ক্ষেতমজুরের দৈনিক মজুরিতে বাংলা ১৩ নম্বরে, ৭২৬ টাকা মজুরি দিয়ে শীর্ষে কেরল

কাজের দাবিতে, বকেয়া মজুরির দাবিতে জেলায় জেলায় পদযাত্রা করছেন বামপন্থীরা। গ্রামে গ্রামে হওয়া এই পদযাত্রায় গুরুত্বপূর্ণ অংশ নিচ্ছেন ক্ষেতমজুররা।
ক্ষেতমজুরের দৈনিক মজুরিতে বাংলা ১৩ নম্বরে, ৭২৬ টাকা মজুরি দিয়ে শীর্ষে কেরল
ক্ষেতমজুরের দৈনিক মজুরিতে বাংলা ১৩ নম্বরে, ৭২৬ টাকা মজুরি দিয়ে শীর্ষে কেরলগ্রাফিক্স - আকাশ নেয়ে

কাজের দাবিতে, বকেয়া মজুরির দাবিতে জেলায় জেলায় পদযাত্রা করছেন বামপন্থীরা। গ্রামে গ্রামে হওয়া এই পদযাত্রায় গুরুত্বপূর্ণ অংশ নিচ্ছেন ক্ষেতমজুররা। যে পরিস্থিতি তাঁদের সভায় আসতে বাধ্য করছেন, সভা থেকে যে স্লোগান উঠছে, সেই পরিস্থিতিই যেন ফুটে উঠলো রিজার্ভ ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়ার সাম্প্রতিক রিপোর্টে। রিপোর্ট অনুযায়ী, ক্ষেতমজুরদের দৈনিক মজুরিতে ১৩ নম্বরে পশ্চিমবঙ্গ।

গত শনিবার প্রকাশিত রিজার্ভ ব্যাঙ্কের রাজ্যওয়াড়ি বার্ষিক স্টেট হ্যান্ডবুক রিপোর্ট বলছে, গত ১১ বছরে পশ্চিমবঙ্গের গ্রামগুলিতে ব্যাপকহারে বেড়েছে বেকারি। পশ্চিমবঙ্গের একটি বড় অংশের লোককে কাজের জন্য ভিন রাজ্যে থাকতে হয়। কিন্তু বিভিন্ন সমস্যার কারণে যাঁদের সেই উপায়ও নেই, তারা সামান্য পারিশ্রমিকের বিনিময়ে দিনমজুরের কাজের উপর নির্ভরশীল। মহিলাদের মধ্যেও দিনমজুরের কাজ করার প্রবণতা বাড়ছে।

প্রতিবছর নভেম্বর-ডিসেম্বর মাস নাগাদ 'হ্যান্ডবুক অফ স্ট্যাটিসটিকস অফ ইন্ডিয়ান স্টেট' প্রকাশ করে রিজার্ভ ব্যাংক। কিন্তু এবারই প্রথম নির্মাণ শ্রমিক, দিন মজুর, ক্ষেতমজুর ও অকৃষি শ্রমিকদের বিষয়টি রিপোর্টে উল্লেখ করেছে তারা। ২০ টি রাজ্যের তথ্য রয়েছে রিপোর্টে। এই ২০টি রাজ্যের মধ্যে ক্ষেতমজুরদের দৈনিক মজুরির নিরিখে ১৩ নম্বরে রয়েছে পশ্চিমবঙ্গ।

