Covid নিয়ন্ত্রণে সরকারের গা ছাড়া মনোভাবে অবাক: প্রধানমন্ত্রীকে খোলা চিঠি প্রাক্তন আমলাদের

কোভিড-১৯ মহামারীর দ্বিতীয় ঢেউ দেশে আছড়ে পড়ার সময় তা নিয়ন্ত্রণে গুরুত্বপূর্ণ বিষয়গুলো সমাধানের পরিবর্তে কোভিড সঙ্কটকে ঘিরে তৈরি হওয়া বর্ণনায় বেশি উদ্বিগ্ন ছিল নরেন্দ্র মোদীর নেতৃত্বাধীন সরকার।
Covid নিয়ন্ত্রণে সরকারের গা ছাড়া মনোভাবে অবাক: প্রধানমন্ত্রীকে খোলা চিঠি প্রাক্তন আমলাদের
ছবি প্রতীকী সংগৃহীত

কোভিড-১৯ মহামারীর দ্বিতীয় ঢেউ দেশে আছড়ে পড়ার সময় তা নিয়ন্ত্রণে গুরুত্বপূর্ণ বিষয়গুলো সমাধান করার পরিবর্তে কোভিড সঙ্কটকে ঘিরে তৈরি হওয়া বর্ণনা নিয়ে বেশি উদ্বিগ্ন ছিল নরেন্দ্র মোদীর নেতৃত্বাধীন সরকার। চাঞ্চল্যকর এই অভিযোগ তুলে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে খোলা চিঠি লিখলেন দেশের শতাধিক প্রাক্তন আমলা।

"India Needs Action Now" শীর্ষক প্রধানমন্ত্রীকে লেখা ওই চিঠিতে ১১৬ জন প্রাক্তন আইপিএস অফিসারের স্বাক্ষর রয়েছে। এঁদের মধ্যে রয়েছেন প্রাক্তন ক‍্যাবিনেট সচিব কে এম চন্দ্রশেখর, প্রাক্তন স্বাস্থ্য সচিব কে সুজাতা রাও, দিল্লির প্রাক্তন গভর্নর নজীব জং, দেশের প্রাক্তন নিরাপত্তা উপদেষ্টা শিবশঙ্কর মেনন। চিঠিতে তাঁরা অভিযোগ করেছেন, "রাজ‍্যগুলিতে প্রতিদিন কত নমুনা পরীক্ষা করা হচ্ছে, তার মধ্যে কত পজিটিভ, কতজন হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন, কতজন মারা যাচ্ছেন এগুলোর কোনোটা নিয়েই সঠিক তথ্য প্রকাশ‍্যে আনেনি সরকার।"

দেশে কোভিডের দ্বিতীয় ঢেউয়ের এই ভয়াবহ চেহারার জন্য প্রধানমন্ত্রী ও বিজেপির অন‍্য নেতাদের বিপুল জনগণ নিয়ে সমাবেশ করা, কুম্ভ মেলাকে দায়ী করেছেন প্রাক্তন আমলারা। তাঁদের কথায় করোনার বিস্তার রুখতে চার রাজ্য ও এক কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলের বিধানসভা নির্বাচনে প্রধানমন্ত্রী ও তাঁর দল যদি প্রচার বন্ধ রাখতেন, অন‍্য রাজনৈতিক দলগুলোও সেই উদ্যোগ নিত।

চিঠিতে লেখা হয়েছে, "অতিমারির কারণে দেশে মৃত্যুমিছিল চলছে। কিন্তু এই অসংখ্য মৃতদেহের ছবি বা স্বজনহারাদের হাহাকার বা চিকিৎসার জন্য করুণ আর্তির দৃশ্য দেখে আমরা যত না বিচলিত হচ্ছি, তার থেকে অনেক বেশি অবাকে হচ্ছি আপনার সরকারের গা ছাড়া মনোভাব দেখে।" দেশে টিকার আকাল নিয়ে তাঁরা লেখেন, "আমাদের দেশ পৃথিবীর সর্ববৃহৎ টিকা প্রস্তুতকারক দেশ। অথচ আমাদের দেশেই টিকার আকাল। এর থেকে বেদনাদায়ক আর কী হতে পারে!" অবিলম্বে সমস্ত দেশবাসীকে বিনামূল্যে টিকা দেওয়ার দাবি জানিয়েছেন তাঁরা।

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in