ISL: হায়দারাবাদের শেষ মুহূর্তের গোলে জয় হাতছাড়া এস সি ইস্টবেঙ্গলের
এস সি ইস্টবেঙ্গলের ট্যুইটার হ্যান্ডেলের সৌজন্যে

ISL: হায়দারাবাদের শেষ মুহূর্তের গোলে জয় হাতছাড়া এস সি ইস্টবেঙ্গলের

নির্ধারিত ৯০ মিনিট পর্যন্ত ১-০ ব্যবধানে এগিয়ে ছিলো লাল-হলুদ বাহিনী। শেষে যোগ করা সময়েই কপাল পুড়লো রবি ফাউলারের। হায়দরাবাদ অধিনায়ক এরিডানের গোলে সমতা ফিরে পায় ম্যানুয়াল মার্কুইজ। গুরুত্বপূর্ণ জয় হাতছাড়া করে এক পয়েন্ট নিয়েই সন্তুষ্ট থাকতে হলো এসসি ইস্টবেঙ্গলকে।

গোয়ার তিলক ময়দান স্টেডিয়ামে ফিরতি লীগের ম্যাচে হায়দরাবাদের মুখোমুখি হয় এসসি ইস্টবেঙ্গল। প্রথম লীগের ম্যাচে লাল-হলুদরা ৩-২ ব্যবধানে হেরেছিলো হায়দরাবাদের কাছে। আজকের ম্যাচে জয় নিয়ে তার প্রতিশোধ নিতে মাঠে নেমেছিলো কলকাতার ক্লাবটি। তবে জয়ের খুব কাছাকাছি থেকেও তিন পয়েন্টের পরিবর্তে এক পয়েন্ট নিয়ে ফিরতে হয়।

এদিন গোলশূন্য প্রথমার্ধের পর দ্বিতীয়ার্ধের ৫৯ মিনিটে গোলের দেখা পায় ইস্টবেঙ্গল। সার্থকের পাঠানো লং বল ব্রাইট এনোবেখায়ার দিকে বাড়িয়ে দেয় এন্থনি পিলকিংটন। সেই বল জালে জড়াতে কোনো ভুল করেননি ইস্টবেঙ্গলের নাইজেরিয়ান ফরোয়ার্ড ব্রাইট এনোবেখায়ার।

ইস্টবেঙ্গল যখন জয়ের খুব কাছাকাছি, তখনই হায়দরাবাদ অধিনায়ক তাঁর কাজটি করে দেন। রোহিত দানু ডি বক্সের ভেতরে বল দেন ফ্রান সান্দাজাকে। ফ্রান সান্দাজা সেই বল পাঠান স্প্যানিশ ফরোয়ার্ড এরিডানেকে। আর হায়দরাবাদ অধিনায়ক গোল করে দলকে হারের হাত থেকে রক্ষা করেন।

এদিন ম্যাচের একদম শেষ মুহূর্তে এসে লাল কার্ড দেখেন ৬৭ মিনিটে জোয়েল চিয়ানেসের বদলি হিসেবে নামা মহম্মদ ইয়াসির।

এই ম্যাচে এক পয়েন্ট নিয়ে লীগ টেবিলের তৃতীয় স্থানে হায়দরাবাদ। ১৭ ম্যাচে নিজামদের সংগ্রহ ২৪ পয়েন্ট। অন্যদিকে ১৭ ম্যাচে ১৭ পয়েন্ট নিয়ে লীগ টেবিলের নবম স্থানে এসসি ইস্টবেঙ্গল।

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in