Super League: রিয়েল মাদ্রিদ, জুভেন্টাস, বার্সেলোনার বিরুদ্ধে তদন্ত শুরু UEFA-র

ইতালিয়ান ক্লাব জুভেন্তাস এবং দুই স্প্যানিশ জায়ান্ট রিয়েল মাদ্রিদ এবং বার্সালোনা সুপার লীগের পক্ষেই দাঁড়িয়ে। UEFAর তরফ থেকে এই ৩ ক্লাবের সুপার লীগ প্রকল্পের সাথে জড়িত থাকার বিষয়ে তদন্ত শুরু হয়েছে।
Super League: রিয়েল মাদ্রিদ, জুভেন্টাস, বার্সেলোনার বিরুদ্ধে তদন্ত শুরু UEFA-র
ফাইল ছবি সংগৃহীত

ইউরোপীয়ন ফুটবলে শোরগোল পড়ে সুপার লীগ প্রকল্প শুরু হওয়ার পর। প্রথমে ১২ টি ক্লাব মিলে এই প্রকল্প শুরু করলেও চাপে পড়ে ন'টি ক্লাব সরে দাঁড়িয়েছে। তবে এখনও পর্যন্ত ইতালিয়ান ক্লাব জুভেন্তাস এবং দুই স্প্যানিশ জায়ান্ট রিয়েল মাদ্রিদ এবং বার্সালোনা সুপার লীগের পক্ষেই দাঁড়িয়ে আছে। উয়েফার তরফ থেকে এই তিন ক্লাবের সুপার লীগ প্রকল্পের সাথে জড়িত থাকার বিষয়ে একটি তদন্ত শুরু করা হয়েছে।

১৮ ই এপ্রিল সুপার লীগ প্রকল্প সামনে আনা হয়। যার নেপথ্য ছিলো এই তিন ক্লাব, জুভেন্তাস, রিয়েল এবং বার্সা। গত শুক্রবার উয়েফার পক্ষ থেকে এই তিন ক্লাব সুপার লীগ থেকে সরে না দাঁড়ালে তাদের বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেবার ইঙ্গিত দেওয়া হয়েছিলো। ইতালিয়ান ফুটবল ফেডারেশনের পক্ষ থেকেও জুভেন্তাসকে জানানো হয় সুপার লীগ থেকে সরে না দাঁড়ালে তাদের সিরি আ থেকে বাদ দেওয়া হতে পারে।

বুধবার উয়েফার তরফে এক বিবৃতিতে জানানো হয়, "উয়েফা শৃঙ্খলা সংক্রান্ত নিয়মবিধির ৩১(৪) ধারা অনুসারে উয়েফার নীতি এবং শৃঙ্খলা পরিদর্শককে সুপার লীগে জড়িয়ে থাকা তিন ক্লাব জুভেন্তাস, রিয়েল মাদ্রিদ এবং বার্সালোনার বিরুদ্ধে তদন্ত শুরু করতে বলা হয়েছে। তার কারণ এই তিন ক্লাব উয়েফার আইনী কাঠামো লঙ্ঘন করেছে।"

উয়েফার হুমকিতে পড়ে ছয় ইংলিশ ক্লাব ম্যান সিটি, ম্যান ইউ, চেলসি, লিভারপুল, আর্সেনাল ও টটেনহ্যাম এবং দুই ইতালিয়ান ক্লাব ইন্টার মিলান ও এসি মিলান এবং স্প্যানিশ ক্লাব অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদ আগেই সুপার লীগ থেকে সরে দাঁড়িয়েছে। উয়েফার সাথে তারা নতুনভাবে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ হয়েছে।

কিন্তু রিয়াল, বার্সা ও জুভেন্টাস উয়েফার চাপ উপেক্ষা করেও সুপার লীগে নিজেদের নাম রেখেছে। তারা এক যৌথ বিবৃতিতে জানায়, প্রাথমিক যে ধাক্কা খেয়েছে সুপার লিগে তাতে এ সম্পর্কে গঠনমূলক আলোচনা বা পরামর্শ করা যেতে পারে । তবে প্রকল্প বাতিলের কোনও প্রশ্নই নেই। সুপার লীগ বাতিল করা ফুটবলের পক্ষে দায়িত্বহীন একটা কাজ হবে।

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in