তৃণমূলের গলার ফাঁস ভুয়ো টিকা? বিধানসভায় উঠতে পারে ঝড়, জনস্বার্থ মামলা দায়ের
ভুয়ো টিকাকান্ডে অভিযুক্ত দেবাঞ্জন দেব ছবি ফেসবুকের সৌজন্যে

তৃণমূলের গলার ফাঁস ভুয়ো টিকা? বিধানসভায় উঠতে পারে ঝড়, জনস্বার্থ মামলা দায়ের

কসবায় ভুয়ো টিকাকরণ ক্যাম্প নিয়ে তোলপাড় গোটা রাজ্যের রাজনৈতিক মহল। এদিনই ভ্যাকসিন কেলেঙ্কারিতে সি বি আই তদন্ত চেয়ে আইনজীবী সন্দীপন দাস হাইকোর্টে জনস্বার্থ মামলা দায়ের করেছেন।

কসবায় ভুয়ো টিকাকরণ ক্যাম্প নিয়ে তোলপাড় গোটা রাজ্যের রাজনৈতিক মহল। এদিনই ভ্যাকসিন কেলেঙ্কারিতে সি বি আই তদন্ত চেয়ে আইনজীবী সন্দীপন দাস হাইকোর্টে জনস্বার্থ মামলা দায়ের করেছেন। আর অন্যদিকে এই আঁচ এবার ছড়িয়ে পড়লো রাজ্য বিধানসভার অন্দরেও। কার্যত বিধানসভায় তৃণমূলের গলার ফাঁস হতে চলেছে ভুয়ো টিকা কান্ড। এবার বিধানসভার অন্দরেও ভুয়ো টিকা নিয়ে সরব হতে চলেছে বিজেপি। আর এই আন্দোলনকে সামনে থেকে নেতৃত্বে দেবেন বিজেপি বিধায়ক তথা রাজ্য বিধানসভার বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী।

শুক্রবার স্বাস্থ্য ভবনে ভুয়ো টিকা সংক্রান্ত বিষয়ে আধিকারিকদের সঙ্গে বৈঠকের পর এমনটাই জানিয়েছেন শুভেন্দু। একই সঙ্গে তাঁর হুঁশিয়ারি, টিকাকাণ্ড নিয়ে যদি পূর্ণাঙ্গ তদন্ত না করা হয়, তা হলে জনস্বার্থ মামলার পথে হাঁটবেন তাঁরা। পাশাপাশি গোটা বিষয়টি কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রী হর্ষবর্ধনকেও জানানো হয়েছে বলেও দাবি রাজ্য বিধানসভার বিরোধী দলনেতার।

একদিকে পিএসি চেয়ারম্যান পদ নিয়ে রাজ্যের বিরোধী দল বিজেপিকে চেপে রেখেছে তৃণমূল। এবার শাসকের ওপর ভুয়ো টিকা কাণ্ডে পাল্টা চাপ তৈরি করছে বিজেপি। দুই ঘটনা নিয়ে শাসক-বিরোধী রাজনৈতিক চাপানউতোর অব্যাহত। এদিন শুভেন্দু অধিকারী আরও বলেন, 'বিধানসভার অধিবেশন শুরু হলে বিষয়টি উত্থাপন করা হবে। এই ভুয়ো, প্রতারক চিটিংবাজ, প্রভাবশালীদের সঙ্গ দেওয়া দেবাঞ্জন দেব যে কাণ্ডটা করেছে, তাতে মানুষ আতঙ্কিত। এই টিকা শিবিরে টিকা নিয়ে যদি কারও কিছু হয়ে যেত, তা হলে বলা হত মোদীর পাঠানো টিকার জন্য এই ঘটনা ঘটেছে। এটা একটা বড় ষড়যন্ত্র বলে আমরা মনে করছি।'

ভুয়ো টিকা কাণ্ডে ইতিমধ্যেই গ্রেফতার হয়েছেন মূল অভিযুক্ত দেবাঞ্জন দেব। কিন্তু কী ভাবে এই টিকা আনা হল, কোন দোকান থেকে সেই টিকা নেওয়া হয়েছে, সব কিছু নিয়ে পূর্ণাঙ্গ তদন্তের দাবি জানাতে এদিন আচমকাই দলের বিধায়কদের নিয়ে স্বাস্থ্যভবনে পৌঁছে যান শুভেন্দু। পরে স্বাস্থ্যভবন থেকে বেরিয়ে শুভেন্দু বলেন, ‘গত ২-৩ সপ্তাহ ধরে দেবাঞ্জন গাড়ি করে লোক নিয়ে এসে টিকা দিয়েছেন। সেই কর্মসূচিতে কোথাও দেখা গিয়েছে শাসকদলের সাংসদ গিয়ে টিকা নিচ্ছেন। কোথাও দেখা গিয়েছে মুখ্যমন্ত্রীর ঘনিষ্ঠ মন্ত্রী নেতারা এই প্রতারককে দিনের পর দিন সঙ্গ দিচ্ছে। এটা নিয়ে একটা বড় এজেন্সির তদন্তের প্রয়োজন। প্রয়োজনে সিবিআইকে দিয়েও তদন্ত করানো উচিত।'

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in