কোভিড মৃত্যু সংখ্যা নিয়ে রাহুল গান্ধীর ট্যুইট - জবাবে 'শকুন' বলে নজিরবিহীন আক্রমণে ডাঃ হর্ষবর্ধন

বুধবার সন্ধ্যেয় নাগাদ করা ওই ট্যুইটে কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রী হর্ষবর্ধন লেখেন – ‘লাশের রাজনীতি, কংগ্রেসের স্টাইলে। গাছ থেকে যখন শকুন ক্রমশই বিলুপ্ত হচ্ছে, তখন ভূমির শকুনরা তাদের স্বভাব আত্মস্থ করছে।
কোভিড মৃত্যু সংখ্যা নিয়ে রাহুল গান্ধীর ট্যুইট - জবাবে 'শকুন' বলে নজিরবিহীন আক্রমণে ডাঃ হর্ষবর্ধন
কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রী ডাঃ হর্ষবর্ধনফাইল ছবি সংগৃহীত

রাহুল গান্ধীকে উদ্দেশ্য করে সরাসরি নজিরবিহীন আক্রমণ করলেন কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রী ডাঃ হর্ষবর্ধন। যে ট্যুইটে কার্যত রাহুল গান্ধীকে ‘শকুন’ বলে উল্লেখ করলেন কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রী। কার্যত বিনা প্ররোচনায় কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রীর এই আক্রমণে স্তম্ভিত দেশের রাজনৈতিক মহল। স্তম্ভিত নেট নাগরিকরাও। যে ট্যুইটকে রাজনৈতিক শিষ্টাচার বিরোধী বলেও মনে করছেন বহু মানুষ।

বুধবার সন্ধ্যে ৬টা নাগাদ করা ওই ট্যুইটে কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রী হর্ষবর্ধন রাহুল গান্ধীকে উদ্দেশ্য করে সরাসরি লেখেন – ‘লাশের রাজনীতি, কংগ্রেসের স্টাইলে। গাছ থেকে যখন শকুন ক্রমশই বিলুপ্ত হচ্ছে, তখন মনে হচ্ছে ভূমির শকুনরা তাদের স্বভাব আত্মস্থ করছে। রাহুল গান্ধীজীর দিল্লির থেকে বেশি নিউইয়র্ক-এর ওপর ভরসা। ভূমির শকুনদের কাছ থেকে কেউ লাশের রাজনীতি শিখুক।’

উল্লেখ্য, এদিন সকালেই রাহুল গান্ধী নিউ ইয়র্ক টাইমসের এই প্রতিবেদন উল্লেখ করে এক ট্যুইট করেন। যে ট্যুইটে তিনি কোভিড মৃত্যু সংখ্যা প্রসঙ্গে উল্লেখ করে লিখেছিলেন – ‘সংখ্যা কখনও মিথ্যে বলেনা, ভারত সরকার বলে।’ নিউ ইয়র্ক টাইমসের ওই প্রতিবেদনে ভারতে কোভিডে মৃত্যুর প্রকৃত সংখ্যা নিয়ে সন্দেহ প্রকাশ করা হয়েছে। রাহুল গান্ধীর এই ট্যুইটের জবাবেই কেন্দ্রীয় মন্ত্রী ডাঃ হর্ষবর্ধন এই ট্যুইট করেছেন। যে ট্যুইট তিনি ট্যাগ করেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী এবং বিজেপি ইন্ডিয়াকে।

ডাঃ হর্ষবর্ধন এই ট্যুইট করার পরেই সমালোচনায় ভরে যায় তাঁর ট্যুইটার হ্যান্ডেল। একাধিক ট্যুইটারি ডাঃ হর্ষবর্ধনের এই মন্তব্যের প্রতিবাদে সরব হন। বিদ্যা নামক এক ট্যুইট ব্যবহারকারী ডাঃ হর্ষবর্ধনের ট্যুইটের উত্তরে লেখেন – ডাঃ হর্ষবর্ধন, আপনার মন্ত্রক তথ্য নিয়ে মিথ্যে বলছে। সারা পৃথিবী এটা জানে। আপনি রাহুল গান্ধীকে ‘শকুন’ বলে নিজেই নিজের অবমাননা করছেন। দয়া করে পদত্যাগ করুন।

অভিজিত সপকল ডাঃ হর্ষবর্ধনের ট্যুইটের উত্তরে লেখেন – দেশ করোনা পরিস্থিতিতে ভুগছে কারণ প্রধানমন্ত্রী ও স্বাস্থ্যমন্ত্রীর অজ্ঞতা। রাহুল গান্ধী যখন এঁদের সতর্ক করেছিলেন তখন এঁরা অন্য কাজে ব্যস্ত ছিলেন।

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in