর অবশ্য প্রায় তিন লক্ষ ৭৫ হাজার মার্কিন ডলারের বিনিময়ে সেই মহিলার সঙ্গে চুক্তি করেন রোনাল্ডোর উকিলরা। ঘটনা এরপর স্তব্ধ হয়ে গেলেও ২০১৭ সালে চুক্তি ভঙ্গের অভিযোগ জানিয়ে আবার সেই মহিলা মামলা দায়ের করেন রোনাল্ডোর বিরুদ্ধে।

ব্যক্তিগত ম্যাসেজ ও কিছু লিকড তথ্যের ওপর ভিত্তি করে গোটা মামলা সাজানো হয়েছে বলে অভিযোগ ওঠে ওই মহিলার বিরুদ্ধে। দুজনের সম্মতিতেই ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক গড়ে ওঠায় সেখানে কোনো অপরাধ দেখতে পাওয়া যাচ্ছে না। ওই মহিলার উকিলরাও ধর্ষণের অভিযোগের স্বপক্ষে জোরালো যুক্তি খাড়া করতে পারছেন না।

আমেরিকার বিচারক ড্যানিয়েল অ্যালব্রেগাস রোনাল্ডোকে এই মামলা থেকে মুক্তি দেওয়ার জন্য সুপারিশ করেছেন। তিনি চান ক্যাথরিনের আইনজীবীরা এই মামলাটি বন্ধ করুক। অন্যদিকে এই সুপারিশের সংবাদ পেয়ে খুশি রোনাল্ডোর আইনজীবীরা। তাঁরা অ্যালব্রেগাসের সুপারিশকে স্বাগত জানিয়েছেন।

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

Related Stories

No stories found.