সারদার পর এবার রোজভ্যালি কান্ডেও নাম জড়ালো ইস্টবেঙ্গলের, ক্লাবকে চিঠি সিবিআই-এর

আইএসএলের মরশুমে বারবার চিটফান্ড কান্ডে নাম জড়ানোর জন্য বেজায় চটেছে নতুন বিনিয়োগকারী সংস্থা শ্রী সিমেন্ট ।
সারদার পর এবার রোজভ্যালি কান্ডেও নাম জড়ালো ইস্টবেঙ্গলের, ক্লাবকে চিঠি সিবিআই-এর
ইস্টবেঙ্গল ক্লাবফাইল ছবি

সারদা কান্ডের স্মৃতি উস্কে আবারও চিটফান্ড কান্ডে নাম জড়ালো ইস্টবেঙ্গলের। এবার রোজভ্যালি কান্ড। ২০১৫ সালে হওয়া সারদা কান্ডে নাম জড়িয়েছিলো অধিকর্তা দেবদাস সমাজদারের। ফলস্বরূপ শতবর্ষে পা দেওয়া ক্লাবের হিসাবরক্ষককে কাটাতে হয় জেলেও। এবার শনিবার রোজভ্যালি কান্ডেও জড়িয়ে গেলো তাঁর নাম। এই বিষয়ে সিবিআইয়ের তরফ থেকে দফায় দফায় চিঠি দেওয়া হয়েছে ক্লাবটিকে।

ইস্টবেঙ্গল এখন ইন্ডিয়ান সুপার লীগ খেলছে। কোচ রবি ফাউলারের অধীনে দলটি বিশেষ কিছু করে দেখাতে পারছেনা। হতাশ লাল হলুদ সমর্থকরা। তার মাঝেই রোজভ্যালি কান্ড নতুন করে দুশ্চিন্তা বাড়িয়েছে ক্লাবটির। এর ফলে ক্ষুব্ধ হয়েছেন ক্লাবের নতুন বিনিয়োগকারী সংস্থা শ্রী সিমেন্ট। তারা চাইছে অভিযুক্ত কর্তাদের অতি শীঘ্রই ক্লাব থেকে ছেঁটে ফেলা হোক।

শুধু শনিবার নয়। ডিসেম্বর থেকেই জলঘোলা শুরু হয়েছিল। ডিসেম্বরের ২৯ তারিখ প্রথম সিবিআই চিঠি পাঠায় ক্লাবকে। দেবদাস সমাজদারের উদ্দেশ্যে লেখা এই চিঠিতে জানতে চাওয়া হয় রোজভ্যালির সঙ্গে ক্লাবের কোনো আর্থিক লেনদেন হয়েছে কিনা। সেই চিঠির কোনো উত্তর না দেওয়ায় ৫ ই জানুয়ারি সিবিআই দ্বিতীয় চিঠি পাঠায় ক্লাব সভাপতি প্রণব দাশগুপ্তকে। ইস্টবেঙ্গলের তরফ থেকে এই দুই চিঠির সত্যতা স্বীকার করা হয়েছে।

আইএসএলের মরশুমে বারবার চিটফান্ড কান্ডে নাম জড়ানোর জন্য বেজায় চটেছে নতুন বিনিয়োগকারী সংস্থা শ্রী সিমেন্ট। একসময় গৌতম কুন্ডু এবং সুদীপ্ত সেনকে চিটফান্ড কান্ডে জড়িয়ে থাকার জন্য ক্লাবের সদস্য পদ থেকে ছেঁটে ফেলা হয়। এবার রোজভ্যালি কান্ডে জড়িত কর্মকর্তাদের দ্রুত সদস্যপদ বাতিল করার আর্জি জানায় তারা।

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in