IPL: রোমহর্ষক ম্যাচে মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সকে ২ উইকেটে হারালো আরসিবি

মুম্বইয়ের বিরুদ্ধে ২ উইকেটে জয় নিয়ে আইপিএল ২০২১ এর শুভ সূচনা করলো বিরাট বাহিনী। বল হাতে পাঁচ উইকেটের পর এবার ব্যাট হাতেও শেষ বলে জয়সূচক রানটি এলো হার্শেল পাটেলের ব্যাট থেকে।
IPL: রোমহর্ষক ম্যাচে মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সকে ২ উইকেটে হারালো আরসিবি
মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের ট্যুইটার হ্যান্ডেলের সৌজন্যে

রোমহর্ষক ম্যাচে জয় পেলো আরসিবি। মুম্বইয়ের বিরুদ্ধে ২ উইকেটে জয় নিয়ে আইপিএল ২০২১ এর শুভ সূচনা করলো বিরাট বাহিনী। বল হাতে পাঁচ উইকেটের পর এবার ব্যাট হাতেও শেষ বলে জয়সূচক রানটি এলো হার্শেল পাটেলের ব্যাট থেকে। কোহলি-ম্যাক্সওয়েল দলকে এগিয়ে নিয়ে গেলেও শেষ মুহূর্তে ধুঁকতে থাকা আরসিবিকে কার্যত একা হাতে উদ্ধার করলেন প্রোটিয়া মহাতারকা এবি ডিভিলিয়ার্স।

দ্বিতীয় দফায় এদিন আরসিবির হয়ে কোহলির সাথে ওপেন করতে নামেন ওয়াশিংটন সুন্দর। তবে সুন্দর ১৬ বল খেলে মাত্র ১০ রানই যোগ করতে পারেন দলের স্কোর বোর্ডে। এরপর অভিষেক ম্যাচে রজত পাটিদার ৮ রান করে বোল্টের শিকার হন।

শুরুতে দু উইকেট হারানোর পর দলকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার ভার নিজেদের কাঁধে তুলে নেয় বিরাট ও ম্যাক্সওয়েল জুটি। দুজনে মিলে সুন্দর ভাবেই দলকে এগিয়ে নিয়ে যেতে থাকেন। কিন্তু দলের স্কোর যখন ৯৮ তখন কোহলি ২৯ বলে ৩৩ রানের ইনিংস খেলে বুমরাহর শিকার হন। এর এক ওভার পরেই ২৮ বলে ৩৯ রান করে ফিরে যান ম্যাক্সওয়েলও।

কোহলি ও ম্যাক্সওয়েল ফিরে যাওয়ার পর একের পর এক উইকেট হারাতে থাকে আরসিবি। একদিকে ডিভিলিয়ার্স দাঁড়িয়ে থাকলেও শহবাজ আহমেদ(১),ড্যানিয়েল ক্রিশ্চিয়ানরা(১) হতাশ করে ফিরে যান। কাইল জেমিসন ৪ রান করে রান আউট হয়ে ফিরে যান। তবে ধুঁকতে থাকা দলকে কার্যত একা হাতেই উদ্ধার করলেন আরসিবির বহু যুদ্ধের লড়াকু সৈনিক এবি ডিভিলিয়ার্স। তার ২৭ বলে ৪৮ রানের ইনিংস সাজানো রয়েছে ৪ টি বাউন্ডারি এবং ২ টি ওভার বাউন্ডারির মাধ্যমে। শেষ ওভারে রান আউট হয়ে ফিরে গেলেও ডিভিলিয়ার্স দলকে জয়ের দোরগোড়ায় রেখে যান। তবে শেষ মুহূর্তে রোমহর্ষক পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়। কিন্তু আরসিবিকে হতাশ করেননি হার্শেল পাটেল।

এদিন টসে জিতে প্রথমে বল করার সিদ্ধান্ত নেয় আরসিবি অধিনায়ক বিরাট কোহলি। মুম্বই ব্যাট করতে নেমে শুরুতে তাদের ওপেনার তথা অধিনায়ক রোহিত শর্মাকে হারায়। রোহিত ১৯ রান করে রান আউট হয়ে ফিরে যান। তবে এরপর ক্রিস লিন এবং সূর্যকুমার যাদব জুটি দলকে এগিয়ে নিয়ে যেতে থাকেন। সূর্যকুমার যাদব ২৩ বলে ৩১ রান করেন এবং লিন খেলেন ৩৫ বলে ৪৯ রানের ইনিংস।

সূর্যকুমার এবং লিন ফিরে যাওয়ার পর ছন্দপতন ঘটে মুম্বইয়ের। ইশান কিশান ১৯ বলে ২৮ রান করলেও হার্দিক পান্ডিয়া (১৩),ক্রুনাল পান্ডিয়া(৭), কায়রন পোলার্ডরা(৭)বেশিক্ষণ দাঁড়াতে পারেনি। নির্ধারিত ২০ ওভারে ৯ উইকেট হারিয়ে ১৫৯ রান সংগ্রহ করে তারা।

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in