Sensex & Nifty: শেয়ার বাজারে রক্তক্ষরণ অব্যাহত, একদিনেই ক্ষতি প্রায় ৩ লক্ষ কোটি টাকা

বাজার বিশেষজ্ঞদের বিশ্লেষণ অনুসারে এদিন দালাল স্ট্রীটে বিনিয়োগকারীদের প্রায় ৩.১১ লক্ষ কোটি টাকা লোকসান হয়েছে। বিশ্ব বাজারের বিক্রির ধাক্কা এসেছে ভারতীয় শেয়ার বাজারেও। যার জন্য এই পতন।
ছবি প্রতীকী
ছবি প্রতীকী গ্রাফিক্স সুমিত্রা নন্দন

সপ্তাহের কেনাবেচার প্রথম দিনেই মুখ থুবড়ে পড়লো ভারতীয় শেয়ার বাজার। শেয়ার বাজার বিশেষজ্ঞদের বিশ্লেষণ অনুসারে সোমবার দালাল স্ট্রীটে বিনিয়োগকারীদের প্রায় ৩.১১ লক্ষ কোটি টাকা লোকসান হয়েছে। বিশ্ব বাজারের  বিক্রির ধাক্কা এসে পড়েছে ভারতীয় শেয়ার বাজারেও। যার জন্য এই পতন বলে জানিয়েছেন বিশেষজ্ঞরা।

সোমবার একসময় সেনসেক্স প্রায় ৮০০ পয়েন্ট নীচে চলে যায়। যদিও বাজার বন্ধের সময় সেনসেক্স ২০০.১৮ পয়েন্ট নেমে দাঁড়িয়েছে ৫৭,৯১১.১১ পয়েন্টে। গত শুক্রবার বাজার বন্ধের সময় সেনসেক্স ছিল ৫৮,১৯১.২৯ পয়েন্টে। সোমবার বাজার খোলে ৫৭,৪২৪.০৭ পয়েন্টে। এদিনের ডে হাই ৫৮,১২৫.০১ পয়েন্ট এবং ডে লো ৫৮,১৯১.২৯ পয়েন্ট।

সেনসেক্সের মত নিফটিও এদিন বন্ধ হয়েছে ৭৩.৬৫ পয়েন্টে নেমে ১৭,২৪১.০০ পয়েন্টে। গত শুক্রবার বাজার বন্ধের সময় নিফটি ছিল ১৭,৩১৪.৬৫ পয়েন্টে। যা এদিন খোলে ১৭,০৯৪.৩৫ পয়েন্টে। নিফটিতে এদিনের ডে হাই ১৭,২৮০.১৫ পয়েন্ট এবং ডে লো ১৭,০৬৪.৭০ পয়েন্ট।

শেয়ার বাজারের পতনের সঙ্গে তাল রেখে সোমবার পতন হয়েছে ভারতীয় টাকার মূল্যেও। এদিন আমেরিকান ডলারের অনুপাতে ভারতীয় টাকার দাম পড়েছে প্রায় ৩৮ পয়সা। এদিন ভারতীয় টাকার দাম পড়ে দাঁড়িয়েছে ৮২.৬২ টাকায়। যা টাকার মূল্যের সর্বকালীন নিম্নস্তর। আর্থিক বিশেষজ্ঞরা জানিয়েছেন শুধুমাত্র ২০২২ সালে ভারতীয় টাকার দাম পড়েছে প্রায় ১১ শতাংশ।

শেয়ার বাজার বিশেষজ্ঞরা জানিয়েছেন নিফটিতে ১৭,৪০০ পয়েন্টে রেসিস্ট্যান্স আছে। এই স্তর ভেঙে গেলে নিফটি পৌঁছে যেতে পারে ১৭,০০০-এর আশেপাশে এবং এর পরবর্তী স্তরে নিফটি পৌঁছতে পারে ১৬,৭৪৭ থেকে ১৬,৭৭৫ পয়েন্টে। আপাতত ১৭,০৫০-এ নিফটি সাপোর্ট আছে। যা ঘোরাফেরা করবে ১৭,০৫০ থেকে ১৭,১৫০-এর মধ্যে। যদিও ১৭,১৫০ ভেঙে গেলে বাজারে আরও একদফা বিক্রির চাপ আসবে।

সোমবারের বাজারে আইটি সেক্টরের শেয়ারের দাম মোটামুটি ঠিক থাকলেও দাম পড়েছে মিডিয়া, রিয়েলটি, কনজিউমার ড্যুরেবল, এফএমসিজি ক্ষেত্রে দাম পড়েছে সর্বাধিক।

এদিন টাটা মোটরস-এর দাম পড়েছে ৪ শতাংশ। হিরো মোটর কর্প এবং টাটা কনসিউমার-এর দাম পড়েছে ২ শতাংশ হারে। এছাড়াও দাম পড়েছে টাটা স্টীল, পাওয়ার গ্রিড, এনটিপিসি, ভারতী এয়ারটেল, বাজাজ ফিনান্স, সান ফার্মা, কোটাক ব্যাঙ্ক, আইটিসি, টাইটান, রিলায়েন্স, এইচডিএফসি, নেসলে, আইসিআইসিআই ব্যাঙ্ক প্রভৃতি শেয়ারের।

এদিন নিফটি ব্যাঙ্কে পতন হয়েছে .২৩ শতাংশ, নিফটি অটোতে .৫১ শতাংশ, নিফটি মিডিয়াতে ১.০২ শতাংশ, নিফটি ফার্মাতে .৮৩ শতাংশ, নিফটি পিএসইউ ব্যাঙ্কে ১.০০ শতাংশ এবং নিফটি প্রাইভেট ব্যাঙ্কে .২৬ শতাংশ।

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

Related Stories

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in