একটা বুলডোজার আনলে কৃষকরা পাঁচটা ট্রাক্টর দিয়ে ঘিরবে - কাকাবাবুর জন্মদিনে BJPকে হুঁশিয়ারি মিশ্রের

তৃণমূল বিজেপি উভয়ই ফ্যাসিস্ট, এদের বিরুদ্ধে লড়তে হবে। কাকাবাবুর পার্টির শক্তি আরও বাড়াতে হবে। কৃষক শ্রমিকদের ঐক্যবদ্ধ হতে হবে। মুজফফর আহমেদের ১৩৪ তম জন্মবার্ষিকীতে একথা বলেন সূর্যকান্ত মিশ্র।
মহাজাতি সদনে বক্তব্য রাখছেন সূর্যকান্ত মিশ্র
মহাজাতি সদনে বক্তব্য রাখছেন সূর্যকান্ত মিশ্রনিজস্ব চিত্র

বিজেপি বুলডোজার দিয়ে সব গুঁড়িয়ে দিচ্ছে। আপনারা জেনে রাখুন আপনারা একটা বুলডোজার বের করলে কৃষকরা পাঁচটা ট্রাক্টর বের করবে, একটা বুলডোজারকে ঘিরবে পাঁচটা ট্রাক্টর। তৃণমূল বিজেপি উভয়ই ফ্যাসিস্ট, এদের বিরুদ্ধে লড়তে হবে। কাকাবাবুর পার্টির শক্তি আরও বাড়াতে হবে। কৃষক শ্রমিকদের ঐক্যবদ্ধ হতে হবে। শুক্রবার কলকাতার মহাজাতি সদনে মুজফফর আহমেদের ১৩৪ তম জন্মবার্ষিকী উদযাপন অনুষ্ঠানে একথা বলেন সিপিআই(এম) পলিটব্যুরো সদস্য সূর্যকান্ত মিশ্র।

এদিনের সভায় মিশ্র বলেন, হিন্দুত্ব নিয়ে লড়াইয়ে নেমেছে বিজেপি। এই হিন্দুত্বের সাথে কিন্তু হিন্দু ধর্মের কোনও সম্পর্ক নেই, এটা একটি পলিটিক্যাল প্রজেক্ট। আমি চ্যালেঞ্জ করে বলছি, বেদ, উপনিষদে কী আছে জানেন না মোদী-শাহ। বাংলায় যখন আসবেন বেদ উপনিষদ নিয়ে আধ ঘণ্টা কথা বলতে বলবেন, আমি চ্যালেঞ্জ করছি পারবেন না।

মুজফফর আহমেদ সম্পর্কে বলতে গিয়ে সিপিআইএম নেতা বলেন, প্রথম যাঁরা আন্তর্জাতিকতাবাদের পতাকা তুলে ধরেছিলেন, কাকাবাবু তাঁদের অন্যতম। আমাদের পার্টির প্রতিষ্ঠাতা। কমিউনিস্ট পার্টি কোনও দেশের নয়, এটা আন্তর্জাতিক দৃষ্টিভঙ্গি। কাকাবাবুর জন্মবার্ষিকীতে আমার এটা বলতে খুব ভালো লাগছে, আগে জানতাম গোটা পৃথিবী জুড়ে ৮১ টার মত কমিউনিস্ট দল আছে, এখন শুনছি চীনের এক পার্টি এক বিশেষ ফোরাম গঠন করেছে এবং সেখানে ১০০-এর বেশি কমিউনিস্ট পার্টি নাম নথিভুক্ত করেছে। তারা আলোচনায় বসেছে আগের মতো ইন্টারন্যাশনাল কমিউনিস্ট পার্টি গঠন করা যায় কিনা।

এদিন মিশ্র বলেন, গোটা বিশ্ব জুড়ে অভূতপূর্ব এক সংকট চলছে। প্রায় ৯০ বছর আগে যে মহামন্দার পরিস্থিতি তৈরি হয়েছিল, সেরকম। সেই মন্দা ৩-৪ বছর চলছিল। কিন্তু বর্তমান সংকটাবস্থা ২০০৮ থেকে শুরু হয়েছে এবং এখনও চলছে। আন্তজার্তিক অর্থবানরা ঘোষণা করে দিয়েছেন ২০২৩ সাল গোটা বিশ্ব মন্দার মধ্যে দিয়ে যাবে। আমরা ইতিমধ্যেই মন্দার মধ্যে রয়েছি, সেটা ওঁরা মানতেন কিনা জানিনা, এবার ২০২৩ সালে আরও মন্দা দেখতে চলেছি আমরা, সতর্কবার্তা দিয়েছে IMF। এই মন্দা পরিস্থিতির আগে যা হয়, একটা দক্ষিণপন্থার উত্থান হয়। এখনও তাই হচ্ছে। গোটা বিশ্ব জুড়ে দক্ষিণপন্থা শক্তির উত্থান হচ্ছে। ভারতে আমরা খুব ভালোভাবে তা প্রত্যক্ষ করছি। এর বিরুদ্ধে প্রতিরোধও গড়ে উঠছে।

আন্তর্জাতিক পরিস্থিতি সম্পর্কে বলতে গিয়ে তিনি বলেন, গোটা বিশ্বে অর্থনৈতিক সংকট তীব্রতর হচ্ছে। শুধু জীবন জীবিকার উপরে আক্রমণ নয়, মানুষের অধিকারের উপর আক্রমণ হচ্ছে। তার থেকেও বড় কথা হচ্ছে মানুষের ঐক্য ভাঙ্গার চেষ্টা করা হচ্ছে। ১০০ বছর আগেও এরকম হয়েছিল। আবার এরকম পরিস্থিতি প্রত্যক্ষ করছি অর্থাৎ মানুষের মধ্যে বিভাজন তৈরি করো, যুক্তিবাদকে ধ্বংস করো, বিজ্ঞানকে ধ্বংস করো, মিথ্যা প্রচার করো। গোয়েবলস যা বলতেন, তাই করা হচ্ছে একটু নতুন ভাবে। ২০২৩ সাল যে অর্থনৈতিক এবং রাজনৈতিক দিক থেকে আরও জটিল দিকে যাবে, সে নিয়ে কোনও সন্দেহ নেই।

কেন্দ্রের জনবিরোধী নীতির বিরুদ্ধে গড়ে ওঠা সাধারণ মানুষের আন্দোলন সম্পর্কে বলতে গিয়ে মিশ্র বলেন, আমাদের দেশে বিজেপি আরএসএস মানুষে মানুষে বিভেদ তৈরি করার চেষ্টা চালাচ্ছে। এর বিরুদ্ধে প্রতিরোধও গড়ে উঠছে। তার সব থেকে বড় প্রমাণ দিল্লিতে হওয়া কৃষক আন্দোলন, যেখানে জাতি ধর্ম বর্ণ ভাষা নারী পুরুষ নির্বিশেষে সকলে আন্দোলনে অংশ নিয়েছিলেন। শীত-বৃষ্টিকে উপেক্ষা করে তাঁরা আন্দোলনে শামিল থেকেছেন। মোদী তিন কৃষি আইন প্রত্যাহার করতে বাধ্য হয়েছেন। কৃষকদের এই আন্দোলনে শ্রমিকরাও অংশ নিয়েছিলেন। আবার শ্রম কোড বাতিল নিয়ে শ্রমিকরা যে আন্দোলন শুরু করেছেন তাতে সমর্থন জানিয়েছেন কৃষকরা। শ্রমিক-কৃষকদের মধ্যে ঐক্য গড়ে উঠছে, এটি একটি ইতিবাচক দিক।

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

Related Stories

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in