FIFA World Cup 22: অঘটন! ৩৬ ম্যাচে অপরাজিত থাকা মেসিদের অশ্বমেধের ঘোড়া থামালো সৌদি আরব

প্রথমার্ধে একের পর এক আক্রমণে সৌদি আরবকে নাজেহাল করে তোলে ফিফা র‍্যাঙ্কিংয়ের তৃতীয় স্থানে থাকা দেশটি। গোলের জন্য বেশিক্ষণ অপেক্ষাও করতে হয়নি দু'বারের বিশ্বচ্যাম্পিয়নদের।
গোলের পর উচ্ছ্বাস সৌদি আরবের প্লেয়ারদের
গোলের পর উচ্ছ্বাস সৌদি আরবের প্লেয়ারদেরছবি - ফিফা বিশ্বকাপের ট্যুইটার হ্যান্ডেল

অঘটন! কাতার বিশ্বকাপের প্রথম অঘটন ঘটে গেল লুসাইল স্টেডিয়ামে। হয়তো বা চলতি বিশ্বকাপে এর চেয়ে বড় অঘটন আর ঘটবে না। টানা ৩৬ ম্যাচে অপরাজিত থাকা লিওনেল স্কালোনির অশ্বমেধের ঘোড়া থামালো সৌদি আরব। ফিফা র‍্যাঙ্কিংয়ে আর্জেন্টিনার থেকে ৪৯ ধাপ পিছিয়ে থাকা সৌদির কাছে ২-১ গোলে হেরে বিশ্বকাপের অভিযান শুরু করলেন লিওনেল মেসিরা। আলবিসেলেস্তেদের এই প্রথম হারালো সৌদি আরব। আর এই জয় বহুদিন পর্যন্ত বিশ্বকাপের ইতিহাসে অক্ষত থাকবে। শেষবার ১৯৯০ সালে বিশ্বকাপে নিজেদের উদ্বোধনী ম্যাচে হেরেছিল আর্জেন্টিনা।

লুসাইল স্টেডিয়ামে শুরুতেই যে ঝড় তুলেছিলেন লিওনেল মেসিরা তা দেখে হয়তো অনেক আর্জেন্টিনা সমর্থক মনে মনে ঠিক করে রেখেছিলেন স্কোর লাইন হবে ৫-০ কিংবা ৬-০। প্রথমার্ধে একের পর এক আক্রমণে সৌদি আরবকে নাজেহাল করে তোলে ফিফা র‍্যাঙ্কিংয়ের তৃতীয় স্থানে থাকা দেশটি। গোলের জন্য বেশিক্ষণ অপেক্ষাও করতে হয়নি দু'বারের বিশ্বচ্যাম্পিয়নদের। ১০ মিনিটের মাথায় পেনাল্টি উপহার পায় আর্জেন্টিনা। গোল করেন মেসি। প্রথম আর্জেন্টাইন তারকা হিসেবে টানা চার বিশ্বকাপে গোল করার রেকর্ড গড়েন বাঁ পায়ের জাদুকর।

১-০ ব্যবধানে এগিয়ে যাওয়ার পর ডি মারিয়া, মার্টিনেজদের ঝড় আরও তীব্র হয়ে ওঠে। প্রথমার্ধে সৌদির জালে আরও তিন বার বল জড়ায় স্কালোনির স্টুডেন্টসরা। তবে অফ সাইডের কারণে মেসি, মার্টিনেজদের গোল বাতিল হয়ে যায়। ঘটনাবহুল প্রথমার্ধের শেষে আর্জেন্টিনা এগিয়ে থাকে ১-০ ব্যবধানেই।

দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতেই যেনো সবকিছু বদলে যায়। ৪৯ মিনিটের মাথায় প্রথমবার শট অন টার্গেটে বল রাখে সৌদি। সালেহ-আল শেহরির সেই শটের জবাব দিতে পারেননি এমিলিয়ানো মার্টিনেজ। সমতা ফিরে পায় সৌদি আরব। এই গোলের পাঁচ মিনিট বাদেই অবিশ্বাস্য ভাবে আর্জেন্টিনাকে পেছনে ফেলে লীড পায় সৌদি। বিশ্বমানের এক গোলে সৌদি আরবকে এগিয়ে দেন সালেম আল-দাওসেরি। লুসাইল স্টেডিয়াম ফেটে পড়ে সৌদি সমর্থকদের গলার আওয়াজে।

এগিয়ে যাওয়া সৌদি আরব এরপর যেন জান লাগিয়ে দেন জয়ের জন্য। আলবিসেলেস্তেরা বারবার আক্রমণ করেও কাঙ্খিত গোলের দেখা পায়নি। সৌদির তেকাঠির নীচে প্রাচীর হয়ে দাঁড়িয়েছিলেন মহম্মদ আল-ওয়েসিস। মেসি-ডিমারিয়া-মার্টিনেজদের সমস্ত প্রয়াসকে ব্যর্থ করে রেফারির শেষ বাঁশি বাজানো পর্যন্ত গোল বার আগলে রাখেন তিনি।

গোলের পর উচ্ছ্বাস সৌদি আরবের প্লেয়ারদের
FIFA World Cup 22: মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের গোলদাতা টিমোথি রাষ্ট্রপতির পুত্র! বিস্তারিত জানুন

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

Related Stories

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in