দেশে ৩৩ লাখেরও বেশি শিশু অপুষ্টির শিকার, শীর্ষে মহারাষ্ট্র, বিহার, গুজরাট

ভারতে ৩৩ লাখেরও বেশি শিশু অপুষ্টিতে ভুগছে। এর মধ্যে অর্ধেকরও বেশি গুরুতর অপুষ্টি বিভাগের অন্তর্গত। গত বছরের তুলনায় এই বছরের গুরুতর অপুষ্টিতে ভোগা শিশুর সংখ্যা বেড়েছে ৯১ শতাংশ।
দেশে ৩৩ লাখেরও বেশি শিশু অপুষ্টির শিকার, শীর্ষে মহারাষ্ট্র, বিহার, গুজরাট
প্রতীকী ছবি

ভারতে ৩৩ লাখেরও বেশি শিশু অপুষ্টিতে ভুগছে। এর মধ্যে অর্ধেকরও বেশি গুরুতর অপুষ্টি বিভাগের অন্তর্গত। অপুষ্টিতে ভোগা শিশুর সংখ‍্যার বিচারে শীর্ষস্থানে আছে মহারাষ্ট্র, বিহার এবং গুজরাট। এক আরটিআইয়ের জবাবে একথা জানিয়েছে মহিলা ও শিশু উন্নয়ন মন্ত্রক।

মন্ত্রকের তরফ থেকে জানানো হয়েছে, চলতি বছরের ১৪ অক্টোবর পর্যন্ত পাওয়া তথ‍্য অনুযায়ী, দেশে গুরুতর অপুষ্টিতে ভোগা শিশুর (severely acute malnourished বা SAM ) সংখ্যা মোট ১৭,৭৬,৯০২ জন এবং মাঝারি তীব্রতায় অপুষ্টিতে ভুগছে ১৫,৪৬,৪২০ জন। সবমিলিয়ে মোট ৩৩,২৩,৩২২ জন শিশু।

পুষ্টির ফলাফল নিবন্ধিত রাখার জন্য গতবছর পোষণ ট্র‍্যাকার অ‍্যাপ চালু করেছিল সরকার। সেখনে নিবন্ধিত গত বছরের পরিসংখ্যানের সাথে এই বছরের পরিসংখ্যানের তুলনা করলে দেখা যায়, গুরুতর অপুষ্টিতে ভোগা শিশুর সংখ্যা বেড়েছে ৯১ শতাংশ। তবে দুই বছর ভিন্ন পদ্ধতিতে তথ‍্য সংগ্রহ করা হয়েছিল। গত বছর রাজ‍্য এবং কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলগুলি শিশুর (৬ মাস থেকে ৬ বছর) সংখ্যা গণনা করে কেন্দ্রকে পাঠিয়েছিল। এই বছর অঙ্গনওয়াড়ি কেন্দ্রগুলি সরাসরি পোষণ ট্র‍্যাকারে সংখ্যা নথিভুক্ত করেছে এবং শিশুদের বয়সও নির্দিষ্ট করা হয়নি।

আরটিআই অনুযায়ী, অপুষ্টিতে ভোগা শিশুর সংখ্যা সবথেকে বেশি মহারাষ্ট্রে, ৬,১৬,৭৭২ জন। এর মধ্যে SAM শিশুর সংখ্যা ৪,৫৮,৭৮৮ এবং MAM শিশু ১,৫৭,৯৮৪। দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে বিহার। সেখানে SAM শিশুর সংখ্যা ১,৫২,০৮৩ এবং MAM শিশুর সংখ্যা ৩,২৩,৭৪১ জন। ৩,২০,৩৬৫ লাখ অপুষ্টিতে ভোগা শিশু (১,৫৫,১০১ MAM শিশু এবং ১,৬৫,৩৬৪ SAM শিশু) নিয়ে তৃতীয় স্থানে রয়েছে গুজরাট।

বাকি রাজ‍্যগুলির মধ্যে প্রথমের দিকে রয়েছে অন্ধ্রপ্রদেশ (২.৭৬ লাখ), কর্ণাটক (২.৪৯ লাখ), উত্তরপ্রদেশ (১.৮৬ লাখ), তামিলনাড়ু (১.৭৮ লাখ), আসাম (১.৭৬ লাখ), তেলেঙ্গানা (১.৫২ লাখ)। দিল্লিতে অপুষ্টিতে ভোগা শিশুর সংখ্যা ১.১৭ লাখ।

প্রসঙ্গত, বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা সেই সমস্ত শিশুদের SAM হিসেবে চিহ্নিত করে যাদের উচ্চতার তুলনায় ওজন কম ‌বা যাদের মিড-আপার-আর্মের পরিধি ১১৫ মিলিমিটারের থেকে কম। MAM-এর ক্ষেত্রে এই পরিধি ১১৫ থেকে ১২৫ মিলিমিটারের মধ্যে থাকে।

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

Related Stories

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in