IPL: 'আমি হতবাক ও হতাশ': ধারাবাহিকভাবে ভালো প্রদর্শন করা ভারতীয় পেসার অবিক্রিত!

সন্দীপ শর্মা বলেন, "কেন আমি অবিক্রিত রয়ে গেলাম জানি না। এমনটা আমি আশা করিনি। ঘরোয়া ক্রিকেটে ভাল পারফর্ম করছি। রঞ্জি ট্রফির শেষ রাউন্ডেও ৭ উইকেট নিয়েছিলাম আমি। মুস্তাক আলিতেও ভালো করেছি।"
IPL: 'আমি হতবাক ও হতাশ': ধারাবাহিকভাবে ভালো প্রদর্শন করা ভারতীয় পেসার অবিক্রিত!

আইপিএলের মঞ্চে প্রতি মরশুমেই ধারাবাহিক ভাবে প্রদর্শন করেছেন সন্দীপ শর্মা। ঘরোয়া ক্রিকেটেও ভালো প্রদর্শন করে আসছেন। অথচ সদ্য শেষ হওয়া আইপিএল-২০২৩ এ অবিক্রিত থেকে গেলেন তিনি। যে কারণে সন্দীপ রীতিমত স্তম্ভিত। ক্রিকেট ডটকমকে এক সাক্ষাৎকারে সন্দীপ জানান, তিনি 'হতবাক এবং হতাশ'।

সন্দীপ শর্মা বলেন, "আমি হতবাক ও হতাশ। কেন আমি অবিক্রিত রয়ে গেলাম জানি না। আমি এখন পর্যন্ত যত দলে ছিলাম তার জন্যই ভালো করেছি। আমি ভেবেছিলাম কিছু দল আমার জন্য বিড করবে। সত্যি কথা বলতে, এমনটা আমি আশা করিনি। ঘরোয়া ক্রিকেটে ভাল পারফর্ম করছি। রঞ্জি ট্রফির শেষ রাউন্ডেও ৭ উইকেট নিয়েছিলাম আমি। মুস্তাক আলিতেও ভালো করেছি।"

সন্দীপ শর্মা ফ্র্যাঞ্চাইজি ক্রিকেটে ধারাবাহিক ভাবে একজন উইকেট শিকারী। বিশেষ করে পাওয়ার প্লে-তে। উইকেট পার ইনিংস রেসিওতে সন্দীপ আইপিএলের ইতিহাসে সপ্তম স্থানে রয়েছেন। প্রতি ইনিংসে তাঁর উইকেটের গড় ১.০৯। ২০১৩ সাল থেকে আইপিএলে খেলে ১০৪ ম্যাচে মোট ১১৪ উইকেট ঝুলিতে পুরেছেন সন্দীপ শর্মা। ২০১৪-২০২০ পর্যন্ত প্রতি মরসুমেই ১২টি করে বা তার বেশি উইকেট ঝুলিতে পুরেছেন। ২০২৩ আইপিএলে সেই সন্দীপই রয়ে গেলেন অবিক্রিত।

আইপিএলে পাঞ্জাব কিংসের (কিংস ইলেভেন পাঞ্জাব) হয়ে অভিষেক ঘটে সন্দীপ শর্মার। এরপর সানরাইজার্স হায়দরাবাদের হয়ে খেলেছেন। চলতি বছর পাঞ্জাব কিংস আবার দলে নিয়েছিল সন্দীপকে। কিন্তু কিছুদিন আগে হওয়া নিলামের আগে তাঁকে ছেড়েও দেয়। ৫০ লক্ষ টাকার ভিত্তিমূল্যে নিলামে অংশ নিয়েছিলেন সন্দীপ। কিন্তু দশ ফ্র্যাঞ্চাইজির কোনো দলই তাঁর জন্য আগ্রহ দেখায়নি। তবে কোনো দলের বোলার ইনজুরিতে পড়লে সন্দীপ সুযোগ পেলেও পেতে পারেন। তবে সেই আশা অত্যন্ত ক্ষীণ।

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

Related Stories

No stories found.
logo
People's Reporter
www.peoplesreporter.in