ক্ষেতমজুরের দৈনিক মজুরি
ক্ষেতমজুরের দৈনিক মজুরি

রিপোর্ট অনুযায়ী, ২০২১-২২ অর্থবর্ষে রাজ্যে ক্ষেতমজুরের দৈনিক আয় ছিল গড়ে ৩০৫ টাকা ৪০ পয়সা। যেখানে জাতীয় গড় ৩২৩ টাকা ২০ পয়সা। ২০ টি রাজ্যের মধ্যে পশ্চিম বঙ্গের পিছনে রয়েছে বিহার (২৯০টাকা ৩০ পয়সা), উত্তর প্রদেশ (২৮৮ টাকা), মহারাষ্ট্র(২৮৪ টাকা ২০ পয়সা), ত্রিপুরা (২৭০ টাকা), ওড়িশা (২৬৯ টাকা ৫০ পয়সা), গুজরাট(২২০ টাকা ৩০ পয়সা), মধ্যপ্রদেশ(২১৭ টাকা ৮০ পয়সা)। এই তালিকায় শীর্ষে রয়েছে বাম শাসিত কেরালা। সেখানে খেতমজুরদের দৈনিক আয় গড়ে ৭২৬ টাকা ৮০ পয়সা।  এরপর রয়েছে জম্মু কাশ্মীর (৫২৪ টাকা ৬০ পয়সা) এবং হিমাচল প্রদেশ (৪৫৭ টাকা ৬০ পয়সা)। তবে এই রিপোর্টে পৃথকভাবে মহিলা ক্ষেতমজুরদের আয়ের কথা উল্লেখ নেই।

নির্মাণ শিল্পের শ্রমিকদের দৈনিক মজুরি
নির্মাণ শিল্পের শ্রমিকদের দৈনিক মজুরি

রিপোর্টে নির্মাণ শিল্পের শ্রমিকদের আয় নিয়েও পরিসংখ্যান প্রস্তুত করেছে রিজার্ভ ব্যাঙ্ক। পশ্চিমবঙ্গে গ্রামে নির্মাণ শ্রমিকদের দৈনিক মজুরি গড়ে ৩৩৩ টাকা ৪০ পয়সা। এক্ষেত্রে জাতীয় গড় ৩৭৩ টাকা ৩০ পয়সা। এখানে ২০ টি রাজ্যের মধ্যে পশ্চিমবঙ্গের স্থান ১৬ নম্বরে। পশ্চিমবঙ্গের পিছনে আছে বিহার (৩২৮ টাকা ৪০ পয়সা), ওড়িশা (৩১৩ টাকা ৮০ পয়সা), মধ্যপ্রদেশ (২৬৬ টাকা ৭০ পয়সা) এবং ত্রিপুরা (২৫০ টাকা)।

এই তালিকাতেও দেশের শীর্ষে কেরালা। এখানে গ্রামাঞ্চলে নির্মাণ শ্রমিকদের দৈনিক মজুরি গড়ে ৮৩৭ টাকা ৭০ পয়সা। দ্বিতীয় স্থানে রয়েছেন জম্মু কাশ্মীর (৫১৯ টাকা ৮০ পয়সা) এবং তৃতীয় স্থানে রয়েছে তামিলনাড়ু (৪৭৮ টাকা ৬০ পয়সা)। বিশেষজ্ঞদের মতে, মজুরি অনেক বেশি থাকার কারণেই পশ্চিম বঙ্গ থেকে বহু লোক কাজের খোঁজে কেরালা ও জম্মু কাশ্মীরে যান।

রিপোর্ট অনুযায়ী গত ১১ বছরে সামগ্রিক ভাবেও বেকারত্ব বেড়েছে রাজ্যে। ২০০৯-১০ সালে রাজ্যে বেকারত্বের হার ছিল প্রতি হাজার জনে ১৭ জন। ২০২১ সালে তা পৌঁছেছে ৩৭ জনে। গ্রামের তুলনায় শহরে বেকারত্ব বেশি। গ্রামাঞ্চলে ২০০৯-১০ সালে বেকারত্বের হার ছিল প্রতি হাজার জনে ১৯ জন। ২০২১ সালে তা পৌঁছেছে ৩২ জনে। শহর এলাকায় ২০০৯-১০ সালে এই সংখ্যা ছিল ৩৫। ২০২১ সালে তা হয়েছে ৪৬।

ক্ষেতমজুরের দৈনিক মজুরিতে বাংলা ১৩ নম্বরে, ৭২৬ টাকা মজুরি দিয়ে শীর্ষে কেরল
'রাজপথে ক্ষোভের বিস্ফোরণ ঘটবে' - DA-র দাবিতে বিধানসভা অভিযানের ডাক রাজ্য কো-অর্ডিনেশন কমিটির

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

Related Stories

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in