FIFA World Cup 22: রোনাল্ডোর পেনাল্টিটা আসলে রেফারির বিশেষ উপহার - ঘানার কোচ

ঘানার হারের জন্য আড্ডো কার্যত রেফারিকেই দায়ী করলেন। তিনি বলেন, আমি মনে করি এটা ভুল সিদ্ধান্ত। যাঁরা ম্যাচ পরিচালনায় ছিলেন তাঁরা ভার (VAR)-র উপযুক্ত ব্যবহার করেননি।
পেনাল্টি বিতর্কে মুখ খুললেন ঘানার কোচ
পেনাল্টি বিতর্কে মুখ খুললেন ঘানার কোচ গ্রাফিক্স - সুমিত্রা নন্দন

বিশ্বকাপে বিশ্বরেকর্ড করেও সমালোচনা যেন পিছু ছাড়ছে না রোনাল্ডোর। এবার তাতে অংশ নিলেন ঘানার কোচ ওট্টো আড্ডো। তিনি বলেন রোনাল্ডোকে পেনাল্টিটা উপহার দেওয়া হয়েছে। অবশ্য এই বিষয়ে প্রতিক্রিয়া মেলেনি সি আর সেভেনের।

প্রসঙ্গত, বিশ্বকাপের প্রথম ম্যাচে নামার আগেই ইউরোপীয় ক্লাব ফুটবলে দুই ম্যাচ নির্বাসিত হয়েছেন রোনাল্ডো। সম্পর্ক ছিন্ন হয়েছে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের সাথেও। এবার বিতর্কের কেন্দ্রবিন্দু গত ম্যাচে ঘানার বিরুদ্ধে আমেরিকান রেফারির পেনাল্টির সিদ্ধান্ত। পেনাল্টি থেকে গোলও করেন পর্তুগীজ তারকা ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডো। রেফারি সিদ্ধান্তের তীব্র বিরোধিতা করেন ঘানার কোচ থেকে শুরু করে প্লেয়াররা। খেলা শেষে ঘানার কোচ বলেন, যদি কেউ গোল করে অবশ্যই সাধুবাদ জানাই। কিন্তু এটা সত্যি একটা উপহার ছিল। এর থেকে বেশি কী বলতে পারি? রেফারির তরফ থেকে ‘এক বিশেষ উপহার’।

ঘানার হারের জন্য আড্ডো কার্যত রেফারিকেই দায়ী করলেন। তিনি বলেন, আমি মনে করি এটা ভুল সিদ্ধান্ত। যাঁরা ম্যাচ পরিচালনায় ছিলেন তাঁরা ভার (VAR)-র উপযুক্ত ব্যবহার করেননি। আমাদের ডিফেন্ডার মহম্মদ সালিসুর সাথে রোনাল্ডোর তেমন সংঘর্ষ হয়নি যাতে পেনাল্টি দিতে হয়।

অন্যদিকে ওই বিতর্কিত পেনাল্টিতে গোল করার ফলে বিশ্বের প্রথম পুরুষ ফুটবলার হিসেবে পাঁচটি বিশ্বকাপে গোল করার রেকর্ড গড়লেন রোনাল্ডো। বিশ্বকাপের পর পর চার আসরে গোল করার নজির রয়েছে ফুটবল সম্রাট পেলে (১৯৫৮, ১৯৬২, ১৯৬৬, ১৯৭০), জার্মানির মিরোস্লাভ ক্লোজে (২০০২, ২০০৬, ২০১০, ২০১৪) এবং উই সিলারের (১৯৫৮, ১৯৬২, ১৯৬৬, ১৯৭০)। ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডো ছাড়িয়ে গেলেন তাঁদের।

পেনাল্টি বিতর্কে মুখ খুললেন ঘানার কোচ
FIFA World Cup 22: সাম্বার ছন্দেই ফুটবল খেললো ব্রাজিল, তবে নেইমারের চোটে শঙ্কায় সেলেকাওরা

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

Related Stories

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in