IPL: ২১ বল বাকী থাকতেই ৭ উইকেটে জয় তুলে নিলো দিল্লি
দিল্লি ক্যাপিটালসের ট্যুইটার হ্যান্ডেলের সৌজন্যে

IPL: ২১ বল বাকী থাকতেই ৭ উইকেটে জয় তুলে নিলো দিল্লি

ব্যাট হাতে তান্ডব চালালেন পৃথ্বী শ। নাইট বোলারদের নিয়ে ছেলেখেলা করে ৪১ বলে ৮২* রানের ইনিংস খেললেন এই দিল্লি ওপেনার। কেকেআরের দেওয়া ১৫৫ রানের লক্ষ্য মাত্রা ৩.৩ ওভার বাকি থাকতেই টপকে গেলো ঋষভরা।

ব্যাট হাতে তান্ডব চালালেন পৃথ্বী শ। নাইট বোলারদের নিয়ে কার্যত ছেলেখেলা করে ৪১ বলে ৮২* রানের মারকাটারি ইনিংস খেললেন এই দিল্লি ওপেনার। কেকেআরের দেওয়া ১৫৫ রানের লক্ষ্য মাত্রা ৩.৩ ওভার বাকি থাকতেই টপকে গেলো ঋষভরা। ৭ উইকেটে দুরন্ত জয়ের সাথে আইপিএলের পয়েন্ট টেবিলের দ্বিতীয় স্থানে উঠে এসেছে দিল্লি।

আমেদাবাদে কলকাতার দেওয়া লক্ষ্য মাত্রা তাড়া করতে নেমে দিল্লিকে কার্যত জয়ের দোরগোড়ায় পৌঁছে দেন দুই ওপেনার। পৃথ্বী শ এবং শিখর ধাওয়ান জুটি প্রথম উইকেটে যোগ করেন ১৩২ রান। শিখর ৪৭ বলে ৪৬ রান করেন। অন্যদিকে পৃথ্বী শ ৪১ বলে ৮২ রানের বিধ্বংসী ইনিংস খেলেন। পৃথ্বীর ইনিংস সাজানো রয়েছে ১১ টি বাউন্ডারি এবং ৩ টি ওভার বাউন্ডারির মাধ্যমে।

ওপেনার জুটি ফিরে যাওয়ার পর ঋষভ পন্থ ১৬ রান করে আউট হয়ে যান। তবে আর উইকেট খোয়াতে হয়নি দিল্লিকে। মার্কাস স্টয়নিস(৬*)সহজভাবেই ম্যাচ শেষ করে ফেরেন। নাইটদের হয়ে এই ম্যাচে তিনটি উইকেটই নেয় অজি পেসার প্যাট কামিন্স।

মোতেরায় টসে জিতে এই ম্যাচে প্রথমে বল করার সিদ্ধান্ত নেয় দিল্লি অধিনায়ক ঋষভ পন্থ। ব্যাট করতে নেমে শুরুতেই ধাক্কা লাগে কলকাতা শিবিরে। ওপেনার নীতিশ রানা ফিরে যান ১৫ রানে। রাহুল ত্রিপাঠি হাল ধরলেও ১৯ রান করে ফিরে যান। ৬৯ রানে দু উইকেট হারানোর পর মুহূর্তেই জোড়া ধাক্কা খায় কেকেআর। ললিত যাদব এক ওভারেই তুলে নেয় জোড়া উইকেট। অধিনায়ক ইয়ন মর্গ্যান এবং সুনীল নারিন রানের খাতা না খুলেই প্যাভিলিয়নের রাস্তা দেখেন। শুভমন গিল সুন্দর ভাবে এগিয়ে গেলেও ৩৮ বলে ৪৩ রানে আভেস খানের শিকার হন।

কেকেআরকে আজ ভরা ডুবির হাত থেকে রক্ষা করে সম্মানজনক জায়গায় নিয়ে গেলেন আন্দ্রে রাসেল। রাসেল ২৭ বলে ৪৫* রানে অপরাজিত থাকেন। তার ইনিংস সাজানো রয়েছে ২ টি বাউন্ডারি এবং ৪ টি বিশাল ওভার বাউন্ডারির মাধ্যমে। প্যাট কামিন্স অপরাজিত থাকেন ১১* রানে।

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in