Press Freedom Index: ১৮০ টি দেশের মধ্যে ভারতের স্থান ১৫০তম, ৫ ধাপ নীচে রাশিয়া, উঠলো চীন

রিপোর্ট অনুযায়ী, ২০২২ সালে ওয়ার্ল্ড প্রেস ফ্রীডম ইন্ডেক্সে প্রথম স্থানে রয়েছে নরওয়ে। দ্বিতীয়, তৃতীয়, চতুর্থ এবং পঞ্চম স্থানে রয়েছে যথাক্রমে ডেনমার্ক, সুইডেন, এস্তোনিয়া এবং ফিনল্যান্ড।
Press Freedom Index: ১৮০ টি দেশের মধ্যে ভারতের স্থান ১৫০তম, ৫ ধাপ নীচে রাশিয়া, উঠলো চীন
ছবি - প্রতীকী

ওয়ার্ল্ড প্রেস ফ্রীডম ইন্ডেক্সে আরও কয়েক ধাপ নামলো ভারত। চলতি বছরে প্রেস ফ্রীডম ইন্ডেক্সে ১৮০টি দেশের মধ্যে ভারতের স্থান ১৫০-এ। ২০২১ সালে এই স্থান ছিল ১৪২-এ। গ্লোবাল মিডিয়া ওয়াচডগ রিপোর্টার্স উইদাউট বর্ডারস কর্তৃক প্রকাশিত এক রিপোর্টে এই তথ্য উঠে এসেছে।

মঙ্গলবার প্রকাশিত এই রিপোর্ট অনুযায়ী, ২০২২ সালে ওয়ার্ল্ড প্রেস ফ্রীডম ইন্ডেক্সে প্রথম স্থানে রয়েছে নরওয়ে। দ্বিতীয়, তৃতীয়, চতুর্থ এবং পঞ্চম স্থানে রয়েছে যথাক্রমে ডেনমার্ক, সুইডেন, এস্তোনিয়া এবং ফিনল্যান্ড। ১৮০টি দেশের মধ্যে সবথেকে শেষে রয়েছে উত্তর কোরিয়া।

রিপোর্ট অনুযায়ী, নেপাল ছাড়া ভারতের সমস্ত প্রতিবেশী রাজ্যগুলোর র‍্যাঙ্ক নেমেছে। এ বছর পাকিস্তান রয়েছে ১৫৭ তম স্থানে, গত বছর এই দেশ ছিল ১৪৫ তম স্থানে। শ্রীলঙ্কার স্থান ১২৭ থেকে নেমে এই বছরে হয়েছে ১৪৬। বাংলাদেশ গত বছর ছিল ১৫২ তম স্থানে, এই বছর বাংলাদেশের স্থান ১৬২ তে। মায়ানমারের স্থান ১৪০ থেকে নেমে হয়েছে ১৭৬। অন্যদিকে নেপাল গত বছর ছিল ১০৬ তম স্থানে। ২০২২ সালে এই হিমালয়ান দেশটি উঠে এসেছে ৭৬ তম স্থানে।

রিপোর্ট অনুযায়ী রাশিয়াতেও সংবাদমাধ্যমের স্বাধীনতা কমেছে। প্রেস ফ্রীডম ইন্ডেক্সে গত বছর রাশিয়া ছিল ১৫০ তম স্থানে। ৫ ধাপ নেমে এই বছর পুতিনের দেশ রয়েছে ১৫৫ তম স্থানে। তবে তালিকায় এগিয়ে এসেছে চিন। ১৭৭ থেকে ২ ধাপ এগিয়ে চিন রয়েছে ১৭৫ স্থানে।

সংস্থাটি তাদের ওয়েবসাইটে একটি বিবৃতি দিয়ে জানিয়েছে, " ওয়ার্ল্ড প্রেস ফ্রীডম দিবসে রিপোর্টার্স উইদাউট বর্ডারস এবং নয়টি অন্যান্য মানবাধিকার সংস্থার তরফ থেকে ভারতীয় কর্তৃপক্ষকে সাংবাদিকদের টার্গেট করা বন্ধ করতে বলা হয়েছে। বিশেষ করে যেভাবে সাংবাদিকদের বিরুদ্ধে সন্ত্রাসবাদ বা দেশদ্রোহিতার মামলা দায়ের করা হচ্ছে, তা অবিলম্বে বন্ধ করা উচিত। অনলাইন, অফলাইন উভয়ক্ষেত্রে সরকারের সমালোচনাকারীদের হুমকি দেওয়া হচ্ছে। তাঁরা হয়রানির স্বীকার হচ্ছেন। মত প্রকাশের স্বাধীনতার অধিকারকে সম্মান করা উচিত ভারত সরকারের।"

রিপোর্টে সুল্লি ডিলস বুল্লি বাই এর মত মুসলিম মহিলাদের বিরুদ্ধে বিদ্বেষ ছড়ানো অ্যাপ নিয়েও উদ্বেগ প্রকাশ করা হয়েছে।

ছবি - প্রতীকী
Global Corruption Index: ১৮০টি দেশের মধ্যে ভারতের স্থান ৮৫ তম, ভুটানের থেকেও পিছিয়ে ভারত

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

Related Stories

No stories found.