ফিফার চিঠি! ভারত থেকে সরতে পারে মেয়েদের যুব বিশ্বকাপ, নির্বাসনে যেতে পারে দেশের ফুটবল ফেডারেশন

কোনো দেশের ফুটবল ফেডারেশনে তৃতীয় পক্ষের হস্তক্ষেপ মেনে নেয়না বিশ্ব ফুটবলের সর্বোচ্চ নিয়ামক সংস্থা। ভারতে সেই পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে বলে অনুমান করছে ফিফা।
ফিফার রোষে AIFF
ফিফার রোষে AIFF ছবি সংগৃহীত

চলতি বছরের অক্টোবর মাসেই ভারতে আসর বসার কথা রয়েছে মেয়েদের অনুর্ধ্ব-১৭ ফুটবল বিশ্বকাপের। তবে সেই বিশ্বকাপ আদৌ ভারত আয়োজন করার সুযোগ পাবে কিনা তা নিয়ে তৈরি হয়েছে ঘোর সংশয়। তার কারণ, ফিফার রোষের মুখে পড়েছে ভারতের ফুটবল ফেডারেশন। আচমকাই ফিফা এবং এএফসি-র তরফ থেকে চিঠি পাঠানো হয়েছে অল ইন্ডিয়া ফুটবল ফেডারেশনকে। যেখানে সাফ জানিয়ে দেওয়া হয়েছে ফিফা কিংবা এএফসি ভারতীয় ফুটবলে তৃতীয় পক্ষের হস্তক্ষেপ মেনে নেবে না। সেক্ষেত্রে বড় শাস্তির মুখে পড়তে হতে পারে। নির্বাসনেও পাঠানো হতে পারে ফেডারেশনকে।

ফিফা এবং এএফসি-যে অল ইন্ডিয়া ফুটবল ফেডারেশনের কাজকর্মে খুশি নয় তা স্পষ্ট। এআইএফএফ-এর অস্থায়ী সচিব সুনন্দ ধরকে চিঠি পাঠানো হয়েছে বিশ্ব ফুটবল এবং এশিয়ান ফুটবলের গভর্নিং বডির তরফ থেকে। এই চিঠি আসার পরেই মেয়েদের যুব বিশ্বকাপের আয়োজন নিয়ে তৈরি হয়েছে আশঙ্কা।

সম্প্রতি ফিফা এবং এএফসি-র সদস্যরা দিল্লিতে ফেডারেশনের সঙ্গে বৈঠক করেছিলেন। নির্বাচন সংক্রান্ত বিভিন্ন জটিলতার বিষয়ে জানার পর তাঁরা জানিয়েছিলেন, ৭ অগস্টের মধ্যে নির্বাচন সংক্রান্ত কাজ শেষ করে ১৫ সেপ্টেম্বরের মধ্যে নির্বাচন সেরে ফেলতে হবে। তারপরেই আবার আদালত নতুন নির্বাচনের দিন ঘোষণা করায় রুষ্ঠ হয়েছে ফিফা। কোনো দেশের ফুটবল ফেডারেশনে তৃতীয় পক্ষের হস্তক্ষেপ মেনে নেয়না বিশ্ব ফুটবলের সর্বোচ্চ নিয়ামক সংস্থা। ভারতে সেই পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে বলে অনুমান করছে ফিফা।

এর আগে তৃতীয় পক্ষের হস্তক্ষেপের জন্য পাকিস্তান ফুটবল সংস্থাকে নির্বাসনে পাঠিয়েছিলো ফিফা। এবার সেই সম্ভাবনাই তৈরি হচ্ছে ভারতীয় ফুটবলে। ফেডারেশনের নির্বাচনে আদালতের হস্তক্ষেপের পরেই এবিষয়ে ভাবনাচিন্তা শুরু করে দিয়েছে ফিফা এবং এএফসি।

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

Related Stories

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in