IPL: দিল্লিকে হারিয়ে শেষ হাসি মহেন্দ্র সিং ধোনির চেন্নাইয়ের

রান তাড়া করতে নেমে রবিন উথাপ্পা, ঋতুরাজ গায়কোয়াডের অনবদ্য অর্ধশতরানের পর শেষ ওভারে ত্রাতা হন স্বয়ং অধিনায়ক ধোনি। দু বল হাতে রেখেই দিল্লির দেওয়া ১৭২ রানের লক্ষ্য মাত্রা টপকে গেলো হলুদ বাহিনী।
IPL: দিল্লিকে হারিয়ে শেষ হাসি মহেন্দ্র সিং ধোনির চেন্নাইয়ের
চেন্নাই সুপার কিংস ছবি চেন্নাই সুপার কিংস-এর ট্যুইটার হ্যান্ডেলের সৌজন্যে

রোমহর্ষক ম্যাচে শেষ হাসি হাসলো মহেন্দ্র সিং ধোনির চেন্নাই সুপার কিংস। প্লে অফের প্রথম কোয়ালিফায়ার ম্যাচে দিল্লিকে ৪ উইকেটে হারিয়ে নবম বারের জন্য আইপিএলের ফাইনালের টিকিট পেলো সিএসকে।

রান তাড়া করতে নেমে রবিন উথাপ্পা এবং ঋতুরাজ গায়কোয়াডের অনবদ্য অর্ধশতরানের পর শেষ ওভারে ত্রাতা হয়ে উঠলেন স্বয়ং অধিনায়ক ধোনি। দু বল হাতে রেখেই দিল্লির দেওয়া ১৭২ রানের লক্ষ্য মাত্রা টপকে গেলো হলুদ বাহিনী। ৩ টি বাউন্ডারি এবং ১ টি ওভার বাউন্ডারির মাধ্যমে ৬ বলে ১৮* রানের অনবদ্য ইনিংস খেলে টান টান উত্তেজনার ম্যাচে দলকে জয়ের স্বাদ এনে দিলেন চেন্নাই অধিনায়ক।

দ্বিতীয় দফায় ব্যাট করতে নেমে ফাফ ডু প্লেসি (১) শুরুতেই ফিরে যাওয়ার পর প্রাথমিক ধাক্কা কাটিয়ে দলকে এগিয়ে নিয়ে যান ঋতুরাজ গায়কোয়াড এবং রবিন উথাপ্পা। তিন নম্বরে ব্যাট করতে নেমে এদিন জ্বলে ওঠেন উথাপ্পা। ৪৪ বলে ৬৩ রান করেন তিনি। ঋতুরাজের ব্যাটে আসে ৫০ বলে ৭০ রানের দুরন্ত ইনিংস।

তবে উথাপ্পা ফিরে যাওয়ার পরেই পর পর উইকেট হারিয়ে চাপের মধ্যে পড়েছিলো চেন্নাই। মিডল অর্ডারে শার্দুল ঠাকুর (০), অম্বতি রায়ডু (১), মঈন আলিরা (১৬) দ্রুত ফিরে যান। ঋতুরাজ গায়কোয়াড থাকলেও শেষ মুহূর্তে তিনিও ফিরে যান। অবশেষে ত্রাতা হয়ে ওঠেন অভিজ্ঞ ধোনি। দলকে ফাইনালে তুলে তবেই মাঠ ছাড়েন সিএসকে অধিনায়ক।

দুবাই ইন্টারন্যাশনাল ক্রিকেট স্টেডিয়ামে এই ম্যাচে টসে জিতে প্রথমে বল করার সিদ্ধান্ত নেয় চেন্নাই অধিনায়ক মহেন্দ্র সিং ধোনি। প্রথম দফায় ব্যাট করে নির্ধারিত ২০ ওভারে ৫ উইকেটের বিনিময়ে ১৭২ রান সংগ্রহ করে দিল্লি ক্যাপিটালস। শিখর ধাওয়ান(৭),শ্রেয়স আয়ার(১),অক্ষর প্যাটেলরা ব্যর্থ হলেও পৃথ্বী শ এবং ঋষভ পন্থের অর্ধশতরানের দৌলতে বড় রানের দিকে এগিয়ে যায় দিল্লি।

পৃথ্বী শ ৩৪ বলে ৬০ রানের দুরন্ত ইনিংস খেলেন। তাঁর ইনিংস সাজানো রয়েছে ৭ টি বাউন্ডারি এবং ৩ টি ওভার বাউন্ডারির মাধ্যমে। এছাড়াও দিল্লি অধিনায়ক ঋষভ পন্থ ৩৫ বলে ৫১* রানে অপরাজিত থাকেন। শেষের দিকে ২৪ বলে ৩৭ রানের গুরুত্বপূর্ণ ইনিংস খেলেন শিমরন হিটমায়ারও।

চেন্নাইয়ের হয়ে এই ম্যাচে ৪ ওভারে মাত্র ২৯ রান দিয়ে জোড়া উইকেট তুলে নিয়েছেন অজি পেসার জস হেজেলউড। এছাড়া একটি করে উইকেট নিয়েছেন রবীন্দ্র জাদেজা, মঈন আলি এবং ডোয়েন ব্র্যাভো।

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

Related Stories

No stories found.