Roland Garros: ক্যাসপের রুডকে হারিয়ে ১৪ তম ফরাসী ওপেন জিতলেন 'ক্লে কোর্টের রাজা' নাদাল

এই জয়ের সাথে সাথেই বর্ষীয়ান টেনিস তারকা হিসেবে রোলাঁ গারোর খেতাব জয়ের রেকর্ড গড়লেন 'ক্লে কোর্টের রাজা' নাদাল।
Roland Garros: ক্যাসপের রুডকে হারিয়ে ১৪ তম ফরাসী ওপেন জিতলেন 'ক্লে কোর্টের রাজা' নাদাল
রাফায়েল নাদাল ছবি - সংগৃহীত

ক্যাসপের রুডকে স্ট্রেট সেটে হারিয়ে ১৪ তম ফরাসী ওপেন জিতলেন স্প্যানিশ কিংবদন্তী রাফায়েল নাদাল। রেকর্ড ২২ তম মেজর জয়ের ম্যাচে নরওয়ের প্রথম টেনিস খেলোয়াড় হিসেবে কোনো গ্র্যান্ডস্ল্যামের ফাইনাল খেলতে নামা ক্যাসপেরকে ৬-৩, ৬-৩, ৬-০ সেটে হারালেন রাফা। এই জয়ের সাথে সাথেই বর্ষীয়ান টেনিস তারকা হিসেবে রোলাঁ গারোর খেতাব জয়ের রেকর্ড গড়লেন 'ক্লে কোর্টের রাজা' নাদাল।

রবিবাসরীয় ফাইনালে নামার আগে রাফায়েল নাদাল বলেছিলেন তিনি এই ম্যাচ হারতে চান। তবে একটাই শর্তে। তাঁকে একটা নতুন বাঁ পা দিতে হবে। চোটে জর্জরিত বাঁ পা নিয়ে নাদালকে যে দারুণ ভোগান্তি পোহাতে হচ্ছে তা আর বলার অপেক্ষা রাখেনা। দু সপ্তাহ আগেই ইতালিয়ান ওপেনের কোয়ার্টার ফাইনালে হেরে খোঁড়াতে খোঁড়াতে বেরিয়ে যাচ্ছিলেন পুরুষদের সিঙ্গলসে সবচেয়ে বেশি গ্র্যান্ড স্ল্যাম জয়ী তারকা। নাদালের চোট দেখে কার্যত কেউ কল্পনাই করতে পারছিলেন না তিনি রোলাঁ গারোতে অংশ গ্রহণ করতে পারবেন। কিন্তু লাল মাটির প্রতি রাফার যে এক বিশেষ টান। সেই টানেই তিনি চোটের তোয়াক্কা না করেই ফিরে আসেন এবং আবারও একবার প্রমাণ করলেন কেনো তিনি ক্লে কোর্টের রাজা।

২০০৫ সালে ১৯ বছর বয়সে প্রথম ফরাসী ওপেন জিতেছিলেন নাদাল। তখন রুডের বয়স ছিলো ছয় বছর।আর আজ নিজের আইকনের প্রতিপক্ষ এই নরওয়ের টেনিস তারকা। ২০০৮ সালে অস্ট্রেলিয়ান ওপেনে নাদালের হেরে যাওয়ার সময় টিভির সামনে দাঁড়িয়ে চোখের জল মুছেছিলেন রুড। ২৩ বছর বয়সে এসে তিনিই রোলাঁ গারোর ফাইনালে নাদালের বিপক্ষে খেললেন। অভিজ্ঞ নাদালের বিপক্ষে বিশেষ কিছু করে দেখাতে না পারলেও পুরো টুর্নামেন্ট জুড়ে রুডের পারফর্ম্যান্সকে কুর্নিশ জানিয়েছেন নেটিজেনরা।

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

Related Stories

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in