শুভেন্দু অধিকারীর সঙ্গে বৈঠক? - সলিসিটার জেনারেল তুষার মেহতার অপসারণের দাবি তুললো তৃণমূল

তৃণমূলের অভিযোগ, সলিসিটার জেনারেল তুষার মেহতা বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারীর সঙ্গে বৈঠক করেছেন। যার বিরুদ্ধে এক দুর্নীতি কান্ডে সিবিআই তদন্ত চালাচ্ছে। যদিও তুষার মেহতা এই বৈঠকের কথা অস্বীকার করেছেন।
শুভেন্দু অধিকারীর সঙ্গে বৈঠক? - সলিসিটার জেনারেল তুষার মেহতার অপসারণের দাবি তুললো তৃণমূল
গ্রাফিক্স - সুমিত্রা নন্দন

ভারতের সলিসিটার জেনারেল তুষার মেহতার অপসারণের দাবি তুললো তৃণমূল। শুক্রবার তৃণমূলের তরফে এই দাবি তোলা হয়েছে। তৃণমূলের অভিযোগ, সলিসিটার জেনারেল তুষার মেহতা রাজ্য বিধানসভার বিরোধী দলনেতা বিজেপির শুভেন্দু অধিকারীর সঙ্গে এক বৈঠক করেছেন। যার বিরুদ্ধে এক দুর্নীতি কান্ডে সিবিআই তদন্ত চালাচ্ছে। যদিও তুষার মেহতা এই বৈঠকের কথা অস্বীকার করেছেন। এর পরেই তৃণমূলের পক্ষ থেকে তাদের দাবীর সপক্ষে এক ভিডিও ট্যুইট করা হয়েছে।

এদিন তৃণমূল সাংসদদের পক্ষ থেকে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে এক চিঠি লেখা হয়। যে চিঠিতে তুষার মেহতার সঙ্গে শুভেন্দু অধিকারীর বৈঠককে 'কনফ্লিক্ট অফ ইন্টারেস্ট' বলে অভিহিত করা হয় এবং তুষার মেহতাকে অবিলম্বে কেন্দ্রীয় সরকারের মুখ্য আইনজীবীর পদ থেকে অপসারণের দাবি তোলা হয়। উল্লেখ্য, সলিসিটার জেনারেল তুষার মেহতা একাধিক মামলায় সিবিআই-এর পক্ষে দাঁড়িয়েছেন।

তৃণমূলের আরও দাবি, শুভেন্দু অধিকারীর বিরুদ্ধে একাধিক মামলায় সিবিআই তদন্ত চালাচ্ছে। এইসব মামলায় সিবিআই-এর পক্ষে সওয়াল করছেন তুষার মেহতা। সুতরাং এই ধরণের একজন ব্যক্তির সঙ্গে তুষার মেহতার বৈঠক কিছু গুরুতর প্রশ্ন তোলে।

এই প্রসঙ্গে তুষার মেহতা জানিয়েছেন, শুভেন্দু অধিকারীর সঙ্গে দেখা করার প্রশ্নই ওঠে না। তিনি গতকাল ৩টে নাগাদ আমার বাড়ি কাম অফিসে আচমকাই এসেছিলেন। আমি যেহেতু সেইসময় অন্য এক মিটিং-এ ছিলাম তাই আমার কর্মচারীরা তাঁকে অপেক্ষা করতে বলেন। আমি যখন তাঁর আসার কথা জানতে পারি তখন আমি আমার কর্মচারীদের মাধ্যমে জানিয়ে দিই যে আমার পক্ষে তাঁর সঙ্গে দেখা করা সম্ভব হবেনা।

প্রধানমন্ত্রীকে লেখা তৃণমূল সাংসদদের চিঠি
প্রধানমন্ত্রীকে লেখা তৃণমূল সাংসদদের চিঠি

যদিও এক ট্যুইট বার্তায় তৃণমূল সাংসদ অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় দাবি করেছেন, রিপোর্ট অনুসারে মাননীয় তুষার মেহতার বাড়িতে মিঃ অধিকারী গেছিলেন এবং সেখানে প্রায় ৩০ মিনিট ছিলেন। এর অর্থ কী এই হয় যে সেখানে এক বৈঠক হয়েছে?

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in