Sunil Chetri: পেলের রেকর্ড ভেঙেও কোনো তুলনা চাইছেন না সুনীল ছেত্রী

ভারত অধিনায়ক সুনীল ছেত্রী যদিও জানিয়েছেন যে তিনি সর্বোচ্চ স্কোরারদের তালিকায় পেলেকে পেছনে ফেলাকে খুব বেশি গুরুত্ব দেবেন না।
Sunil Chetri: পেলের রেকর্ড ভেঙেও কোনো তুলনা চাইছেন না সুনীল ছেত্রী
সুনীল ছেত্রীফাইল ছবি সংগৃহীত

কিংবদন্তী পেলেকে পেছনে ফেলে বিশ্বের সেরা গোলদাতাদের তালিকায় লিওনেল মেসির থেকে মাত্র একধাপ পিছিয়ে থাকা একটি অসাধারণ অনুভূতি। ভারত অধিনায়ক সুনীল ছেত্রী যদিও জানিয়েছেন যে তিনি সর্বোচ্চ স্কোরারদের তালিকায় পেলেকে পেছনে ফেলাকে খুব বেশি গুরুত্ব দেবেন না। বরং তিনি ক্লাব বা দেশ – যার হয়েই প্রতিনিধিত্ব করুন না কেন তাঁর সেরা পারফরম্যান্স নিয়েই মনোনিবেশ করবেন।

ভারতের অধিনায়ক ছেত্রী বুধবার সাফ চ্যাম্পিয়নশিপে তার ১২৪ তম ম্যাচে স্বাগতিক মালদ্বীপের বিরুদ্ধে মালেতে তাঁর ব্যক্তিগত ৭৮ এবং ৭৯ তম গোল করে পেলে (৭৭ গোল) এবং হুসাইন সাইদ (৭৮ গোল) কে পেছনে ফেলে তৃতীয় স্থানে উঠে আসেন। তিনি এখন জাম্বিয়ার গডফ্রে চিতালুর সাথে ৭৯ গোলে তালিকায় যৌথভাবে ষষ্ঠ স্থানে আছেন। তালিকায় তার আগে মেসি (৮০ গোল), ফেরেঙ্ক পুস্কাস (হাঙ্গেরি, স্পেন) ৮৪ গোল, মোখতার দাহাতি (এমএএস) ৮৯ গোল, আলি দাই (আইআরএন) ১০৯ গোল এবং ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো (পিওআর) ১১৫ গোল করে তালিকার শীর্ষে রয়েছেন।

ছেত্রী বলেন, "দুঃখের বিষয়, পেলের খেলা দেখার জন্য আমার কাছে সেই সময়ের খুব বেশি ফুটেজ ছিল না। কিন্তু আমি যেটুকু দেখেছি, তিনি (পেলে) এমন একজন গতিশীল খেলোয়াড় ছিলেন এবং সেই সময়ে যেসব ট্যাকল অনুমোদিত ছিল সেগুলি বিবেচনা করে তিনি খুবই শক্তিশালী একজন খেলোয়াড় ছিলেন। সেই সময় ফুটবল একটু বেশি মাত্রায় শারীরিক ছিলো এবং সেই যুগে খেলে এতগুলি গোল করা এক অসাধারণ সাফল্য।

ফুটবলের কিংবদন্তী ব্রাজিলিয়ানকে ছাড়িয়ে যাওয়ার বিষয়ে তাঁকে জিজ্ঞাসা করা হলে তিনি জানান এই প্রসঙ্গে তাঁর আলাদা কোনো অনুভূতি নেই। ছেত্রী বলেন, "তার (পেলের) গোল সংখ্যা এবং পরিসংখ্যান নিজেই কথা বলে। আমি গোলসংখ্যায় তাঁকে টপকে যাওয়াতে আমি কিছুই মনে করি না। আমি এতে খুব একটা মনোযোগ দিই না। আমি আমার দলের জন্য গোল করতে পেরে খুশি। বর্তমানে আন্তর্জাতিক ফুটবলে সক্রিয় খেলোয়াড়দের তালিকায় রোনালদো এবং মেসির পরেই গোল স্কোরার হিসেবে তৃতীয় স্থানে আছেন সুনীল ছেত্রী।

ছেত্রী বলেন - "আমাদের মধ্যে কোন তুলনা করা ঠিক নয়। আমি যদি আমার দেশের জন্য গোল স্কোর করতে পারি তাহলেই আমি খুশি। আমরা সবাই খুশি যে আমাদের খেলোয়াড়রা দেশের জন্য স্কোর করছেন এবং নিজের সেরাটা দিয়ে যাচ্ছেন। তাই আমি আগেও বলেছি, কয়েক মিনিটের জন্য তাদের প্রশংসা করুন এবং এই সংখ্যাগুলো উপেক্ষা করুন।"

ভারত অধিনায়ক বলেন, প্রতিকূল পরিস্থিতিতে মালদ্বীপের বিপক্ষে তাঁদের ঘরের মাঠে জয়ের পর ভারতীয় শিবির উজ্জীবিত। তিনি বলেন যে, বাংলাদেশ এবং শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ড্রয়ের পর আমাদের ওপর চাপ বেড়েছিলো। এই চাপের মুখ থেকে বেরিয়ে এসেই নেপাল ও মালদ্বীপের বিপক্ষে জিতে ফাইনালে উঠতে হয়েছে।

তিনি বলেন, প্রথম দুই ম্যাচে হতাশাজনক পারফরম্যান্স সত্ত্বেও তরুণদের মনোবল ধরে রাখতে সাহায্য করেছে দলের সিনিয়র ফুটবলাররা এবং যার ফলে টুর্নামেন্টে আমরা ফিরে আসতে পেরেছি।

তিনি বলেন, প্রথম দুই ম্যাচে হতাশাজনক পারফরম্যান্সের প্রধান কারণ হল খেলোয়াড়রা একসঙ্গে অনেক ম্যাচ খেলেনি এবং তাই সঠিক সমন্বয় করতে পারেনি। তিনি বলেন, বাংলাদেশের বিপক্ষে ভারতীয় দলের শুরুটা ভালো হয়নি এবং শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে তারা একটু ভালো খেলেও তারা অনেক সুযোগ হাতছাড়া করেছে। তিনি বলেন, নেপালের বিপক্ষে ১-০ গোলের জয়ে আমরা মনোবল ফিরে পাই এবং মালদ্বীপের বিপক্ষে ম্যাচে আমাদের পারফরমেন্স বেশ ভালো। আমরা ধীরে ধীরে সঠিক সমন্বয় খুঁজে পাচ্ছি।

শুক্রবার নেপালের বিরুদ্ধে ভারতের আসন্ন সাফ ফুটবল ফাইনাল সম্পর্কে ছেত্রী বলেন, নেপাল টুর্নামেন্টের সেরা দল। যদিও তাদের কোন শীর্ষ তারকা নেই। "তারা খুব ভালো দল এবং যদিও তারা কখনো SAFF শিরোপা জিততে পারেনি, তবুও এটি একটি কঠিন ম্যাচ হবে এবং আমাদের তাদের বিরুদ্ধে ভালো ফুটবল খেলতে হবে।"

এর আগে ভারত সাতবার সাফ শিরোপা জিতেছে এবং শুক্রবার শিরোপা জয়ের ফেভারিট।

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

Related Stories

No stories found.